• ঢাকা
  • সোমবার, ২৬ সেপ্টেম্বর, ২০২২, ১১ আশ্বিন ১৪২৯
প্রকাশিত: এপ্রিল ২৭, ২০২২, ০৩:৩৯ পিএম
সর্বশেষ আপডেট : এপ্রিল ২৭, ২০২২, ০৩:৪২ পিএম

কালবৈশাখীর তান্ডবে লন্ডভন্ড দোয়ারাবাজার

কালবৈশাখীর তান্ডবে লন্ডভন্ড দোয়ারাবাজার

দোয়ারাবাজার প্রতিনিধি
সুনামগঞ্জের দোয়ারাবাজারে উপজেলায় কালবৈশাখী ঝড়ে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, ঘর-বাড়ি, অসংখ্য গাছপালা ও ফসলের ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে। 

মঙ্গলবার (২৬ এপ্রিল) মধ্যরাতে কালবৈশাখী ঝড় হয়। এতে সবচেয়ে বেশি ক্ষতি হয়েছে উপজেলার হতদরিদ্র পরিবারগুলো।

জানা গেছে, দোয়ারাবাজারের উপর দিয়ে প্রচন্ড বেগে বয়ে যাওয়া কালবৈশাখী ঝড়ে উপজেলার ৯টি ইউনিয়নের বিভিন্ন গ্রামে অসংখ্য ঘর-বাড়ি, বিপুল গাছ-পালা, কৃষকের বোরোধান, আম, কাঠাল, লিচু ও নানা ধরনের শাকসবজিসহ ফসলি জমির ক্ষতি হয়েছে। গাছ পড়ে বিদ্যুতের তার ছিঁড়ে যাওয়ায় বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন হয়েছে।

ক্ষতিগ্রস্তরা জানান, মঙ্গলবার দিবাগত রাতে হঠাৎ করে আকাশ অন্ধকার হয়ে আসে। কিছুক্ষণ পরই প্রবল বেগে ঝড়ো বাতাস শুরু হয়। এক মুহূর্তেই ঘরবাড়ি গাছপালা সব লণ্ডভণ্ড করে দেয়। এতে ব্যাপক ক্ষতির সম্মুখীন হন তারা। এছাড়াও বড়বড় গাছ উপড়ে পড়ে চলাচলে বিগ্ন ঘটে বিভিন্ন এলাকায়।

লক্ষীপুর ইউনিয়ন পরিষদের ৯ নং ওয়ার্ড সদস্য ওমর গণি জানান, মঙ্গলবার দিবাগত মধ্যরাতে কালবৈশাখীতে ইউনিয়নের ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে। বাড়িঘর উড়ে গেছে। গাছপালা ভেঙ্গে বাড়িঘর এবং রাস্তায় পড়েছে। বিদ্যুৎ বিচ্ছিন্ন রয়েছে। শত শত মানুষ খোলা আকাশের নিচে অবস্থান করছেন।

বাংলাবাজার ইউপি চেয়ারম্যান রোটারিয়ান এম আবুল হোসেন জানিয়েছেন, তার ইউনিয়নের বিভিন্ন গ্রামের অনেক বাড়িঘর ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। মুহূর্তেই অনেক বাড়িঘরের টিনের ছাদ উড়ে চলে গেছে। অনেক বাসাবাড়ি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে গাছ উপড়ে নষ্ট হয়ে গেছে। বাতাসে ভেঙ্গে গেছে গাছপালা, উড়ে গেছে ঘরের টিন। জরুরি ভিত্তিতে উপজেলা প্রশাসনের কাছে অসহায় মানুষদের পাশে দাঁড়ানোর দাবিও জানান তিনি।

জাগরণ/আরকে