• ঢাকা
  • সোমবার, ২০ মে, ২০২৪, ৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১
প্রকাশিত: ফেব্রুয়ারি ১০, ২০২৩, ১১:৪৭ পিএম
সর্বশেষ আপডেট : ফেব্রুয়ারি ১০, ২০২৩, ১১:৪৭ পিএম

ষষ্ঠ ও সপ্তম শ্রেণির ‘অনুসন্ধানী পাঠ’ প্রত্যাহার

ষষ্ঠ ও সপ্তম শ্রেণির ‘অনুসন্ধানী পাঠ’ প্রত্যাহার
ছবি ● সংগৃহীত

ষষ্ঠ ও সপ্তম শ্রেণিতে নতুন শিক্ষাক্রমে প্রস্তুতকৃত ইতিহাস ও সামাজিক বিজ্ঞান বইয়ের ‘অনুসন্ধানী পাঠ’ প্রত্যাহার করা হয়েছে। তবে বইটির অনুশীলন পাঠ থেকে এই শ্রেণির শিক্ষার্থীদের পাঠদান কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে।

শুক্রবার (১০ ফেব্রুয়ারি) জাতীয় শিক্ষাক্রম ও পাঠ্যপুস্তক বোর্ডের (এনসিটিবি) সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ বিষয়ে জানানো হয়।

এনসিটিবির এক ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা জানান, ইতিহাস ও সামাজিক বিজ্ঞান বিষয়ে দুটি এই রয়েছে। এর মধ্যে অনুসন্ধানী পাঠে দেশের বিভিন্ন ঐতিহ্য ও ঐতিহাসিক স্থানের বর্ণনা দেওয়া হয়েছে। যেখানে বিভিন্ন ভুল-ভ্রান্তিসহ লেখা কপির অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ কারণে চলতি বছর এ বই বাদ দেওয়ার সিদ্ধান্ত হয়েছে। ইতিহাস ও সামাজিক বিজ্ঞান বিষয়ের অপর বই ‘অনুশীলন পাঠ’ থেকে শিক্ষার্থীদের পাঠদান কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে। পরবর্তী বছর নতুন বই ছাপানোর সময় অনুসন্ধানী পাঠে প্রয়োজনীয় সংশোধনী এনে তা অনুশীলন পাঠের মধ্যে সংযুক্ত করা হবে।

এর আগে চাঁদপুরে এক অনুষ্ঠানে অনুসন্ধানী পাঠ প্রত্যাহারের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি।

মন্ত্রী বলেন, ‘কেউ কেউ বলছেন বইয়ে এটি না থাকলে ভালো হতো। আবার কোনওটি বেশি লেখা হয়েছে। আমরা বলছি এবারের পাঠ্যক্রমের ষষ্ঠ ও সপ্তম শ্রেণির দুটি বই নতুন করে সংস্কার করে দেয়া হবে। এই দুই শ্রেণির বইয়ে যেগুলো নিয়ে কথা হচ্ছে, সেগুলো পড়া বন্ধ থাকবে।’

মন্ত্রী আরো বলেন, ‘এসব বইয়ে ইসলামবিরোধী কিছুই নেই। তার পরও আমরা মানুষের কথা শুনি, যদি কেউ মনে কষ্ট পায় সেটাকেও গুরুত্ব দিই এবং সম্মান করি।’

জাগরণ/শিক্ষা/এসএসকে