• ঢাকা
  • সোমবার, ২৬ ফেব্রুয়ারি, ২০২৪, ১৪ ফাল্গুন ১৪৩০
প্রকাশিত: ফেব্রুয়ারি ২৭, ২০২৩, ১০:৫৮ পিএম
সর্বশেষ আপডেট : ফেব্রুয়ারি ২৭, ২০২৩, ১০:৫৮ পিএম

৬ অভয়াশ্রমে মাছ শিকারে নিষেধাজ্ঞা

৬ অভয়াশ্রমে মাছ শিকারে নিষেধাজ্ঞা
ছবি ● সংগৃহীত

ইলিশসহ সব প্রকার মাছের উৎপাদন বৃদ্ধির লক্ষ্যে দেশের ছয়টি অভয়াশ্রমে প্রতি বছরের মতো ২ মাসের জন্য সকল প্রকার মাছ শিকারে নিষেধাজ্ঞা শুরু হবে।

আগামী ১ মার্চ থেকে ৩০ এপ্রিল পর্যন্ত এ নিষেধাজ্ঞা থাকবে।

এই কর্মসূচির আওতায় থাকবে ভোলার মেঘনার ইলিশা থেকে চর পিয়াল ও তেঁতুলিয়া নদীর ভেদুরিয়া থেকে চর রুস্তম পর্যন্ত ১৯০ কিলোমিটার এলাকা। মাছ শিকার থেকে বিরত থাকা জেলেদের মাঝে প্রণোদনা হিসাবে চাল বিতরণ করা হবে।

তবে নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে যারা মাছ শিকার করবে তাদের বিরুদ্ধে পরিচালনা করা হবে বিশেষ অভিযান।

অক্টোবরের প্রজনন মৌসুমে ডিম ছাড়ার পর বর্তমান সময়টি ইলিশের জন্য গুরুত্বপূর্ণ সময়। এ সময় ইলিশ জাটকা থেকে বেড়ে পরিপূর্ণ হয়ে উঠে। ইলিশের বেড়ে ওঠার পাশাপাশি অন্যান্য মাছও এ সময় নদীতে ডিম ছাড়ে। ফলে ভোলার মেঘনা নদীর ইলিশা থেকে মনপুরার চর পিয়াল পর্যন্ত ৯০ কিলোমিটার এবং তেতুঁলিয়ার ভেদুরিয়া থেকে চর রুস্তমের ১শ কিলোমিটারসহ মোট ১৯০ কিলোমিটার অভয়াশ্রম এলাকায় ১ মার্চ থেকে ইলিশসহ সকল মাছ শিকার বন্ধ থাকবে।

জেলেদের এ সময় মাছ শিকার থেকে বিরত রাখতে মৎস্য বিভাগ ভোলা জেলার ১৩২টি মৎস্য অবতরণ কেন্দ্রসহ বিভিন্ন এলাকায় চালিয়ে যাচ্ছে বিশেষ প্রচার-প্রচারণা।

ভোলা জেলা মৎস্য কর্মকর্তা মোল্লা এমদাদুল্যাহ জানান, দুই-একদিনের মধ্যেই জেলেদের জন্য বরাদ্দ চাল পাওয়া যাবে। এই চাল আগামী ১০ দিনের মধ্যে বিতরণ করা হবে। তবে আইন অমান্যকারী জেলেদের ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে জেল জরিমানাসহ শাস্তির আওতায় আনা হবে।

জাগরণ/স্বদেশ/এসএসকে