• ঢাকা
  • শুক্রবার, ০৩ ফেব্রুয়ারি, ২০২৩, ২০ মাঘ ১৪২৯
প্রকাশিত: জানুয়ারি ১৮, ২০২৩, ১১:৫৬ পিএম
সর্বশেষ আপডেট : জানুয়ারি ১৮, ২০২৩, ০৫:৫৬ পিএম

বাড়ল গ্যাসের দাম

বাড়ল গ্যাসের দাম
ছবি ● প্রতীকী

বিদ্যুতের পর এবার এল গ্যাসের দাম বাড়ানোর ঘোষণা। একই মাসে দুটোই হয়েছে সরকারের নির্বাহী আদেশে। এবার শিল্প, বিদ্যুৎ ও বাণিজ্যিক খাতে গ্যাসের দাম বাড়ানো হয়েছে। তবে পরিবহন খাতে ব্যবহৃত সিএনজি ও বাসায় ব্যবহৃত গ্যাসের দাম বাড়ায়নি সরকার। নতুন দাম ফেব্রুয়ারি থেকে কার্যকর হবে।

বুধবার (১৮ জানুয়ারি) গ্যাসের দাম বাড়িয়ে প্রজ্ঞাপন জারি করেছে জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ বিভাগ। এতে দেখা যায়, বৃহৎ শিল্পে প্রতি ইউনিট গ্যাসের দাম ১১ টাকা ৯৮ পয়সা থেকে বাড়িয়ে ৩০ টাকা করা হয়েছে। অর্থাৎ, দাম বেড়েছে প্রায় তিন গুণ।

শিল্পে উৎপাদিত নিজস্ব বিদ্যুৎ কেন্দ্রের (ক্যাপটিভ) জন্য ইউনিট প্রতি গ্যাসের দাম ১৬ টাকা থেকে বাড়িয়ে ৩০ টাকা করা হয়েছে।

সারকারখানায় ব্যবহৃত গ্যাসের দাম ১৬ টাকা (ইউনিট প্রতি) অপরিবর্তিত থাকছে।

মাঝারি শিল্পে ব্যবহৃত গ্যাসের দাম ১১ টাকা ৭৮ পয়সা থেকে বাড়িয়ে ৩০ টাকা করা হয়েছে।

ক্ষুদ্র ও কুটিরশিল্পে ব্যবহৃত গ্যাসের দাম ১০ টাকা ৭৮ পয়সা থেকে বাড়িয়ে ৩০ টাকা করা হয়েছে।

চা–বাগানের ক্ষেত্রে দাম ১১ টাকা ৯৩ পয়সা অপরিবর্তিত থাকছে।

হোটেল ও রেস্তোরাঁ খাতে ব্যবহৃত বাণিজ্যিক শ্রেণির গ্রাহকেরা ফেব্রুয়ারি থেকে প্রতি ইউনিটে দাম দেবেন ৩০ টাকা ৫০ পয়সা। আগে তাঁরা দিচ্ছিলেন ২৬ টাকা ৬৪ পয়সা।

গ্যাস–সংকট নয়ে গত কয়েক মাস ব্যবসায়ীদের সঙ্গে দফায় দফায় বৈঠক করে জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ বিভাগ। উৎপাদনের খরচ বাড়লেও শিল্প বাঁচাতে প্রতি ইউনিট গ্যাসের দাম ২৫ টাকা পর্যন্ত দিতে রাজি হন ব্যবসায়ীরা। তবে তারা নিরবচ্ছিন্ন সরবরাহের নিশ্চয়তা চান। তাঁরা বলেন, দাম বাড়িয়ে গ্যাস না দিলে শিল্প খাত ধ্বংস হয়ে যাবে। আর বিশ্ববাজারে দাম কমলে দেশেও সমন্বয় করতে হবে।

সরকারি-বেসরকারি বিদ্যুৎকেন্দ্রের জন্য প্রতি ইউনিট গ্যাসের বর্তমান দাম ৫ টাকা ২ পয়সা। নতুন করে এই দাম নির্ধারণ করা হয়েছে ১৪ টাকা। এতে বিদ্যুৎ উৎপাদনের খরচ বেড়ে যাবে।

বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ডের (পিডিবি) দুই কর্মকর্তা বলেন, গত ডিসেম্বর থেকে পাইকারি দাম বাড়ানোর পরও লোকসান করছে সংস্থাটি। সরকার এ বছর ১৭ হাজার কোটি টাকা ভর্তুকি বরাদ্দ রেখেছে। বর্তমান দামে কয়লা, জ্বালানি তেলসহ সব জ্বালানি পেলেও পিডিবির ঘাটতি হতে পারে ৪০ হাজার কোটি টাকা। এখন গ্যাসের দাম বাড়ায় তা আরও বেড়ে যাবে। তাই আবার বাড়তে পারে বিদ্যুতের দাম। দেশের বিদ্যুৎ উৎপাদনের ৫০ শতাংশের বেশি আসে গ্যাসচালিত বিদ্যুৎকেন্দ্র থেকে।

জাগরণ/জ্বালানি/এসএসকে