• ঢাকা
  • সোমবার, ২৬ সেপ্টেম্বর, ২০২২, ১১ আশ্বিন ১৪২৯
প্রকাশিত: এপ্রিল ২৩, ২০২২, ১০:০১ এএম
সর্বশেষ আপডেট : এপ্রিল ২৩, ২০২২, ০৪:০১ এএম

নোয়াখালীতে পুলিশের বাড়ি পেলেন বিধবা নারী

নোয়াখালীতে পুলিশের বাড়ি পেলেন বিধবা নারী

বঙ্গবন্ধুর জন্মশত বার্ষিকী ও স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উপলক্ষে প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনায় বাংলাদেশ পুলিশ কর্তৃক নির্মিত দুই কক্ষ বিশিষ্ট পাঁকা বাড়ি উপহার পেলেন নোয়াখালীর কবিরহাটের ধানসিঁড়ি ইউনিয়নের জগদানন্দ গ্রামের খালের পাশে ঝুঁপড়িতে বাস করা বিধবা কমলা খাতুন (৫০)।

শুক্রবার (২২ এপ্রিল) সকালে কমলাকে ঘরের চাবি হস্তান্তর করেন নোয়াখালীর পুলিশ সুপার শহীদুল ইসলাম (পিপিএম)।

মুজিব বর্ষের অঙ্গীকার, গৃহহীন থাকবে না কোন পরিবার, এই শ্লোগান সামনে রেখে বাংলাদেশ পুলিশ কর্তৃক নির্মিত বাড়ির চাবি হস্তান্তর অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন নোয়াখালীর অতিরিক্ত পুলিশ সুপার দীপক জ্যোতি খীসা, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর) মোর্তাছীন বিল্লাহ, কবিরহাট থানার ওসি (তদন্ত) জয়নাল আবেদিনসহ স্থানীয় গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গ ও গৃহহীন পরিবার।

কমলা উপজেলার ৩নং ধানসিঁড়ি ইউনিয়নের উত্তর জগদানন্দ গ্রামের বাসিন্দা মৃত আবদুল খালেকের স্ত্রী। তার স্বামীর মৃত্যুর পর প্রতিবন্ধী মেয়ে তাসলিমাকে নিয়ে ভিক্ষাবৃত্তি করে দুঃখ দুর্দশার মাঝে জীবন-জীবিকা নির্বাহ করতেন। তার মাথা গোঁজার মতো কোনও ঘর ছিল না।

নতুন ঘর পেয়ে কমলা খাতুন বলেন, স্বামীর মৃত্যুর পর থেকে খুব কষ্টে জীবনযাপন করছি। পুলিশ আমাদের জন্য যা করছে সেটি কোনও দিন ভুলবার নয়। তিনি বাংলাদেশ পুলিশ ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে কৃতজ্ঞচিত্তে ধন্যবাদ জানান।

বিধবার মেয়ে হাসিনা ( ১৮) বলেন, আমরা ছোটবেলা থেকে খালপাড়ে ঝুপড়ি ঘরে অনেক কষ্টে বসবাস করতাম। ঝড়বৃষ্টিতে অন্যের বাড়িতে আশ্রয় নিতে হতো আমাদের। এখন পুলিশ আমাদেরকে একটি ঘর দিয়েছে। তাই আমরা অনেক খুঁশি।

উপস্থিত এলাকাবাসী প্রধানমন্ত্রী ও পুলিশের এই ধরণের কাজের ভূয়সী প্রশংসা করেন। তারা মনে করেন এমন জনকল্যাণমূলক কাজের মাধ্যমে পুলিশ আরো বেশী জনসম্পৃক্ত হয়ে জনগণের প্রকৃত বন্ধু হতে পারবে।

জাগরণ/আরকে