• ঢাকা
  • রবিবার, ২৩ জুন, ২০২৪, ৯ আষাঢ় ১৪৩১
প্রকাশিত: মার্চ ৫, ২০২৩, ১২:১৬ এএম
সর্বশেষ আপডেট : মার্চ ৫, ২০২৩, ১২:১৬ এএম

সীতাকুণ্ডে অক্সিজেন প্ল্যান্টে বিস্ফোরণ

নিহত বেড়ে ৬, তদন্ত কমিটি গঠন

নিহত বেড়ে ৬, তদন্ত কমিটি গঠন
ছবি ● সংগৃহীত

চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ডে একটি অক্সিজেন প্ল্যান্টে বিস্ফোরণ থেকে আগুনে ৬ জন নিহত হয়েছে। আহত হয়েছে কমপক্ষে ২০ জন।

শনিবার (৪ মার্চ) বিকাল সাড়ে ৪টার দিকে সীতাকুণ্ডের কদম রসুলপুরে সীমা রি-রোলিং মিলের অক্সিজেন প্ল্যান্টে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

আগুন নিয়ন্ত্রণে আসার পর উদ্ধার অভিযানে নামে ফায়ার সার্ভিস ও সেনাবাহিনী। প্রথমদিনের মতো উদ্ধার অভিযান সমাপ্ত ঘোষণা করা হয়েছে।

শনিবার (৪ মার্চ) বিকাল সাড়ে চারটার দিকে চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ডে সীমা অক্সিজেন প্ল্যান্টে বিস্ফোরণ হয়। ধ্বংস হয়ে যায় দুইটি বয়লার। বিস্ফোরণে এক কিলোমিটার দূরে ছিটকে পড়ে লোহার খণ্ড। আশপাশের বিভিন্ন ভবন ও কারখানার চাল উড়ে যায়। ভেঙে যায় দরজা-জানালা। পুরো এলাকায় ছড়িয়ে পড়ে আতঙ্ক।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, হঠাৎ বিকট শব্দে বিস্ফোরণ হয়েছে। এতে আশপাশের এলাকা কেঁপে উঠেছে। বিস্ফোরণের সময় প্ল্যান্টের ভেতর লোকজন ছিল।

চারটা চল্লিশে আগুন নিয়ন্ত্রণে কাজ শুরু করে ফায়ার সার্ভিস। নিয়ন্ত্রণে আসে ১ ঘণ্টার চেষ্টায়। ধ্বংসস্তূপ থেকে একে একে উদ্ধার করা হয় ৬ জনের মরদেহ। আহতদের উদ্ধার করে নেয়া হয় চট্টগ্রাম মেডিকেলসহ বিভিন্ন হাসপাতালে। এদের মধ্যে কয়েকজনের (৬ জনের) অবস্থা গুরুতর বলে জানিয়েছেন চিকিৎসক।

চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসক আবুল বাশার মোহাম্মদ ফকরুজ্জামান বলেন, বিস্ফোরণের কারণ তদন্তে জেলা প্রশাসন, ফায়ার সার্ভিস ও পুলিশের সমন্বয়ে ৩ সদস্যের কমিটি গঠন করা হয়েছে। ৫ দিনের মধ্যে কমিটিকে প্রতিবেদন দিতে বলা হয়েছে।

সন্ধ্যার পর উদ্ধার কাজে যোগ দেয় সেনাবাহিনী। নিরাপত্তার স্বার্থে সেখানে থেকে সরিয়ে দেয়া হয় উৎসুক জনতাকে।

এর আগে, গত বছরের ৪ জুন রাতে এই এলাকার একটি কনটেইনার ডিপোতে ভয়াবহ বিস্ফোরণ ও অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটে। এতে প্রায় ৫০ জনের প্রাণহানি হয়, আহত হন দুই শতাধিক।

চট্টগ্রাম সীতাকুণ্ড এলাকায় ভারী শিল্প গড়ে উঠেছে। এখানে জাহাজ ভাঙা শিল্প, অক্সিজেন প্ল্যান্ট, ইস্পাত শিল্প রয়েছে।

জাগরণ/স্বদেশ/এসএসকে