• ঢাকা
  • সোমবার, ২৬ সেপ্টেম্বর, ২০২২, ১১ আশ্বিন ১৪২৯
প্রকাশিত: মার্চ ১৯, ২০২২, ০১:০৯ পিএম
সর্বশেষ আপডেট : মার্চ ১৯, ২০২২, ০৭:০৯ এএম

মধুমতি নদীতে বাঁধ নির্মাণে অনিয়মের অভিযোগ

মধুমতি নদীতে বাঁধ নির্মাণে অনিয়মের অভিযোগ

নড়াইল লোহাগড়ার শিয়রবর এলাকায় মধুমতি নদী শাসন বাঁধ নির্মাণে ঠিকাদার ও পানি উন্নয়ন বোর্ডের গাফিলতি ও অনিয়মের প্রতিবাদে এলাকাবাসী মানববন্ধন করেছে। 

শনিবার (১৯ মার্চ) শিয়রবর বাজার এলাকায় নদীর পাড়ে এ মানববন্ধন হয়।

লোহাগড়া উপজেলার শালনগর ইউনিয়নের শিয়রবর বাজার এলাকায় মধুমতি নদীর তীরে ভাঙন রোধে চারশত মিটার স্থায়ী নদীর তীর প্রতিরক্ষা কাজের জন্য ৯ কোটি ২লক্ষ টাকা বরাদ্দ দেয় পানি উন্নয়ন বোর্ড। টেন্ডারের মাধ্যমে ওরিয়েন্ট ট্রেডিং এন্ড বিল্ডাস লিঃ এবং বি.জে জিও টেক্সাইল লিঃ জেবি ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান ২০২০ সালের ২১ সেপ্টেম্বর এর কার্য্যাদেশ পান এবং ২০২২ সালের ২৪ ফেব্রুয়ারি কাজ শেষ করার কথা। কিন্তু সরেজমিনে দেখা গেছে উক্ত ঠিকাদার নদীর ভাঙন রক্ষার জন্য প্রাথমিকভাবে কিছু বালু ভর্তি জিও ব্যাগ ফেলে রেখেছে এবং নদীর পাড়ে ব্লক তৈরী করে রেখেছে যা এখনও ভাঙন রক্ষার জন্য নদীর তীরে ফেলা হয়নি। কাজের মেয়াদ শেষ হলেও মাত্র ১০ শতাংশ কাজ করা হয়েছে ৯০ শতাশং কাজ বাকী রয়েছে। নিয়ম মাফিক দ্রুত কাজ করার দাবি জানিয়ে শনিবার ভাঙন কবলিত এলাকায় এলাকাবাসী মানববন্ধন করেন। 

এ সময় বক্তব্য রাখেন, নদী রক্ষা কমিটির আহবায়ক ও শিয়রবর আজিজ আশরাফ মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রতিষ্ঠাতা সৈয়দ আশরাফ আলী, বিশিষ্ট সমাজ সেবক আনিচুর রহমান ধলু, আবুল হাসান, মেহেদী হাসান, রোবায়েত মোল্যা, এখলাচুর রহমান প্রমুখ।

এ ব্যাপারে নড়াইল পানি উন্নয়ন বের্ডের নির্বাহী কর্মকর্তা উজ্বল সেন বলেন, কাজ দ্রুত শেষ করার জন্য ঠিকাদারকে বারবার তাগিদ দেয়া হচ্ছে। বাকী কাজ শেষ করার জন্য আরো এক বছর কাজের মেয়াদ বৃদ্ধি করা হয়েছে। 

ঠিকাদাদের সাইড ঠিকাদার জানান, দ্রব্যমূল্য বৃদ্ধির কারনে সময়মত কাজ শেষ করা সম্ভব হয়নি। তবে কর্তৃপক্ষের সাথে চুক্তির মেয়াদকাল বৃদ্ধি করা হয়েছে। এ সময়ের মধ্যে কাজ শেষ করা হবে।

জাগরণ/আরকে