• ঢাকা
  • রবিবার, ২৫ ফেব্রুয়ারি, ২০২৪, ১৩ ফাল্গুন ১৪৩০
প্রকাশিত: মার্চ ১৬, ২০২৩, ১২:৪৮ এএম
সর্বশেষ আপডেট : মার্চ ১৬, ২০২৩, ১২:৪৮ এএম

শ্রাবন্তী থেকে মুখ ফিরিয়ে নিলো আদালত

শ্রাবন্তী থেকে মুখ ফিরিয়ে নিলো আদালত
শ্রাবন্তী চট্টোপাধ্যায়

টলিউডের জনপ্রিয় অভিনেত্রীদের একজন শ্রাবন্তী চট্টোপাধ্যায়। অভিনয় দক্ষতা আর রূপের টানে তিনি অন্যদের থেকে যেমন এগিয়ে, তেমনি ব্যক্তিজীবন নিয়েও থাকেন লাইমলাইটে। শ্রাবন্তী অবশ্য কোন কিছু রাখঢাক করতে পছন্দ করেন না। সরাসরি বলতেই পছন্দ করেন।

এসব কারণে তিনবার বিবাহবিচ্ছেদ হবার পর শ্রাবন্তীর জীবনের প্রতিটি মুহূর্তই যেন হয়ে ওঠে পেজ থ্রি-র হট কেক। এই মুহূর্তে সাবেক স্বামী রোশনকে নিয়ে আবারও আলোচনায় তিনি। তার সঙ্গে বিচ্ছেদ না মিলনের আর্জি জানিয়ে আদালতে যান রোশান।

কিন্তু আদালতে গিয়ে শ্রাবন্তী জানিয়ে দেন, তিনি বিচ্ছেদই চান। সেই সঙ্গে মাসে সাত লাখ রুপি খোরপোষও চেয়েছেন তিনি। সেই পুরনো মামলায় নতুন করে মুখ পুড়ল শ্রাবন্তীর। সাবেক স্বামী রোশনের বিরুদ্ধে করা খোরপোষ মামলার অন্তর্বতী স্থগিতাদেশ দিয়েছে আদালত।

রোশনের সঙ্গে এক ছাদের তলায় না থাকলেও আইনি মতে এখনও শ্রাবন্তী চট্টোপাধ্যায়ই তার স্ত্রী। ডিভোর্সের মামলা এখনও আদালতে বিচারাধীন। ২০২১ সালেই সেই খবর প্রকাশ্যে আসে। এবার বিবাহবিচ্ছেদ মামলায় এলো নতুন মোড়।

রোশনের বিরুদ্ধে ক্রিমিনাল প্রসিডিওর কোডের ১২৫ নম্বর ধারায় খোরপোষের মামলা করেন ভয় পেয়ো না খ্যাত অভিনেত্রী শ্রাবন্তী। তবে, আদালত আপাতত সেই মামলায় অন্তবর্তী স্থগিতাদেশ জারি করল। মঙ্গলবার আদালতের তরফে এমনটাই জানান হলো।

এতে করে গোদের ওপর বিষফোঁড়া এখন শ্রাবন্তীর সাবেক স্বামী। মিথ্যা সাক্ষ্য দেয়ার অভিযোগে ভারতীয় দণ্ডবিধির ৩৪০ ধারায় শ্রাবন্তীর বিরুদ্ধে প্রতারণার মামলা করেছিলেন রোশন সিং। সেই মামলা জারি রেখেছে আদালত। বলেছে বিচার চলবে।

প্রথম সারির এক সংবাদমাধ্যমের মুখোমুখি হয়ে রোশনের আইনজীবী সেই কথা জানিয়েছেনও। তিনি জানান, প্রতারণা মামলা যতদিন পর্যন্ত চলবে ততদিন খোরপোষ মামলা স্থগিত থাকবে। তবে অভিনেত্রী শ্রাবন্তী চট্টোপাধ্যায় এখনও পর্যন্ত এই বিষয়ে কোনও প্রতিক্রিয়া দেননি।

তৃতীয়বার বিয়ে ভাঙার পর শ্রাবন্তীর সঙ্গে নাম জড়িয়েছে ব্যবসায়ী অভিরূপ নাগ চৌধুরীর। তবে এই প্রসঙ্গে কখনও মুখ খোলেননি অভিনেত্রী। এই মুহূর্তে জিম ট্রেনারের সঙ্গে শ্রাবন্তীর প্রেমের গুঞ্জনে সরগরম স্টুডিও পাড়া।

রোশনের সঙ্গে সম্পর্কের আইনি জট কবে কাটে সেটা তো সময়ই বলবে। শ্রাবন্তীর বিরুদ্ধে বেশ কয়েকবার ক্ষোভ উগরে দিয়েছেন তিনি। আক্ষেপের সুরে জানিয়েছিলেন, শ্রাবন্তী নাকি তাঁর সঙ্গে শারীরিক মিলনে সুখী ছিলেন না। বন্ধুবান্ধব মহলে এমনটাই রটিয়েছেন।

জাগরণ/বিনোদন/টালিউড/এমএ