• ঢাকা
  • রবিবার, ০১ আগস্ট, ২০২১, ১৬ শ্রাবণ ১৪২৮
প্রকাশিত: জুলাই ২১, ২০২১, ০৬:০১ পিএম
সর্বশেষ আপডেট : জুলাই ২১, ২০২১, ১২:০১ পিএম

কিংবদন্তিদের এল-ক্লাসিকোয় জিতল রিয়াল 

কিংবদন্তিদের এল-ক্লাসিকোয় জিতল রিয়াল 

দুই ক্লাব একে অপরের চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী। মাঠের লড়াই অসামান্য। দুই ক্লাবের হয়েই খেলেছেন একাধিক ফুটবল কিংবদন্তিরা। এবার সেই বার্সেলোনা ও রিয়াল কিংবদন্তিদেরই দেখা গেছে একে অপরের সঙ্গে ম্যাচ খেলতে। এ যেন কিংবদন্তিদের এল-ক্লাসিকো। আর মর্যাদার এই এল-ক্লাসিকোয় শেষ হাসি হেসেছে লস ব্লাংকোরাই।

গত মঙ্গলবার রাতে ইসরায়েলের তেল আভিভের ব্লুমফিল্ড স্টেডিয়ামে কিংবদন্তিদের এল-ক্লাসিকো অনুষ্ঠিত হয়। প্রীতি এই মহারণে বার্সেলোনাকে ৩-২ গোলে হারিয়ে মাঠ ছেড়েছে রিয়াল মাদ্রিদ।

আক্রমণ প্রতি আক্রমণের ম্যাচে শুরুতে গোল করে কাতালানদের এগিয়ে দেন ব্রাজিলিয়ান কিংবদন্তি রোনালদিনহো। ২৭তম মিনিটে স্পটকিকে গোল করেন বার্সার ইতিহাসের অন্যতম সেরা এই তারকা।

বিরতির আগেই দুই মিনিটে দুই গোল করে এগিয়ে যায় লস ব্লাংকোরা। ৪২ ও ৪৪তম মিনিটে মুনিতিস ও আলফোনসোর গোলে ২-১ গোলের লিড নিয়ে বিরতি তে যায় সর্বাধিক লা লিগা জয়ী ক্লাব রিয়লা মাদ্রিদের কিংবদন্তিরা। 

দ্বিতীয়ার্ধেও চলে রিয়ালের দাপট। একের পর এক আক্রমণে বার্সেলোনার কিংবদন্তিদের চেপে ধরে লস ব্লাংকোদের সাবেক তারকারা। তবে এবারও গোলের খেরোখাতা শুরু করে কাতালানরাই। ৬০তম মিনিটে জোফরে ম্যাতিওর গোলে সমতায় ফিরে দিনহো এন্ড কোংরা। 

১০ মিনিট পরই ম্যাচের ভাগ্য নির্ধারণী গোল করে ফেলেন রিয়ালের ডে লে রেড। সাবেক স্প্যানিশ সেন্ট্রাল মিডফিল্ডারের গোলে জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে লস ব্লাংকোস বাহিনী। দুই দলের কিংবদন্তিদের এর আগের এল- ক্লাসিকোয় ২০১৭ সালে হয়েছিল, যেখানে রিয়াল মাদ্রিদকে ৩-২ গোলে হারিয়েছিলো কাতালানরা। 

ব্লুমফিল্ড স্টোডিয়ামে দর্শক ধারণক্ষমতা প্রায় ত্রিশ হাজার থাকলেও কোভিড- ১৯ মহামারীর প্রভাবে এই প্রদর্শনী ম্যাচ আয়োজন করতে দীর্ঘদিন দেরি হয়ে যায়। অবশেষে রেফারি অ্যালবার্ট ফেরারের পরিচালনায় থাকা বার্সেলোনা কিংবদন্তি দলে ডেকো, রোনালদিনহো, রিভালদো, স্যাভিওলা, জুয়ান কার্লোস, গাইজকা মেন্ডিটিয়ার মতো সাবেক তারকারা খেলেছে। অন্যদিকে রিয়াল মাদ্রিদে হয়ে মাঠ মাতিয়েছে রবার্তো কার্লোস, লুইস ফিগো, রিভেরা, ফার্নান্দো সানজ ও ইভান ক্যাম্পোর মতো সাবেক তারকারা।

উল্লেখ্য, আগামী মাসের আগস্টেই ইসরায়েলে ভ্রমণ করার কথা ছিলো বার্সেলোনার। সেখানে স্থানীয় একটি ক্লাবে সাথে প্রীতি ম্যাচ খেলার কথাও ছিলো মেসিদের। তবে শেষ পর্যন্ত, জেরুজালেমে ভেন্যু জটিলতায় ম্যাচটি বাতিল হয়ে যায়।