• ঢাকা
  • বুধবার, ২৭ অক্টোবর, ২০২১, ১২ কার্তিক ১৪২৮
প্রকাশিত: সেপ্টেম্বর ২৫, ২০২১, ০৩:৫৪ পিএম
সর্বশেষ আপডেট : সেপ্টেম্বর ২৫, ২০২১, ০৯:৫৪ এএম

বিসিবি নির্বাচন: মনোয়নপত্র কিনে চমক দেখালেন ফাহিম 

বিসিবি নির্বাচন: মনোয়নপত্র কিনে চমক দেখালেন ফাহিম 
বিসিবিতে মনোয়নপত্র কিনে বের হয়ে আসার পর নাজমুল আবেদীন ফাহিম। ক্রিকেট৯৭

আগামী ৬ অক্টোবর অনুষ্ঠেয় বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের নির্বাচনে পরিচালক পদে লড়তে যাচ্ছেন স্বনামধন্য কোচ, ক্রিকেট বিশ্লেষক নাজমুল আবেদীন ফাহিম। প্রভাবশালী খালেদ মাহমুদ সুজনের বিপক্ষে লড়তে যাওয়া ফাহিম মনোয়নপত্র কিনে চমক দেখানোর পাশাপাশি বিসিবি নির্বাচনে উত্তাপ বাড়িয়ে দিয়ে ক্রিকেট পাড়া মাতিয়ে তুলেছেন।

শনিবার (২৫ সেপ্টেম্বর)  বিসিবিতে মনোয়নপত্র কিনতে এসে গণমাধ্যমকে ফাহিম বলেন, ‘সত্যি বলতে আমি এর আগেও দুইবার কাউন্সিলর ছিলাম। বিসিবিতে আসার আগে যখন বিকেএসপিতে ছিলাম। আগেও সুযোগ হয়েছিল (নির্বাচন করার) তবে আরেকজনের জন্য ত্যাগ স্বীকার করেছিলাম। আমার মনে হয় এতদিন কাজ করার পর আমার ভালো ধারণা আছে বাংলাদেশের ক্রিকেটের জন্য কি করা দরকার। সেটাতে দৃষ্টি রেখেই আমি মিড লেভেল কিছু কাজ করার চেষ্টা করেছি।’ 

পরিচালক নির্বাচিত হলে নিজের কর্মপন্থা সম্পর্কে তিনি বলেন, ‘ক্রিকেটকে ছড়িয়ে দেয়া বলেন, হিউম্যান রিসোর্স বলেন, ইনফ্রাস্টকচার বলেন সব বিষয়ে আমরা যতটুকু করতে পারতাম আমার মনে হয় না ততটুকু করতে পেরেছি। আমার যেহেতু অনেক লেভেলে কাজ করার সুযোগ হয়েছে তাই আমি জানি। যদি সুযোগ পাই এ জায়গাগুলোতে কাজ করার চেষ্টা করবো।’

ক্যাটাগরি-৩ পরিচালক পদে কাউন্সিলর আছেন সাবেক ক্রিকেটার ও বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান। যেখানে ফাহিম এসেছেন বাংলাদেশ ক্রীড়া শিক্ষা প্রতিষ্ঠান (বিকেএসপি) থেকে। ২০১৯ সালে বিসিবির চাকরি ছেড়ে বর্তমানে আছেন বিকেএসপির ক্রিকেট উপদেষ্টা হিসেবে। যেখানে তিনি এর আগেও কাজ করেছেন দীর্ঘদিন।

নাজমুল আবেদীন ফাহিম বলেন, ‘আমি অনুধাবন করেছি যে আমি বা আমাদের মত যারা আছে তাদের বোধহয় পলিসি লেভেল থাকা উচিৎ। আমরা সত্যিকার ছবিটা তুলে ধরতে পারবো পলিসি লেভেলে। আর সত্যিকার যে পরিবর্তনগুলো দরকার সেগুলো আনার চেষ্টা করবো।’

খালেদ মাহমুদ সুজন দেশের ক্রিকেট উন্নয়নে অবদান রেকগেছেন- তা সবাই এক বাক্যে স্বীকার করেন।  অতি প্রভাবশালী বোর্ড পরিচালকের সঙ্গে প্রতিদ্বন্দ্বিতা প্রসঙ্গে ইতিবাচক মনোভাব পোষণ করে ফাহিম আরও বলেন,  ‘এটাতো আসলে টক্কর না, এটা ভালো জিনিস যে আমরা যারা অংশ নিচ্ছি তারা সবাই যোগ্য। আমার সাথে সুজনের দেখা হয়েছে এবং তাকে আমি উইশ করেছি সেও আমাকে উইশ করেছে। আমি আশা করি একটা ভালো পরিবেশে নির্বাচনটা হবে। তার জন্য আমার শুভ কামনা থাকলো। তার অবদান নিয়েও সন্দেহ নেই। অনেক গুলো বছর সে কাজ করছে।’