• ঢাকা
  • বুধবার, ১০ আগস্ট, ২০২২, ২৬ শ্রাবণ ১৪২৯
প্রকাশিত: জানুয়ারি ১৪, ২০২২, ১২:৪৫ এএম
সর্বশেষ আপডেট : জানুয়ারি ১৩, ২০২২, ০৬:৪৫ পিএম

ডমিঙ্গোই থাকছেন টাইগারদের কোচের দায়িত্বে

ডমিঙ্গোই থাকছেন টাইগারদের কোচের দায়িত্বে
সংগৃহীত ছবি

জুতসই নতুন কোচ খুঁজে না পাওয়া পর্যন্ত জাতীয় দলের কোচের দায়িত্বে রাসেল ডমিঙ্গোই থাকছেন বলে জানিয়েছেন বিসিবি ক্রিকেট অপারেশন্স চেয়ারম্যান জালাল ইউনুস।

বৃহস্পতিবার (১৩ জানুয়ারি) সংবাদমাধ্যমকে এ তথ্য জানান তিনি।

বিশ্বকাপে টাইগারদের ভরাডুবির পর সমালোচনা শুরু হয় হেড কোচ রাসেল ডমিঙ্গোকে নিয়ে। ঘরের মাঠে পাকিস্তান সিরিজে ধারাবাহিক ব্যর্থতায় ডমিঙ্গোকে সরানোর দাবি আরো জোরালো হয়।

বিসিবি ক্রিকেট অপারেশন্স চেয়ারম্যান জালাল ইউনুস আরো জানান, পরবর্তী বোর্ড সভায় নির্বাচকদের ভবিষ্যৎ নিয়েও আসবে সিদ্ধান্ত। আর গিবসন চুক্তি নবায়ন না করায় নতুন পেস বোলিং কোচের খোঁজে নেমেছে বিসিবি।

নিউজিল্যান্ড সফরে মঙ্গানুই টেস্টে ঐতিহাসিক জয় কিছুটা স্বস্তির হলেও, ক্রাইস্টচার্চ টেস্টের হতাশায়, আবারো প্রশ্ন উঠেছিল ডমিঙ্গোর ভবিষ্যৎ নিয়ে। অনিশ্চয়তা নিয়ে নিজ দেশে ফেরার পর সুখবর পেলেন প্রোটিয়া কোচ। উপযুক্ত বিকল্পের অভাবে বহাল থাকছেন হেড কোচের দায়িত্বে।

নির্বাচকদের ভূমিকাও ছিল প্রশ্নবিদ্ধ। যথার্থ সুযোগ না দিয়ে খেলোয়াড়দের দল থেকে ছেটে ফেলা। অপরিকল্পিত সিদ্ধান্তে নানা বিতর্ক-সমালোচনা সঙ্গী কোরেই চলছিল নির্বাচক প্যানেল।

ডিসেম্বর পর্যন্ত চুক্তি থাকলেও এখনে পর্যন্ত দায়িত্বে নান্নু-বাশার-রাজ্জাকের প্যানেল। তাদের ভবিষ্যৎ নির্ধারন হবে বিসিবির পরবর্তী সভায়।

বিসিবির সাথে ওটিস গিবসনের চুক্তি নবায়নে অনাগ্রহ, আরেকটা বড় ধাক্কা টাইগার ম্যানেজমেন্টের জন্য। চুক্তির মেয়াদ শেষ হয়ে যাওয়ায় সরে দাড়িয়েছেন কোচিং প্যানেল থেকে। পেস ইউনিটের সাম্প্রতিক উন্নতিতে স্পষ্ট তার অবদান। বিসিবির তাকে রেখে দেয়ার পরিকল্পনা থাকলেও নতুন কোরে আর চুক্তি নবায়ন করছেন না গিবসন।

বাংলাদেশ দলের জন্য এই পুরো বছর ব্যস্ত সময় কাটবে। যে কারণে নতুন কোচ এসে দলের সঙ্গে মানিয়ে নেয়ার সময় খুব একটা পাবেন না বলে মনে করছে বোর্ড।

চলতি মাসের ২১ তারিখে শুরু হওয়ার কথা বিপিএলের। করোনাভাইরাস (কোভিড-১৯) ঊর্ধ্বগতিতে শঙ্কা বেড়েছে। তবুও আসর আয়োজন নিয়ে আশাবাদী বিসিবি।

জাগরণ/এসএসকে