• ঢাকা
  • রবিবার, ০৪ ডিসেম্বর, ২০২২, ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৯
প্রকাশিত: সেপ্টেম্বর ২৬, ২০২২, ১২:০৭ এএম
সর্বশেষ আপডেট : সেপ্টেম্বর ২৫, ২০২২, ০৬:০৭ পিএম

আয়ের নতুন রেকর্ড চট্টগ্রাম বন্দরের

আয়ের নতুন রেকর্ড চট্টগ্রাম বন্দরের
ফাইল ফটো

গত অর্থবছরে আয়ের নতুন রেকর্ড গড়েছে দেশের অর্থনীতির স্বর্ণদ্বার খ্যাত চট্টগ্রাম বন্দর। এ সময় আয় হয়েছে ৩ হাজার ৫৮৫ কোটি টাকা। এর আগে এক অর্থবছরের এতো আয় করেনি এই বন্দর। নানামুখী উন্নয়ন কার্যক্রমে এই অর্থ খরচ এবং আরও ব্যয় সংকোচন করতে চায় বন্দর। অন্যদিকে বন্দর ব্যবহারকারীরা বলছেন, করোনাকালের কর্মকাণ্ডই এগিয়ে রেখেছে দেশের প্রধান সমুদ্রবন্দরকে।

দেশের আমদানি-রফতানির প্রধান দুয়ার চট্টগ্রাম বন্দর। যতই দিন যাচ্ছে বন্দরের কার্যক্রমের সঙ্গে পাল্লা দিয়ে বাড়ছে আয়-ব্যয়ও। এবার সেই আয়ে আগের রেকর্ড ছাড়িয়ে গেলো এই বন্দর।

২০২১-২২ অর্থবছরে চট্টগ্রাম বন্দরের মোট আয় ৩ হাজার ৫৮৫ কোটি টাকা। ব্যয় ও কর বাদ দিয়ে নিট আয় ১ হাজার ৭৫ কোটি টাকা। সবমিলিয়ে গেলো ৫ বছরে আয় বেড়েছে প্রায় ৩৪ শতাংশ। একই সময়ে খরচ বাদ দিয়ে নিট আয় বেড়েছে প্রায় ২শো ৪০ কোটি টাকা।

সাধারণত পণ্য সংরক্ষণ, যন্ত্রপাতি ব্যবহার, টার্মিনাল ভাড়া, স্টাফিং-আনস্টাফিং বাবদ ব্যবহারকারীদের কাছ থেকে নেয়া মাসুলই বন্দরের আয়ের প্রধান উৎস। এছাড়া আছে জেটি নদী টাগবোট ভাড়া, জাহাজে পানি সরবরাহ, পাইলটিংসহ আরও কয়েকটি খাত।

এছাড়া বিপুল পরিমাণ সঞ্চিত অর্থ থেকে ব্যাংকের দেয়া সুদও রয়েছে। ব্যবহারকারীরা বলছেন, করোনাকালে সাহসী পদক্ষেপের কারণেই এগিয়ে রয়েছে এই বন্দর।

গেলো অর্থবছরে চট্টগ্রাম বন্দরে জাহাজ এসেছে ৪ হাজার ২৩১টি। হ্যান্ডলিং হয়েছে প্রায় ৩১ লাখ একক কনটেইনার ও ১১ কোটি ৮২ লাখ টন খোলা পণ্য।

জাগরণ/অর্থনীতি/এমএ