• ঢাকা
  • সোমবার, ২৬ সেপ্টেম্বর, ২০২২, ১১ আশ্বিন ১৪২৯
প্রকাশিত: এপ্রিল ২৫, ২০২২, ১২:২২ পিএম
সর্বশেষ আপডেট : এপ্রিল ২৫, ২০২২, ০৬:২২ এএম

পঞ্চগড়ে ঘর পাবে ১০২১ পরিবার

পঞ্চগড়ে ঘর পাবে ১০২১ পরিবার

একটি মানুষও গৃহহীন থাকবে না- প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার এই ঘোষণাকে বাস্তবায়নের জন্য প্রথম ও দ্বিতীয় ধাপের পর এবার তৃতীয় ধাপে পঞ্চগড়ের পাঁচ উপজেলার এক হাজার ২১ অসহায়, ছিন্নমূল ও ভূমিহীন পরিবার প্রধানমন্ত্রীর ঈদ উপহার হিসেবে ভূমিসহ বাড়ি পাচ্ছেন। মঙ্গলবার (২৬ এপ্রিল) প্রধানমন্ত্রীর ঈদ উপহার অনুষ্ঠানের সঙ্গে সম্পৃক্ত হয়ে জেলা প্রশাসন এই বাড়িগুলো হস্তান্তর করবেন।

রোববার (২৪ এপ্রিল) বিকেলে পঞ্চগড়ের জেলা প্রশাসক জহুরুল ইসলাম এক সংবাদ সম্মেলনে সাংবাদিকদের এ তথ্য জানান।

জহুরুল ইসলাম জানান, এই ধাপে পঞ্চগড়ে দুই হাজার ৪৩৪টি গৃহ নির্মাণের উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। ইতোমধ্যে এক হাজার ২১টি গৃহের নির্মাণ কাজ শেষ হয়েছে। এগুলোই হলো অসহায়, ছিন্নমূল ও ভূমিহীন পরিবারের জন্য প্রধানমন্ত্রীর ঈদ উপহার। এক হাজার ২১টির মধ্যে পঞ্চগড় সদরে ৪৭০টি, বোদা উপজেলায় ১৪৫টি, দেবীগঞ্জে ২০০টি, আটোয়ারীতে ৫৬টি এবং তেঁতুলিয়া উপজেলায় ১৫০টি।

জেলা প্রশাসক জানান, বঙ্গবন্ধুর স্বপ্ন বাস্তবায়নের লক্ষে প্রধানমন্ত্রীর আশ্রয়ণ প্রকল্প-২ হতে এর আগেও প্রথম ও দ্বিতীয় ধাপে পঞ্চগড়ে দুই হাজার ৪১৬টি গৃহহীন ও ভূমিহীন পরিবারকে দুই শতক খাসজমি বন্দোবস্তসহ সেমিপাকা একক গৃহ দেয়া হয়েছে। এবারের ঘর হস্তান্তর শেষে পঞ্চগড়ে মোট ৩ হাজার ৪৩৭ গৃহহীন পরিবার সরকারের উপহারের ঘরের মালিক হবেন। 

তিনি আরো জানান, এ পর্যন্ত পঞ্চগড় জেলায় মোট ৪ হাজার ৮৫০টি ভূমিহীন-গৃহহীন পরিবার হিসেবে চিহ্নিত করা হয়েছে এবং এখন পর্যন্ত ৬৩ দশমিক ৪৮ একর খাসজমি অবৈধ দখল হতে উদ্ধার করা হয়েছে। চলতি অর্থবছরেই চিহ্নিত সব ভূমিহীন-গৃহহীন পরিবারের পূণর্বাসনের কাজ শেষ করে পঞ্চগড় জেলাকে দেশের প্রথম ভূমিহীন-গৃহহীন মুক্ত জেলা ঘোষণা করা হবে। 

জেলা প্রশাসকের সম্মেলকক্ষে অনুষ্ঠিত সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন- অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক দীপঙ্কর রায়, সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মাসুদুল হক, পঞ্চগড় প্রেস ক্লাবের সভাপতি সফিকুল আলমসহ গণমাধ্যম কর্মীরা।

জাগরণ/আরকে