• ঢাকা
  • রবিবার, ০১ আগস্ট, ২০২১, ১৬ শ্রাবণ ১৪২৮
প্রকাশিত: জুলাই ১৬, ২০২১, ১১:৫০ এএম
সর্বশেষ আপডেট : জুলাই ১৬, ২০২১, ০৫:৫০ এএম

৫১ হাজার ৭৬১ শিক্ষক নিয়োগের ফল প্রকাশ

৫১ হাজার ৭৬১ শিক্ষক নিয়োগের ফল প্রকাশ

মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক স্তরের বেসরকারি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে ৫১ হাজার ৭৬১টি শূন্যপদে শিক্ষক নিয়োগের জন্য গণবিজ্ঞপ্তির ফলাফল প্রকাশ করেছে বেসরকারি শিক্ষক নিবন্ধন ও প্রত্যয়ন কর্তৃপক্ষ (এনটিআরসিএ)।

বৃহস্পতিবার (১৫ জুলাই) রাতে প্রকাশিত ফলাফলে এসব পদের বিপরীতে সুপারিশ করা হয়েছে। রাত থেকেই সুপারিশপ্রাপ্ত নিয়োগপ্রার্থীরা এসএমএসের মাধ্যমে ফলাফল পেতে শুরু করেছেন।

এনটিআরসিএ এবং টেলিটকের (www.ntrca.gov.bd এবং http://ngi.teletalk.com.bd ) ওয়েবসাইটেও ফলাফল পাওয়া যাচ্ছে।

 বৃহস্পতিবার (১৫ জুলাই) এসএসসি ও এইচএসসি সমমান পরীক্ষা ও বিকল্প মূল্যয়ন নিয়ে প্রেস ব্রিফিংয়ে শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি ফল প্রকাশের কথা জানান।

এ সময় শিক্ষামন্ত্রী জানান, চলতি বছরের গত ৩০ মার্চ ৪৮ হাজার ১৯৯টি এমপিওভুক্ত এবং ৬ হাজার ১০৫টি নন-এমপিও পদে নিয়োগে সুপারিশের জন্য মোট ৫৪ হাজার ৩০৪টি শূন্য পদে নিয়োগ সুপারিশ করতে নিবন্ধনধারীদের কাছে অনলাইনে আবেদন চেয়ে তৃতীয় গণবিজ্ঞপ্তি প্রচার করা হয়। মোট ৫৪ হাজার ৩০৪ জনের মধ্যে ২ হাজার ২০৭টি পদ সুপ্রিম কোর্টের লিভ টু আপিলের রায় বাস্তবায়নের জন্য সংরক্ষিত থাকবে। অবশিষ্ট ৫২ হাজার ৯৭টি পদে জন্য ৪ এপ্রিল থেকে ৩০ এপ্রিল পর্যন্ত মোট ৭৯ লাখ ৭৮ হাজার হাজার ৯১৭টি আবেদন পাওয়া যায়।

কিন্তু নিয়োগ সুপারিশের আগেই ২০টি কনটেমপ্ট মামলায় গত ৩০ মার্চ প্রকাশিত বিজ্ঞপ্তিটি স্থগিত করা হয়। পরবর্তী সময়ে ৩১ মে পিটিশনারদের পক্ষে আদেশ হয়। কাজেই শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের পরিপত্র ও সুপ্রিম কোর্টের আদেশ অনুযায়ী মেধা ভিত্তিতে নিয়োগ দেওয়ার পরিপন্থী হওয়ায় ৩১ মার্চের আদেশসহ কনটেমপ্ট পিটিশনের বিরুদ্ধে সিভিল পিটিশন ফর লিভ টু আপিল দাখিল করা হয়।  গত ২৮ জুন আপিল নিষ্পত্তি হয়। এর কারণে নিয়োগ সুপারিশে আর কোনও বাধা নেই মর্মে উল্লেখ করা হয়।

আদালতের আদেশে তৃতীয় গণবিজ্ঞপ্তি অনুাযায়ী ৫২ হাজার ৯৭টি পদসহ ২ হাজার ২০৭টি সংরক্ষিত করে নিয়োগ সুপারিশ করার নির্দেশ দেয়া হয়। ৫২ হাজার ৯৭টি পদের মধ্যে ২১৫টি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান প্রধান ভুল চাহিদা পাঠিয়েছেন মর্মে জানানো হলে ৩ হাজার ৩০৭টি পদের চাহিদা বাতিল করা হয়। আর ২ হাজার ২০৭টি পদের মধ্যে ৬৫ পদে কোনও চাহিদা না পাওয়ায় কোনও সুপারিশ করা হবে না। আদালতের সুপারিশ করা পদে তাদের স্থায়ী ঠিকানার কাছাকাছি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে নিয়োগের সুপারিশ করা হবে।

তৃতীয় গণবিজ্ঞপ্তির অবশিষ্ট ৫২ হাজার ৯৭টি পদে নিবন্ধনধারীদের পছন্দক্রম মেধার ভিত্তিতে টেলিটকের সফটওয়ারের মাধ্যমে নিয়োগ সুপারিশ করা হবে। টেলিটকের মাধ্যমে সুপারিশ করা প্রার্থীদের তালিকা এনটিআরসিএ –এর ওয়েবসাইটে প্রকাশ করা হবে। মোট ৫১ হাজার ৭৬১ পদে নিয়োগ সুপারিশ করা হবে।

জাগরণ/এসএসকে/এমএ