• ঢাকা
  • রবিবার, ০১ আগস্ট, ২০২১, ১৬ শ্রাবণ ১৪২৮
প্রকাশিত: জুন ২৩, ২০২১, ০৩:৫৩ এএম
সর্বশেষ আপডেট : জুন ২২, ২০২১, ০৯:৫৩ পিএম

শামি-ইশান্তের দাপটের দিন 

শামি-ইশান্তের দাপটের দিন 

গতি, লাইন-লেন্থ ও সুইংয়ে আইসিসি টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপ ফাইনালের পঞ্চম দিনে সাউদাম্পটনে রীতিমত দাপট দেখিয়েছেন ভারতের পেসাররা। ৭৬ রানে ৪ উইকেট নিয়ে সেটাকে একেবারে সামনে থেকে নেতৃত্ব দিয়েছেন মোহাম্মদ শামি। একপ্রান্ত আগলে রেখে নিউজিল্যান্ডকে বড় সংগ্রহ এনে দেয়ার চেষ্টা করলেও শেষ পর্যন্ত ৪৯ রান করে ইশান্ত শর্মার বলে কাটা পড়েন কেন উইলিয়ামসন।

তাতে ডেভন কনওয়ের হাফ সেঞ্চুরি ও উইলিয়ামসনের ৪৯ রানের দায়িত্বশীল ইনিংসের পরও নিউজিল্যান্ড গুটিয়ে গেছে ২৪৯ রানে। কিউইদের চেয়ে ৩২ রানে পিছিয়ে থেকে দ্বিতীয় ইনিংস শুরু করলেও পঞ্চম দিন শেষে  ঠিক ৩২ রানেই এগিয়ে রয়েছে ভারত। এদিন সাউদাম্পটনে দুই দল মিলে উইকেট হারিয়েছে ১০টি।

৩২ রানে পিছিয়ে থেকে নিজেদের দ্বিতীয় ইনিংস শুরু করেন ভারতের দুই ওপেনার শুভমান গিল ও রোহিত শর্মা। প্রথম ইনিংসে দারুণ এক জুটি গড়লেও এবার সেটা করতে ব্যর্থ হয়েছে তাঁরা দুজন। থিতু হলেও ইনিংস বড় করতে না পারার আক্ষেপ নিয়ে ফিরতে হয় গিলকে।

৩৩ বলে ৮ রান করা তরুণ এই ওপেনারকে লেগ বিফোরের ফাঁদে ফেলে সাজঘরে ফিরিয়েছেন টিম সাউদি। এরপর তিনে নামা চেতেশ্বর পূজারাকে সঙ্গে নিয়ে একেবারে ধীরগতির ব্যাটিং করতে থাকেন রোহিত। এই জুটিতে ১৬.১ ওভার ব্যাটিং করে মাত্র ২৭ রান যোগ করেছেন এই দুই ব্যাটসম্যান।

গিলের পর রোহিতকেও লেগ বিফোরের ফাঁদে ফেলে প্যাভিলিয়নে পাঠিয়েছেন সাউদি। ডানহাতি এই ওপেনার এদিন করেছেন ৮১ বলে ৩০ রান। এরপর শেষ বিকেলে আর কোন উইকেট হারাতে দেননি পূজারা ও বিরাট কোহলি। ৫৫ বলে ১২ রান করা পূজারাকে সঙ্গে নিয়ে ষষ্ঠ দিন ব্যাটিংয়ে নামবেন ৮ রানে অপরাজিত থাকা কোহলি। কিউইদের হয়ে দুটি উইকেটই নিয়েছেন সাউদি।

এর আগে পঞ্চম দিন সকালে ২ উইকেটে ১০১ রান নিয়ে নিজেদের প্রথম ইনিংসের ব্যাটিং শুরু করেন উইলিয়ামসন ও রস টেলর। ৩৭ বলে ১১ রান করা টেলর অবশ্য এদিন দ্রুতই সাজঘরে ফিরেছেন। গিলের হাতে ক্যাচ বানিয়ে ডানহাতি এই অভিজ্ঞ ব্যাটসম্যানকে ফেরান শামি। 

এক প্রান্তে উইলিয়ামসন অবিচল থাকলেও হেনরি নিকোলস, বিজে ওয়াটলিং ও কলিন ডি গ্র্যান্ডহোমরা নিজেদের নামের প্রতি সুবিচার করতে পারেননি। ৭ রান করা নিকোলসকে ফিরিয়েছেন ইশান্ত আর দারুণ এক আউট সুইংয়ে বোল্ড করে ১ রান করা ওয়াটলিংকে ফেরান শামি। 

৩০ বলে ১৩ রান করে গ্র্যান্ডহোমও ফিরেছেন শামির বলে। কাইল জেমিসন ক্রিজে এসে দ্রুত রান তুললেও ইনিংস বড় করতে পারেননি। দ্রুতগতিতে ১৬ বলে ২১ রান করা জেমিসনকেও ফেরান শামি। জেমিসন ফেরার পর কিউইদের প্রাচীর হয়ে থাকা উইলিয়ামসনও সাজঘরে ফেরেন। 

হাফ সেঞ্চুরি থেকে মাত্র ১ রান দূরে থেকে ইশান্তর বলে কোহলির হাতে ক্যাচ দিয়ে ফেরেন তিনি। শেষ দিকে সাউদির ৪৬ বলে ৩০ রানের সুবাদে প্রথম ইনিংসে ৩২ রানের লিড পায় নিউজিল্যান্ড। তাঁকে থামান রবীন্দ্র জাদেজা। ভারতের হয়ে শামি চারটি, ইশান্ত তিনটি, রবিচন্দ্রন অশ্বিন দুটি ও জাদেজা নিয়েছেন একটি উইকেট।

সংক্ষিপ্ত স্কোর (পঞ্চম দিনশেষে):

ভারত (প্রথম ইনিংস): ২১৭/১০ (ওভার ৯২.১) (কোহলি ৪৪, রোহিত ৩৪, রাহানে ৪৯, গিল ২৮, অশ্বিন ২২; জেমিসন ৫/৩১, ওয়াগন্যার ২/৪০, বোল্ট ২/৪৭)

নিউজিল্যান্ড (প্রথম ইনিংস): ২৪৯/১০ (ওভার ৯৯.২) (কনওয়ে ৫৪, লাথাম ৩০, উইলিয়ামসন ৪৯, সাউদি ৩০; শামি ৪/৭৬, ইশান্ত ৩/৪৮, অশ্বিন ২/২৮)

ভারত (দ্বিতীয় ইনিংস): ৬৪/২ (ওভার ৩০) (রোহিত ৩০, পূজারা ১২, কোহলি ৮*, গিল ৮, সাউদি ২/১৭)