• ঢাকা
  • বৃহস্পতিবার, ০৬ অক্টোবর, ২০২২, ২১ আশ্বিন ১৪২৯
প্রকাশিত: এপ্রিল ২২, ২০২২, ১১:২২ এএম
সর্বশেষ আপডেট : এপ্রিল ২২, ২০২২, ০৫:২২ এএম

ফরিদপুরে ডাব খাইয়ে ২০ ভরি স্বর্ণ চুরি 

ফরিদপুরে ডাব খাইয়ে ২০ ভরি স্বর্ণ চুরি 

ফরিদপুরে ডাবের সাথে চেতনা নাশক দ্রব্য খাইয়ে অচেতন করে এক স্বর্ন ব্যবসায়ির কাছ থেকে ২০ ভরি স্বর্নালংকার চুরির ঘটনা ঘটেছে। এই ঘটনায় নারী প্রতারক চক্রের দুই সদস্যকে আটক করেছে পুলিশ।

বৃহস্পতিবার (২০ এপ্রিল) দুপুরে জেলা পুলিশের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সুমন রঞ্জন সরকার জানান, ক্রেতা বেশে দুই নারী ১৭ এপ্রিল শহরের নীলটুলী সড়কের তারকেশ্বর জুয়েলার্স নামের একটি স্বর্ণের দোকানে যান। তারপর দোকান মালিকের সাথে দাম দর নিয়ে কথা বলেন। প্রথম দিনে তারা দোকান মালিক শংকর দত্তের সাথে সখ্যতা গড়ে তোলেন এবং কোন স্বর্ণ ক্রয় না করে চলে আসেন। পরদিন ১৮ এপ্রিল ফের ওই দোকানে গিয়ে স্বর্ণালংকার দেখাতে বলেন। দোকানী স্বর্ণালংকার বের করলে ওই নারীদ্বয় সখ্যতার অজুহাতে একটি ডাব খেতে দেন, এবং নিজেরাও একটি  খান। সেই পানি খাওয়ার কিছু সময় পর দোকানদার জ্ঞান হারিয়ে ফেলেন। এসময় সুযোগ বুঝে ২০ ভরি স্বর্ণালংকার নিয়ে পালিয়ে যায় প্রতারক চক্র। এ ঘটনায় মালিক দুই দিন পর জ্ঞান ফিরে আসলে পুলিশের দ্বারস্ত হন। 

পুলিশের উপ পরিদর্শক সুজন বিশ্বাস ঘটনাটি তদন্ত করে ঝিনাইদহের কালিগঞ্জ এলাকা থেকে সোহানা নামের এক নারীকে আটক করেন এবং তার স্বিকারোক্তি মোতাবেক ফরিদপুরের ডিআইবি বটতলা এলাকা থেকে রিমি আক্তার নামের আরো এক নারীকে আটক করেন। এদের উভয়ের বাড়ি ফরিদপুর জেলার চরভদ্রাসন এলাকায়। 
এসময় তাদের নিকট থেকে খোয়া যাওয়া স্বর্ণালংকারের মধ্যে কয়েকটি চেইন উদ্ধার করে পুলিশ।

অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আরো জানান, স্বর্ণালংকার লুট করার পর ওই নারীরা উল্টো পুলিশের কাছে তাদের শ্লীলতাহানী করা হয়েছে বলে অভিযোগ দেয় সংশ্লিষ্ট দোকান মালিকের বিরুদ্ধে।

পুলিশ জানায়, এই চক্রে আরো এক নারী সদস্য রয়েছে, তারা তিনজন মিলে ধনাঢ্য ব্যাক্তি ও তাদের সন্তানদের টার্গেট করে নানা ভাবে ফাঁদে ফেলে টাকা হাতিয়ে নিয়ে আসছিল। আটককৃতদের বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

জাগরণ/আরকে