• ঢাকা
  • শুক্রবার, ২৪ মে, ২০২৪, ৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১
প্রকাশিত: জুন ১৭, ২০২৩, ১০:৩৪ এএম
সর্বশেষ আপডেট : জুন ১৭, ২০২৩, ১০:৩৪ এএম

সাংবাদিক নাদিম হত্যা

ইউপি চেয়ারম্যান বাবুকে আ. লীগ থেকে বহিষ্কার

ইউপি চেয়ারম্যান বাবুকে আ. লীগ থেকে বহিষ্কার
সাধুরপাড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মাহমুদুল আলম বাবু ● সংগৃহীত

সাংবাদিক গোলাম রাব্বানী নাদিম হত্যায় অভিযুক্ত জামালপুরের বকশীগঞ্জ উপজেলার সাধুরপাড়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদকের পদ থেকে ইউপি চেয়ারম্যান মাহমুদুল আলম বাবুকে সাময়িক বহিষ্কার করা হয়েছে।

শুক্রবার (১৬ জুন) দিনগত রাতে বকশীগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি নূর শাহিনা বেগম ও সাধারণ সম্পাদক ইসমাইলের সই করা সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানান হয় ।

সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, সাংবাদিক নাদিম হত্যার সঙ্গে জড়িত থাকায় ও দলীয় শৃঙ্খলা ভঙ্গের অভিযোগে উপজেলার সাধুরপাড়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদকের পদ থেকে মাহমুদুল আলম বাবুকে সাময়িক বহিষ্কার করা হলো। কেনো তাকে স্থায়ীভাবে বহিষ্কার করা হবে না, এ বিষয়ে সশরীরে উপস্থিত হয়ে সাত দিনের মধ্যে লিখিত জবাব দিতে বলা হয়েছে।

অভিযুক্ত মাহমুদুল আলম বাবু চেয়ারম্যান পলাতক থাকায় বহিষ্কারের বিষয়ে তার কোনো বক্তব্য পাওয়া যায়নি। তার ব্যবহৃত মোবাইল নম্বরটিও বন্ধ পাওয়া যায়।

তবে বকশীগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি শাহীনা বেগম বহিষ্কারের সত্যতা জাগো নিউজকে নিশ্চিত করেছেন।

সংবাদ প্রকাশকে কেন্দ্র করে সাংবাদিক গোলাম রাব্বানী নাদিম বুধবার রাত ১০টার দিকে বকশীগঞ্জ বাজারের পাটহাটি এলাকায় সাধুরপাড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ও ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মাহমুদুল আলম বাবুর সন্ত্রাসী বাহিনীর হামলার শিকার হন।

বৃহস্পতিবার বিকেল পৌনে ৩টার দিকে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান। ময়নাতদন্ত শেষে রাত ১০টায় তার মরদেহ পৌর শহরের বাসায় আসে।

শুক্রবার সকাল ১০টায় বকশীগঞ্জ নুর মুহাম্মদ উচ্চবিদ্যালয় মাঠে প্রথম জানাজা ও গুমেরচর জিগাতলা ঈদগাহ মাঠে দ্বিতীয় জানাজা অনুষ্ঠিত হয়। বেলা সাড়ে ১১টার দিকে গ্রামের বাড়ি নিলাক্ষিয়া ইউনিয়নে গুমেরচরে পারিবারিক কবরস্থানে তাকে সমাহিত করা হয়।

জাগরণ/স্বদেশ/এসএসকে