• ঢাকা
  • সোমবার, ২৬ সেপ্টেম্বর, ২০২২, ১১ আশ্বিন ১৪২৯
প্রকাশিত: জুলাই ১২, ২০২২, ১১:৩৩ এএম
সর্বশেষ আপডেট : জুলাই ১২, ২০২২, ১১:৪২ এএম

প্রেমিককে গাছে বেঁধে নির্যাতন, দেড় মিনিটের ভিডিও ভাইরাল

প্রেমিককে গাছে বেঁধে নির্যাতন, দেড় মিনিটের ভিডিও ভাইরাল

নোয়াখালীর হাতিয়া উপজেলায় প্রেমের জেরে প্রেমিককে গাছে বেঁধে নির্যাতনের ভিডিও ফেসবুকে ভাইরাল হয়েছে। এ ঘটনায় অভিযুক্ত প্রেমিকার বাবাকে কারাগারে পাঠিয়েছে পুলিশ।

সোমবার দুপুরে প্রেমিকার বাবাকে গ্রেফতার করা হয়। এর আগে রোববার রাত উপজেলার হাতিয়া পৌরসভার ৩ নম্বর ওয়ার্ডে এ ঘটনা ঘটে।

ভুক্তভোগী হলেন, হাতিয়া পৌরসভার ৫ নম্বর ওয়ার্ডের মো. সেলিমের ছেলে রিয়াদ উদ্দিন শাকিল। তিনি হাতিয়া দ্বীপ সরকারি কলেজের অনার্স দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র। 

জানা গেছে, শাকিলের সঙ্গে একই ক্লাসের এক ছাত্রীর প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। বিষয়টি জানতে পেরে গত রোববার রাতে বাজার থেকে বাড়ি যাওয়ার পথে লোকজন নিয়ে শাকিলকে আটক করেন ওই ছাত্রীর ভাই শরীফ ও বাবা নুরুল আমিন। পরে চোখ বেঁধে বাড়িতে নিয়ে গাছের সঙ্গে বেঁধে নির্যাতন করেন। এ সংবাদ পেয়ে রাত আড়াইটায় তাকে ঘটনাস্থল থেকে উদ্ধার করে পুলিশ।

এদিকে সোমবার দুপুরে হাতিয়া পৌরসভার ৩ নম্বর ওয়ার্ডের চরকৈলাশ গ্রামের বাসিন্দা প্রেমিকার বাবা নুরুল আমিনকে গ্রেফতার করে কারাগারে পাঠানো হয়। তবে এ সংক্রান্ত একটি ভিডিও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে ভাইরাল হয়েছে।

এ ছাড়া ১ মিনিট ২৪ সেকেন্ডের ভিডিওতে দেখো গেছে, প্যান্ট ও লাল রঙের টি-শার্ট পরা এক যুবককে গাছের সঙ্গে দড়ি দিয়ে বেঁধে নির্যাতন করা হচ্ছে। এ সময় তিনি বারবার ছেড়ে দেওয়ার আকুতি জানাচ্ছেন।

হাতিয়া থানার ওসি আমির হোসেন জানান, সোমবার সকালে ভুক্তভোগী শাকিল ছয় জনের নাম উল্লেখপূর্বক ৮ থেকে ১০ জনকে অজ্ঞাতনামা আসামি করে মামলা করেন। এ ঘটনায় একজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। তবে গ্রেফতারকৃত ব্যক্তি মামলার ১ নম্বর আসামির বাবা।

তিনি আরো জানান, ভিডিওতে তাকে ঘটনার সময় উপস্থিত থাকতে দেখা যায়। বিচারিক আদালতের মাধ্যমে সোমবার তাকে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।