• ঢাকা
  • বৃহস্পতিবার, ০৬ অক্টোবর, ২০২২, ২১ আশ্বিন ১৪২৯
প্রকাশিত: এপ্রিল ২২, ২০২২, ০১:১৭ পিএম
সর্বশেষ আপডেট : এপ্রিল ২২, ২০২২, ০৭:১৭ এএম

ফরিদপুরে গাছতলায় ডায়রিয়া রোগী

ফরিদপুরে গাছতলায় ডায়রিয়া রোগী

ফরিদপুরের জেনারেল হাসপাতালের ডায়রিয়া ওয়ার্ডে গত ২৪ ঘন্টায় রোগী এসেছে ৮৭ জন। ১০ বেডের স্থলে শতাধিক রোগীর চাপে হাসপাতালের বাইরে ও গাছ তলায় রোগীরা ভর্তি হয়েছে। 

শুক্রবার (২২ এপ্রিল) সকাল পর্যন্ত হাসপাতালটিতে ১০৭ জন ডায়রিয়া রোগী ভর্তি আছে। ওয়ার্ডে জায়গা না হওয়ায় এদের মধ্যে অনেকেই খোলা আকাশের নিচে ভর্তি হয়ে চিকিৎসা নিচ্ছে। হঠাৎ করে ডায়রিয়া রোগীর সংখ্যা বেড়ে যাওয়ায় হাসপাতাল কর্তৃপক্ষকে হিমশিম খেতে হচ্ছে।

বমি ও পায়খানা নিয়ে হাসপাতালে এসে বেড না পাওয়ায় হাসপাতালের ফ্লোরে, বারান্দায় এমনকি গাছ তলায় ভর্তি হয়ে চিকিৎসা নিচ্ছেন তারা। রোগীরা খোলা আকাশের নিচে অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে নোংড়া জায়গায় কোন মতে চিকিৎসা নিতে দেখা গেছে। হাসপাতালের ভিতরে বাইরে নোংড়া পরিবেশ ও ডাক্তার সংকট, নার্সসহ পর্যাপ্ত চিকিৎসা সেবা না পাওয়ার অভিযোগ রোগী ও স্বজনদের।

আরিফ নামের এক রোগী জানান, ডায়রিয়া নিয়ে শুক্রবার ভোররাত ২টার দিকে হাসপাতালে এসে ছিট না পেয়ে কাঠাল গাছতলাতে পাটি পেতে চিকিৎসা নিতে হচ্ছে। 

জেলা একমাত্র ডায়রিয়া ওয়ার্ডের এই হাসপাতালটিতে মাত্র ১০ বেডের ব্যবস্থা রয়েছে। যার কারণে প্রায় রোগীদের অতিরিক্ত চাপে চিকিৎসা সেবায় সমস্যা বলে স্বীকার করেন হাসপাতালের স্টাফ ও কর্মকর্তারা। 

ডায়রিয়া ওয়ার্ডের সিনিয়ার স্টাফ নার্স গোলাপী বেগম বলেন, হঠাৎ করে ডায়রিয়া রোগী বেড়ে যাওয়া এমন অবস্থা হয়েছে। গাছতলার নিচে থাকা রোগীদের ওয়ার্ডের ভিতর নেওয়া ব্যবস্থা করছি। জায়গা সল্পতা থাকায় রোগীদের সমস্যা হচ্ছে।

ডায়রিয়া ওয়ার্ডের দায়িত্বরত ডাক্তার তানজিরুল ইসলাম বলেন, কয়েকদিনে রোগীর সংখ্যা বেড়ে যাওয়ায় চিকিৎসা দিতে হিমশিম খেতে হচ্ছে। রোজায় ভাজা পোড়া খেতে নিষেধ করেন এবং ডায়রিয়া দেখা দিলে প্রাথমিক অবস্থায় বাসায় থেকে চিকিৎসা নেওয়ার পরামর্শ দেন এই চিকিৎসক।

জাগরণ/আরকে