• ঢাকা
  • বৃহস্পতিবার, ২৭ জুন, ২০১৯, ১৪ আষাঢ় ১৪২৬
Bongosoft Ltd.
প্রকাশিত: জুন ১২, ২০১৯, ০৭:০২ পিএম
সর্বশেষ আপডেট : জুন ১২, ২০১৯, ০৭:০২ পিএম

জামায়াতকে দিয়েই বিএনপির চূড়ান্ত কবর : নানক

জাগরণ প্রতিবেদক
জামায়াতকে দিয়েই বিএনপির চূড়ান্ত কবর : নানক
বক্তব্য রাখেন আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর কবির নানক-ছবি : জাগরণ

জামায়াতকে দিয়েই বিএনপির কবর রচিত হবে বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর কবির নানক।

বুধবার (১২ জুন) শেখ হাসিনার কারামুক্তি দিবস উপলক্ষে রাজধানীর বঙ্গবন্ধু অ্যাভিনিউয়ে আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে যুবলীগ আয়োজিত আলোচনা সভায় তিনি এ কথা বলেন।

নানক বলেন, জামায়াত স্বাধীনতা বিরোধী। জামায়াতের কারণেই জনগণ বিএনপিকে প্রত্যাখান করেছে। তাতেও শিক্ষা হয় না তাদের। জামায়াতকে দিয়েই বিএনপির চূড়ান্ত কবর রচনা হবে।

বিএনপি অফিসে ছাত্রদলের তালা দেয়ার প্রসঙ্গ উল্লেখ করে বিএনপি নেতাদের উদ্দেশে আওয়ামী লীগের এ নেতা বলেন, বিএনপির নেতাদের ছত্রচ্ছায়া ছাত্রদলের ছেলেরা বিএনপির অফিসেই তালা দিয়েছে, তারপরও আপনাদের লজ্জা হয় না।

তিনি বলেন, একাত্তরের পরাজিত জামায়াতে ইসলাম ও জিয়াউর রহমান আওয়ামী লীগকে নিশ্চিহ্ন করে দিতে চেয়েছিল। তারা শুধু নিশ্চিহ্নই করতে চায়নি, আওয়ামী লীগকে খণ্ড-বিখণ্ড করার অপচেষ্টা চালিয়ে ছিল। কিন্তু আওয়ামী লীগের কর্মীরা কখনও ভুল সিদ্ধান্ত নেয়নি।

১/১১-এর প্রেক্ষাপটে শেখ হাসিনার কারামুক্তি আন্দোলনের স্মৃতিচারণ করে যুবলীগের সাবেক চেয়ারম্যান নানক বলেন, সে সময়ে আমরা যুবলীগের অফিসে ভিন্নতা সৃষ্টি করেছিলাম। যারা আজকে যুবলীগের নেতৃত্ব দিচ্ছেন তাদের নিয়ে সে সময়ে আমরা অসাধ্যকে সাধন করতে পেরেছিলাম। যুবলীগের নেতা-কর্মীরা সে সময়ে কঠিন অবদান রেখেছেন। ১/১১-এর ঘটনার সময় দেশ ত্যাগ করেনি, ঢাকা শহরের বিভিন্ন জায়গায় আত্মগোপনে ছিলাম। যুবলীগের চেয়ারম্যান সেই সময়ে নেত্রীর শেখ হাসিনার তথ্য ও পরামর্শগুলো আমাদের কাছে পৌঁছে দিতেন।

সভায় যুবলীগের চেয়ারম্যান ওমর ফারুক চৌধুরী বলেন, ১/১১-এর সময় আমাদের অনেকেই আন্দোলন-সংগ্রাম করেছেন। আন্দোলন করতে গিয়ে নানাভাবে আহত হয়েছেন। তাতে করে অনেকের মধ্যে এখনও মান-অভিমান আছে। কিন্তু যাই হোক, কি পেয়েছি-কি পেলাম না তার হিসাব করে কোনও লাভ নেই। অতীত আমাকে শিক্ষা দেয়, কিন্তু ভবিষ্যৎ কি হবে সেটা আল্লাহর ব্যাপার।

সভায় সাবেক যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক মির্জা আজম, যুবলীগ সাধারণ সম্পাদক হারুন অর রশীদসহ আরও অনেকে উপস্থিত ছিলেন। 

এএইচএস/এসএমএম

Space for Advertisement