• ঢাকা
  • মঙ্গলবার, ২৭ ফেব্রুয়ারি, ২০২৪, ১৪ ফাল্গুন ১৪৩০
প্রকাশিত: ডিসেম্বর ১, ২০২৩, ১১:৩৯ পিএম
সর্বশেষ আপডেট : ডিসেম্বর ১, ২০২৩, ১১:৩৯ পিএম

অবশেষে মুখ খুললেন অনুপম

অবশেষে মুখ খুললেন অনুপম

সাতপাকে বাঁধা পড়েছেন টালিগঞ্জের জনপ্রিয় অভিনেতা পরমব্রত চট্টোপাধ্যায় ও সঙ্গীতশিল্পী পিয়া চক্রবর্তী। তাদের বিয়ের পর থেকেই সোশ্যাল মিডিয়ায় তুমুল আলোচনায় মেতেছেন নেটিজেনরা।

পিয়া ছিলেন সংগীতশিল্পী অনুপম রায়ের প্রাক্তন স্ত্রী। বন্ধু পরমব্রতের সঙ্গে প্রাক্তনের বিয়ে নিয়ে গত কয়েকদিন মুখে কুলুপ এঁটে ছিলেন অনুপম। তবে আর চুপ থাকতে পারলেন না তিনি, মুখ খুলেই ফেললেন।  

সংবাদমাধ্যমকে অনুপম বলেন, হ্যাঁ, শুনেছি বিয়ে হচ্ছে। তবে এই বিষয়ে কিছু বলতে চাই না। তিনি বলেন, বিয়ের বিষয়ে পিয়া বা পরমব্রত কেউই তাকে কিছু জানাননি।

২০১৫ সালে বিয়ে পিয়া চক্রবর্তীকে বিয়ে করেছিলেন অনুপম রায়। ছয় বছর টিকে ছিলো তাদের সংসার। ২০২১-এর ১১ই নভেম্বর যৌথ বিবৃতি দিয়ে বিয়ে ভেঙে যাওয়ার কথা জানান অনুপম-পিয়া।

আর এই জুটির বিয়ে ভাঙার পর পিয়ার সাথে পিয়ার সঙ্গে পরমব্রতর সম্পর্ককে দায়ী করে গুঞ্জন ছড়িয়েছিলো। তখন থেকেই বলা হচ্ছিল, বন্ধুর পত্নীর সঙ্গে সম্পর্কে জড়িয়েছিলেন  পরমব্রত।

দুই বছর পর পরম-পিয়া বিয়ের পিঁড়িতে বসায় সেই গুঞ্জনের ডালপালার বিস্তার ঘটেছে ব্যাপকভাবে।

নেটিজেনদের অনেকেই বলাবলি করছেন যে, পরম-পিয়ারি বিয়ের খবর সম্প্রতি প্রকাশ্যে এলেও তারা আসলে আগে থেকেই গোপনে সম্পর্ক চালিয়ে যাচ্ছিলেন।

টালিউডের জনপ্রিয় অভিনেতা ৪৩ বছর বয়সী পরমব্রত অবশ্য এসব নিয়ে কোনো কথাই বলছেন না।

আর সংগীতশিল্পী ও সমাজকর্মী পিয়া চক্রবর্তী বিয়ে পরদিন হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন। অস্ত্রোপচার করে তার কিডনির পাথর অপসারণ করা হয়েছে। 

জাগরণ/বিদেশিবিনোদন/পশ্চিমবঙ্গেরসিনেমা/এসএসকে