• ঢাকা
  • বৃহস্পতিবার, ২৪ জুন, ২০২১, ১০ আষাঢ় ১৪২৮
প্রকাশিত: জুন ৬, ২০২১, ০৪:২৫ পিএম
সর্বশেষ আপডেট : জুন ৬, ২০২১, ০৪:৩৩ পিএম

ভালো কাজের জন্য কারও শয্যাসঙ্গিনী হবেন না পূজা

ভালো কাজের জন্য কারও শয্যাসঙ্গিনী হবেন না পূজা

গিভ অ্যান্ড টেক কিংবা কাস্টিং কাউচ—যা বলি না কেনো, এর অর্থ দাঁড়ায় কাজের বিনিময়ে কিছু দেওয়া। বিনোদন দুনিয়ায় বিনিময় বলতে ‘যৌন সম্পর্ক’ স্থাপনকে বোঝায়। বেশিরভাগ ক্ষেত্রে নারী অভিনয়শিল্পীরাই কাস্টিং কাউচের মুখে পড়েন। কেউ সুযোগের জন্য আপত্তি করেন না। আবার কেউ এক চুলও ছাড় দেন না।

সম্প্রতি আনন্দবাজার পত্রিকার এক সাক্ষাৎকারে অভনেত্রী পূজা বন্দোপাধ্যায় জানালেন, ভালো কাজ পাওয়ার জন্য কারও শয্যাসঙ্গিনী হতে পারবেন না। গণমাধ্যমটির প্রতিবেদক তাকে প্রশ্ন করেছিলেন, কাজের জন্য এত অডিশন দিয়েছেন। কাস্টিং কাউচের অভিজ্ঞতা হয়েছে?

When is Paap 2 coming ft. Puja|Announcement|Coming Soon|Paap: Antim Pawrbo( পাপ: অন্তিম পর্ব)|hoichoi - YouTube

উত্তরে পূজা বলেন, “হ্যাঁ। হয়েছে। একাধিকবার। তবে টলিউডে নয়। বলিউড ও দক্ষিণী ইন্ডাস্ট্রিতে। কিন্তু আমি কখনোই কোনো অন্যায় আবদারকে প্রশ্রয় দেইনি। ভালো কাজ করার জন্য কারও শয্যাসঙ্গিনী হতে পারব না। এমন অনেককেই চিনি যারা কাজ পাওয়ার আশায় ভুল পথে হেঁটেছেন। কিন্তু শেষমেশ কাজ না পেয়ে ‘মিটু’ অভিযোগ এনেছেন। মেয়েরা মুখ বুজে অন্যায় মেনে নেয় বলেই এই ধরনের শোষণ করার সাহস পায় কিছু মানুষ। প্রতিবাদ করতে শুরু করলেই ছবিটা কিছুটা হলেও বদলাবে।”

তবে এই অভিনেত্রী জানালেন, চরিত্রের প্রয়োজনে খোলামেলা দৃশ্যে অভিনয়ে আপত্তি নেই তার। অভিনেত্রী হিসেবে খোলামেলা দৃশ্যে আপনি কতটা স্বচ্ছন্দ—জানতে চাইলে পূজা বলেন, “আমি নিজে খোলামেলা দৃশ্যে অভিনয় করতে খুব একটা স্বচ্ছন্দবোধ করি না। কিন্তু আমি মনে করি, চিত্রনাট্যের প্রয়োজনে খোলামেলা দৃশ্যে অভিনয়ে আপত্তি থাকা উচিত নয়। কিন্তু জোর করে যদি সাহসী দৃশ্য দেখানোর চেষ্টা করা হয়, সেটা আমার চোখে ভুল। আমি একসময় পার্বতীর চরিত্রে অভিনয় করেছি। মানুষজন রাস্তাঘাটে আমাকে দেখে প্রণাম করেছে। আবার বাংলা ছবিতে আইটেম গানেও আমি নেচেছি। অভিনেত্রী হিসেবে নিজেকে নতুন করে প্রমাণ করতে আমার খোলামেলা দৃশ্যের খুব একটা প্রয়োজন আছে বলে আর মনে হয় না।”

টলিউডে বাণিজ্যিক ঘরানার বেশ কয়েকটি ছবিতে অভিনয় করেছেন পূজা। তবে তিনি চেয়েছিলেন ভিন্ন ধারার সিনেমায়ও অভিনয় করতে। সেজন্য অডিশনও দিয়েছিলেন। কিন্তু সবাই তাকে বাণিজ্যিক সিনেমা করতেই বেশি উৎসাহ দিয়েছেন। কিন্তু তিনি যে ভিন্ন ঘরনারা কাজ পারেন সেটা বোঝাতে ‘পাপ’ ওয়েব সিরিজে কাজ অভিনয় করেছেন। সম্প্রতি সিরিজটির অন্তিম পর্ব প্রকাশ পেয়েছে ওটিটি প্ল্যাটফর্ম হইচইয়ে।

এ প্রসঙ্গে পূজা বলেন, “আমি আশা করছি ‘পাপ’ দেখার পর অন্তত আমাকে নিয়ে এই ভুল ধারণাটা ভাঙবে। তখন প্রযোজক, পরিচালকরা আমার সঙ্গে অন্য ধরনের ছবিতেও কাজ করতে চাইবেন।”

May be an image of 1 person

পূজা জানালেন, তিনি সৃজিত মুখার্জী, কৌশিক গঙ্গোপাধ্যায় ও ইন্দ্রদীপ দাশগুপ্তর ছবিতে অভিনয়ের জন্য মুখিয়ে আছেন। তার বিশ্বাস, একদিন ঠিকই ডাক পড়বে তাদের ছবিতে। তখন দেখাবেন অভিনয়ের কারিশমা।