• ঢাকা
  • শুক্রবার, ১৯ জুলাই, ২০২৪, ৩ শ্রাবণ ১৪৩১
প্রকাশিত: জুন ১০, ২০২৩, ১২:২৬ এএম
সর্বশেষ আপডেট : জুন ১০, ২০২৩, ১২:২৬ এএম

পেঁয়াজের দাম কেজিতে কমেছে ৪৫ টাকা

পেঁয়াজের দাম কেজিতে কমেছে ৪৫ টাকা
ছবি ● ফাইল ফটো

পেঁয়াজের আমদানি শুরু হওয়ার পর দিন থেকে দেশের ভোগ্যপণ্যের সবচেয়ে বড় বাজার চট্টগ্রামের খাতুনগঞ্জের পেঁয়াজের দাম কমছে। তবে সরবরাহ স্বাভাবিক না হওয়ায় কমেনি আদার দাম। এদিকে রসুনের দাম গত সপ্তাহের তুলনায় বেড়েছে। 

ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ সংগঠনগুলো বলছে, কোরবানির আগে পাইকারি বাজার নিয়ন্ত্রণে সরকারি মনিটরিং বাড়ানো দরকার। 

দেশের সবচেয়ে বড় ভোগ্যপণ্যের বাজার চট্টগ্রামের খাতুনগঞ্জের বিভিন্ন আড়ত ভারতীয় পেঁয়াজের সারি সারি বস্তায় ভর্তি। গত তিনদিনে ৫০ ট্রাক ভারতীয় পেঁয়াজ এসেছে বাজারে।

খাতুনগঞ্জে দেশি পেঁয়াজের পাইকারি দর রবিবারে ৯০-৯৫ টাকা থাকলেও বুধবার থেকে বিক্রি হচ্ছে ৫০ থেকে ৫৫ টাকায়।

পাইকাররা বলছেন আমদানি করা ভারতীয় পেঁয়াজের মান খারাপ হলেও দামের কারণে এর চাহিদা বেশি। 

সরবরাহ আরও বাড়লে দাম আরো কমে যাবে। 

তবে গত সপ্তাহের তুলনায় রসুনের দাম পাইকারিতে ৫ টাকা বেড়ে বিক্রি হচ্ছে ১২৫ টাকায়। পাশাপাশি সরবরাহ কম থাকায় পাইকারি বাজারে আদা বিক্রি হচ্ছে ১৮০- ২৩০ টাকায়।

খুচরা ব্যবসায়ীরা বলেন পাইকারি বাজারের দামের প্রভাব খুচরা বাজারেও পরতে শুরু করেছে। আমদানি নির্ভর হওয়ায় মশলার দামও বেড়ে গেছে বলে দাবি পাইকারদের। 

ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ সংগঠনগুলো বলছে বাজার নিয়ন্ত্রণে সরকারি মনিটরিং আরো জোরদার করতে হবে।

দেশে বর্তমানে পেঁয়াজের চাহিদা রয়েছে ২৫-২৬ লক্ষ মেট্রিক টন। আমদানি করতে হয় ১০ লক্ষ মেট্রিক টন। যার বেশির ভাগ আসে ভারত থেকে।

জাগরণ/অর্থনীতি/এসএসকে