• ঢাকা
  • মঙ্গলবার, ২৭ ফেব্রুয়ারি, ২০২৪, ১৪ ফাল্গুন ১৪৩০
প্রকাশিত: ফেব্রুয়ারি ৯, ২০২৪, ১২:৪৭ এএম
সর্বশেষ আপডেট : ফেব্রুয়ারি ৯, ২০২৪, ১২:৪৭ এএম

‘আইএমএফের ঋণের তৃতীয় কিস্তি যথাসময়ে’

‘আইএমএফের ঋণের তৃতীয় কিস্তি যথাসময়ে’
অর্থমন্ত্রী আবুল হাসান মাহমুদ আলী ● সংগৃহীত

আন্তর্জাতিক মুদ্রা তহবিল বা আইএমএফের দেয়া বেশিরভাগ টার্গেটই পূরণ করায় সংস্থাটির দেয়া ঋণের তৃতীয় কিস্তি বাংলাদেশ সময় মতোই পাবে বলে আশা প্রকাশ করেছেন অর্থমন্ত্রী আবুল হাসান মাহমুদ আলী।

বৃহস্পতিবার সাংবাদিকদের একথা বলেছেন তিনি।

এর আগে বাংলাদেশে আইএমএফের  আবাসিক প্রতিনিধি জায়েন্দু দে এবং বাংলাদেশে নিযুক্ত কানাডিয়ান হাইকমিশনার লিলি নিকলসের সঙ্গে বৈঠক করেন।

মাহমুদ আলী বলেন, আএমএফ যেসব টার্গেট দিয়েছিলো তার বেশিরভাগই আমরা পূরণ করতে পেরেছি। আইএমএফ এর পরীক্ষায় আমরা পাস করেছি।

‘আরেকটা টিম আসবে। তৃতীয় কিস্তি ঋণের টাকাও যথাসময়ে পাওয়া যাবে,’ আশা প্রকাশ করেন অর্থমন্ত্রী।

আইএমএফের কাছ থেকে ৪ দশমিক ৭ বিলিয়ন ডলার ঋণ নিচ্ছে বাংলাদেশ। ওই ঋণের প্রথম কিস্তির ৪৭ কোটি ৬২ লাখ ডলার বাংলাদেশ পায় গত বছরের ফেব্রুয়ারিতে। আর ডিসেম্বরে আসে দ্বিতীয় কিস্তির ৬৮ কোটি ৯৮ লাখ ডলার।

দেশের দুর্বল ব্যাংকগুলোকে সবল ব্যাংকের সঙ্গে একীভূত বা মার্জ করার বিষয়ে একমত অর্থমন্ত্রী এএইচ মাহমুদ আলী।

তিনি বলেন, ‘দুর্বল ব্যাংককে সবল ব্যাংকের সঙ্গে একীভূত করা ভালো। এ বিষয়ে আমাদের দুটি আইডিয়া আছে।

দু-একটা ব্যাংক এমন আছে তারা একেবারেই কাজই করতে পারছে না। তাদের শক্তিশালী ব্যাংকের সঙ্গে একীভূত করাই ভালো।’

দেশের দুর্বল ব্যাংকগুলোকে সংস্কার করে সবল কোনো ব্যাংকের সঙ্গে একীভূত করার উদ্যোগ নিয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক।

এই পদক্ষেপ বাস্তবায়নে ব্যাংকগুলোকে প্রস্তুতও থাকতে বলেছে কেন্দ্রীয় ব্যাংক।

অর্থমন্ত্রী জানান, উন্নত অর্থনীতিতে দেশগুলোতে একীভূতকরণ অহরহই হচ্ছে। তবে এখানে তা করতে সময় দিতে হবে।

বাংলাদেশ ব্যাংকের তৎপরতা থাকলেও এই বিষয়ের বাস্তবায়ন সময় সাপেক্ষ। অর্থ মন্ত্রণালয় এ ব্যাপারে এখনো উদ্যোগ নেয়নি বলেও মন্তব্য করেন তিনি। 

জাগরণ/অর্থনীতি/কেএপি