• ঢাকা
  • বৃহস্পতিবার, ০৬ অক্টোবর, ২০২২, ২১ আশ্বিন ১৪২৯
প্রকাশিত: এপ্রিল ১৫, ২০২২, ১২:৫৭ পিএম
সর্বশেষ আপডেট : এপ্রিল ১৫, ২০২২, ০৬:৫৭ এএম

শেরপুরে বিধবা নারীকে  পিটিয়ে আহত

শেরপুরে বিধবা নারীকে  পিটিয়ে আহত

শেরপুরে কুপ্রস্তাবে রাজি না হওয়া আফরোজা বেগম (৩৫) নামে এক বিধবা নারীকে পিটিয়ে আহত করেছে প্রতিপক্ষরা। ঘটনাটি ঘটে ঝিনাইগাতী উপজেলার কাংশা ইউনিয়নের তাওয়াকোচা গ্রামে। আফরোজা বেগম ওই গ্রামের মৃত সোলায়মান হোসেনের স্ত্রী।

গত প্রায় ৭ বছব পূর্বে তার স্বামীর মৃত্যু হয়। ১ ছেলে ও ১ মেয়েকে নিয়ে আফরোজা তার দরিদ্র পিতা আব্দুল্লাহ'র বাড়িতেই  থাকেন। 

আফরোজার অভিযোগ একই গ্রামের প্রভাবশালী আব্দুল মান্নান আফরোজাকে বেশ কিছু দিন ধরে কুপ্রস্তাব ও রাস্তা -ঘাটে উত্ত্যক্ত করে আসছিল। ঘটনার দিন সোমবার (৪ এপ্রিল) দুপুরে আফরোজা বেগম আব্দুল মান্নানের  কুপ্রস্তাবের প্রতিবাদ করায় উভয়ের মধ্যে কথা কাটাকাটি হয়। একপর্যায়ে আব্দুল মান্নান ও তার লোকজন আফরোজার উপর আক্রমণ করে। তারা আফরোজাকে পিটিয়ে গুরুতর ভাবে আহত করে। এ বিষয়ে আফরোজা বাদী হয়ে ঝিনাইগাতী থানায় তিন জনের নাম করে একটি অভিযোগ দায়ের করেন।

কিন্তু থানা পুলিশ এ বিষয়ে কোন আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করেনি। অপরদিকে আফরোজা বেগম থানায় অভিযোগ করায় প্রভাবশালী আব্দুল মান্নান ক্ষিপ্ত হয়ে ঘটনার তিনদিন পর বৃহস্পতিবার (৭ এপ্রিল) সকালে আবারো আফরোজা বেগমকে মারপিট করে। এসময় আব্দুল মান্নানের লোকজনের হাত থেকে আফরোজা বেগমকে উদ্ধার করতে তার মা সখিনা বেগম এগিয়ে এলে তাকেও পিটিয়ে গুরুতরভাবে আহত করে। পরে স্থানীয়রা আহত মা মেয়েকে উদ্ধার করে ঝিনাইগাতী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে। 

বর্তমানে তারা চিকিৎসাধীন অবস্থায় রয়েছে কিন্তু এ পর্যন্ত থানা পুলিশ এ বিষয়ে আসামিদের বিরুদ্ধ আইনগত কোন ব্যবস্থা গ্রহণ করেননি। 

অপরদিকে অভিযোগ তুলে নেয়ার জন্য আফরোজা বেগম ও তার পরিবারের লোকজনকে নানাভাবে ভয়ভীতি ও গ্রামছাড়া করার হুমকি প্রদর্শন করে আসছে। এতে নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছেন ওই পরিবারটি। 

এ ব্যাপারে ঝিনাইগাতী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মনিরুল আলম ভুঁইয়ার সাথে কথা হলে এ  বিষয়ে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে জানান তিনি।

জাগরণ/আরকে