• ঢাকা
  • শুক্রবার, ০৩ ফেব্রুয়ারি, ২০২৩, ২০ মাঘ ১৪২৯
প্রকাশিত: জানুয়ারি ২৩, ২০২৩, ১১:৩৪ পিএম
সর্বশেষ আপডেট : জানুয়ারি ২৩, ২০২৩, ০৫:৩৪ পিএম

রাষ্ট্রপতি নির্বাচন

স্পিকারের সঙ্গে সিইসির সাক্ষাৎ মঙ্গলবার

স্পিকারের সঙ্গে সিইসির সাক্ষাৎ মঙ্গলবার

দেশের ২২তম রাষ্ট্রপতি নির্বাচনের কাউন্টডাউন শুরু হয়ে গেছে। আইন অনুযায়ী ২৩ জানুয়ারি থেকে আগামী ২৩ ফেব্রুয়ারির মধ্যে রাষ্ট্রপতি নির্বাচন সম্পন্ন করবে নির্বাচন কমিশন (ইসি)।

মঙ্গলবার (২৪ জানুয়ারি) রাষ্ট্রপতি নির্বাচনের লক্ষ্যে জাতীয় সংসদের স্পিকার শিরীন শারমিন চৌধুরীর সঙ্গে প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কাজী হাবিবুল আউয়ালের বৈঠক রয়েছে। 

গণমাধ্যমকে ইসি সচিব জাহাঙ্গীর আলম বলেন, ‘রাষ্ট্রপতি নির্বাচনের তফসিল ঘোষণাকে সামনে রেখে মঙ্গলবার (২৪ জানুয়ারি) দুপুর দুইটায় স্পিকার ও সিইসির মধ্যে সাক্ষাৎ অনুষ্ঠিত হবে। রাষ্ট্রপতি নির্বাচনের বিষয়ে আমরা সংসদ সচিবালয় থেকে সময় পেয়েছি। সাক্ষাতে বিস্তারিত আলোচনার পর পরবর্তী সিদ্ধান্ত জানিয়ে দেব।’

দেশের ২২তম রাষ্ট্রপতি নির্বাচনের তফসিল দ্রুত সময়ের মধ্যে ঘোষণা করতে যাচ্ছে ইসি। বিশেষ করে ১ ফেব্রুয়ারি ছয়টি সংসদীয় আসনের উপনির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। উপনির্বাচনে নির্বাচিত সংসদ সদস্যরা রাষ্ট্রপতি নির্বাচনে ভোটার। ফলে তাদের ভোটার হওয়ার আগে নির্বাচিত সংসদ সদস্যদের গেজেট প্রকাশ করা হবে। গেজেট প্রকাশের পর তারা শপথ নেবেন। তবে ১ ফেব্রুয়ারির আগে নাকি পরে রাষ্ট্রপতি নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করা হবে- সে বিষয়ে এখনও চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত হয়নি। 

সোমবার (২৩ জানুয়ারি) নির্বাচন কমিশনার আনিছুর রহমান বলেন, ‘রাষ্ট্রপতির নির্বাচনের তফসিল যথাসময়ে হবে। এরই মধ্যে রাষ্ট্রপতি নির্বাচনের ‘কাউন্টডাউন’ (ক্ষণগণনা) শুরু হয়েছে। আইন অনুযায়ী আগামী ২৩ ফেব্রুয়ারি মধ্যে আমাদের রাষ্ট্রপতি নির্বাচন করতে হবে।’

তিনি বলেন, ‘আগামী ১ ফেব্রুয়ারি ছয়টি সংসদীয় আসনের উপনির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। এটা খুব বেশি দূরে না। ভোটার তালিকা করতে আমরা ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত অপেক্ষা করব। এরমধ্যে আমাদের আরও কিছু কাজ বাকি রয়েছে। গেজেট নোটিফিকেশন করা হবে। তখন ভোটার তালিকা করতে আর কোনও সমস্যা নেই।’

এই নির্বাচন কমিশনার বলেন, ‘রাষ্ট্রপতি নির্বাচনে ভোটার তালিকা চূড়ান্ত করে তফসিল ঘোষণা করা হবে। তার আগে স্পিকারের সঙ্গে সিইসি বৈঠক করবেন। বৈঠকের পর সবকিছু চূড়ান্ত করা হবে। এসব প্রক্রিয়া শেষ করে রাষ্ট্রপতি নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করা হবে।’

সংবিধানের ১২৩ (১) অনুচ্ছেদে বলা হয়, ‘‘রাষ্ট্রপতি পদের মেয়াদ অবসানের কারণে এ পদ শূন্য হলে মেয়াদ সমাপ্তির তারিখের আগের ৯০ থেকে ৬০ দিনের মধ্যে শূন্যপদ পূরণের জন্য নির্বাচন হবে।’’

সর্বশেষ রাষ্ট্রপতি নির্বাচনের তফসিল হয় ২০১৮ সালের ২৫ জানুয়ারি।

তফসিল অনুযায়ী, ২০১৮ সালের ১৮ ফেব্রুয়ারি ভোটের তারিখ নির্ধারিত থাকলেও প্রার্থী একজন থাকায় বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় ৬ ফেব্রুয়ারি দ্বিতীয় দফায় রাষ্ট্রপতি নির্বাচিত হন মো. আবদুল হামিদ। আগামী ২৩ এপ্রিল বর্তমান রাষ্ট্রপতির মেয়াদ শেষ হবে।

জাগরণ/জাতীয়/এসএসকে