• ঢাকা
  • শনিবার, ২০ জুলাই, ২০২৪, ৫ শ্রাবণ ১৪৩১
প্রকাশিত: মে ২৬, ২০২৩, ১০:৪০ পিএম
সর্বশেষ আপডেট : মে ২৬, ২০২৩, ১০:৪০ পিএম

‘নির্বাচনে গণতন্ত্র জয়লাভ করেছে’

‘নির্বাচনে গণতন্ত্র জয়লাভ করেছে’
ছবি ● সংগৃহীত

গাজীপুর সিটি করপোরেশন নির্বাচনে আওয়ামী লীগের প্রার্থী আজমত উল্লা খানকে হারিয়ে মেয়র নির্বাচিত হয়েছেন স্বতন্ত্র প্রার্থী জায়েদা খাতুন। এই ফল মেনে নিয়ে বিজয়ীকে অভিনন্দন জানিয়েছে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ।

শুক্রবার বঙ্গবন্ধু অ্যাভিনিউয়ে আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে এক সমাবেশে দলের পক্ষ থেকে জায়েদা খাতুনকে অভিনন্দন জানিয়ে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেন, নির্বাচনে গণতন্ত্র জয়লাভ করেছে। 

তিনি বলেন, গাজীপুর সিটি নির্বাচনে আওয়ামী লীগের মেয়র প্রার্থী বিজয়ী হলে দেশের মানুষ যতটা খুশি হতেন, তার চেয়ে বেশি খুশি হয়েছেন ফ্রি অ্যান্ড ফেয়ার নির্বাচন হওয়ায়। এ জন্য নির্বাচন কমিশনকে ধন্যবাদ জানাই, জনগণকে ধন্যবাদ জানাই এবং বিজয়ী প্রার্থীকে অভিনন্দন জানাই।

ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘এই নির্বাচনে একটা বিষয় পরিষ্কার হয়েছে, সেটা হলো বিএনপি এতদিন মিথ্যাচার করেছে— এই সরকারের অধীনে অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচন সম্ভব নয়, সেটি মিথ্যা প্রমাণিত হয়েছে। শেখ হাসিনা ওয়াদা পূরণ করেছেন। আওয়ামী লীগ প্রার্থী হারবে কি না তার চেয়ে বড় কথা হলো গণতন্ত্র জয়লাভ করেছে।’

গাজীপুর, নারায়ণগঞ্জ, রংপুরের নির্বাচন সুষ্ঠু হয়েছে উল্লেখ করে তিনি আরও বলেন, ‘আগামী চারটি সিটি নির্বাচন ও এগুলোর মতো জাতীয় নির্বাচনও সুষ্ঠু হবে। এতে প্রমাণিত হয় যে, বর্তমান সরকারের অধীনে অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচন করা সম্ভব।’

সেতুমন্ত্রী বলেন, শেখ হাসিনাকে হত্যার হুমকি দিয়ে নিজেদের ভোট কমাচ্ছে বিএনপি।

গাজীপুরে নৌকার প্রার্থীর পক্ষে নির্বাচনী কাজ করতে আওয়ামী লীগের ২৮ সদস্যদের কেন্দ্রীয় দলের সমন্বয়কের দায়িত্ব পালন করেন মির্জা আজম। সমাবেশে তিনি বলেন, ‘নির্বাচন কমিশনের অধীনে সুষ্ঠু, সুন্দর ও নিরপেক্ষ নির্বাচন হয়েছে। তাতে আওয়ামী লীগের মেয়র প্রার্থী পরাজিত হয়েছেন। আমরা সেই পরাজয় মেনে নিয়ে বিজয়ী প্রার্থীকে অভিনন্দন জানিয়েছি।’

জাগরণ/রাজনীতি/এসএসকে