• ঢাকা
  • বৃহস্পতিবার, ০৬ অক্টোবর, ২০২২, ২১ আশ্বিন ১৪২৯
প্রকাশিত: মার্চ ৬, ২০২২, ০৪:০৫ পিএম
সর্বশেষ আপডেট : মার্চ ৬, ২০২২, ১০:০৫ এএম

‘সুইসাইড নোটে’ যা লিখেছিলেন বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থী

‘সুইসাইড নোটে’ যা লিখেছিলেন বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থী

রংপুরে শহিদুল ইসলাম শহিদ নামে বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তিচ্ছু এক শিক্ষার্থীর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। উদ্ধার করা হয়েছে একটি সুইসাইড নোটও। তিনি আত্মহত্যা করেছেন বলে ধারণা পুলিশের।

শনিবার দুপুরে রংপুর মহানগরীর দর্শনা এলাকার কলেজ রোডের নীলাঞ্জনা ছাত্রাবাসের একটি কক্ষ থেকে তার লাশ উদ্ধার করা হয়।

নিহত শহিদ রংপুরের পীরগঞ্জ উপজেলার চতরা হলদিবাড়ি গ্রামের শফিকুল ইসলামের ছেলে। বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তির জন্য রংপুরে এসে কোচিং করছিলেন তিনি।

সুইসাইড নোটে শহিদুল লিখেছেন- ‘আমার মৃত্যুর জন্য কেউ দায়ী নয়। এ মৃত্যুতে যেন কোনো মামলা না হয়’।

ছাত্রাবাসের মালিক শামীম বলেন, শুক্রবার রাতে রুমে একা ঘুমিয়ে ছিলেন শহিদুল। সকালে উঠতে দেরি হওয়ায় সন্দেহ হলে অনেক ডাকাডাকি করা হয়। একপর্যায়ে বাধ্য হয়ে দরজা ভেঙে দেখি শহিদ ফ্যানের সঙ্গে ঝুলছেন। দ্রুত থানায় খবর দিলে লাশ উদ্ধার করে পুলিশ।

তাজহাট থানার এশাই ইজার আলী বলেন, শহিদুল এ বছর উচ্চমাধ্যমিকে উত্তীর্ণ হয়ে বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তির প্রস্তুতি নিচ্ছিলেন। এক মাস আগে বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তির কোচিং করতে রংপুরে আসেন। শনিবার সকাল থেকে তার ঘরের দরজা বন্ধ দেখে মেস থেকে আমাদের খবর দেওয়া হয়। আমরা দরজা ভেঙে দেখি সিলিংফ্যানের সঙ্গে তার লাশ ঝুলছে।

তিনি আরো বলেন, লাশের পাশ থেকে একটি সুইসাইড নোট পাওয়া গেছে। এতে তার মৃত্যুর জন্য কেউ দায়ী নয় উল্লেখ করে কিছু কথা লেখা রয়েছে। তার মৃত্যুতে যেন কোনো মামলা না হয়, সেটিও নোটে বলা হয়েছে। তবে প্রাথমিকভাবে এ আত্মহত্যার পেছনে প্রেমঘটিত ব্যাপারকে ধারণা করা হচ্ছে। তদন্ত শেষে বিস্তারিত জানা যাবে।

তাজহাট থানার ওসি আখতারুজ্জামান প্রধান বলেন, হতাশ হয়ে ছেলেটি মারা গেছেন বলে ধারণা করা হচ্ছে। লাশ থানায় নেয়া হয়েছে। পরিবারের সদস্যদের খবর দেওয়া হয়েছে। তারা আসার পর এ বিষয়ে পরবর্তী সিদ্ধান্ত নেয়া হবে।

ই্উএম