• ঢাকা
  • মঙ্গলবার, ০৫ জুলাই, ২০২২, ২১ আষাঢ় ১৪২৯
প্রকাশিত: জুন ১৪, ২০২২, ০৭:৫৩ পিএম
সর্বশেষ আপডেট : জুন ১৪, ২০২২, ০১:৫৩ পিএম

হোটেলের বিছানায় মীরের ‘অশ্লীল’ নাচ-গান

হোটেলের বিছানায় মীরের ‘অশ্লীল’ নাচ-গান

শুটিংটা যেন বড্ড একঘেয়ে। আর তা কাটাতে হোটেল রুমের বিছানায় উঠে ‌‘আজ রাতে’ গানের সঙ্গে ব্যতিক্রমী এক নাচ নেচেছেন কলকাতার জনপ্রিয় উপস্থাপক-অভিনেতা-ভ্লগার মীর আফসার আলি।
 
তবে তার এই গাওয়া গান আর নাচের অঙ্গভঙ্গিকে অনেকেই বলছেন অশ্লীল! কথার তোড়ে ভাসিয়ে দিচ্ছেন এই ভার্সেটাইল উপস্থাপককে। কেউ আবার করছেন মজাও। মঙ্গলবার (১৪ জুন) দুপুরে সেই নাচ-গানের ভিডিওটি মীর নিজেই প্রকাশ করেন ভেরিফায়েড ফেসবুক পেজে। 

কী আছে সেই নাচে? 

দেখা যায়, পরনের প্যান্টটি না পরেই খাটের ওপরে দাঁড়িয়ে কীভাবে ‘আইটেম ডান্স’ করা যায় তাই দেখাচ্ছিলেন মীর। ওপরে শুধু পরা ছিল পাঞ্জাবি। আর সেটিও নায়িকাদের মতো ‘ব্যবহার’ করেছেন এই শিল্পী। সব মিলিয়ে যৌন উত্তেজক নাচ বলেও তকমা দিয়েছেন অনেকেই। 

ভারতীয় সংবাদমাধ্যমের বরাতে জানা যায়, শহরের এক পাঁচতারা হোটেলে শুটিং ছিল মীরের। টানা শুটিং করতে করতে একঘেয়ে লাগছিল তার। তখনই এই কাণ্ডটি ঘটিয়েছেন। শুধু নীল রঙের পাঞ্জাবি ছিল মীরের পরনে। সেই অবস্থাতেই সাদা ধবধবে বিছানার ওপর উঠে দাঁড়িয়ে পড়েন তারকা। তারপর গান করতে করতে নাচতে থাকেন।

লাস্যময়ী এই নাচ প্রিয় নায়িকাদের দেখেই শিখেছেন বলে দাবি মীরের। জানান, কেউ তার নাচকে খারাপ বললে বড্ড দুঃখ পাবেন তিনি। 

ভিডিও পোস্ট করে লিখেছেন, ‌‘তুমি যখন বোরড, এটা করতে পার। মাঝেমাঝে আমাদেরও একটু মজা করতে ইচ্ছে করে।’ 

মজা করে, কেউ তাকে ‘সেক্সি’ আখ্যা দিয়েছেন, কেউ আবার তাকে বিতর্কিত রোদ্দুর রায়ের সঙ্গে তুলনা করেছেন! 

অনেকে আবার সরাসরি আক্রমণ করে বসেছে তাকে। একজন লিখেছেন, ‘ছি! আপনার দীর্ঘদিনের একটা সংগ্রামী নেইম ফ্রেম। পুরোটা আজ এই বিছানার ওপর দিয়ে গেলো। মঞ্চে দাঁড়িয়ে লম্বা লম্বা নীতি বাক্য জাস্ট ফানুস হয়ে গেলো।’

আরেক জনের ভাষ্য, ‘রোদ্দুর রায় জেলে একা একা কষ্ট পাচ্ছে। এইবার মীর দা কেও সেখানে পাঠিয়ে দেয়া হোক। দুজনে জমে যাবে।’

ভারতের ডিডি বাংলা চ্যানেলের নিউজ প্রোগ্রাম ‘খাস খবর’-এর মাধ্যমে প্রথম টেলিভিশন পর্দায় হাজির হন মীর। তারপর ‘হাউ মাউ খাউ’, ‘বেটা বেটির ব্যাটল’ শিরোনামে অনুষ্ঠান উপস্থাপনা করেন। কিন্তু উপস্থাপক হিসেবে জনপ্রিয়তা লাভ করেন জি-বাংলার ‘মীরাক্কেল’ অনুষ্ঠানের মাধ্যমে। বিশেষ করে মীরাক্কেলের সিজন ৬ বাংলাদেশেও ব্যাপক সাড়া ফেলে। মীর তুমুল জনপ্রিয়তা পান দুই বাংলায়। সিনেমায় অভিনয়ের পাশাপাশি তিনি সংগীত চর্চাও করেন। ‘ব্যান্ডেজ’ শিরোনামে মীরের একটি গানের দলও রয়েছে। বর্তমানে ফুড ভ্লগিং চালিয়ে যাচ্ছেন। এই কাজে সম্প্রতি বাংলাদেশও ঘুরে গেছেন তিনি।