• ঢাকা
  • সোমবার, ২৫ জানুয়ারি, ২০২১, ১২ মাঘ ১৪২৭
প্রকাশিত: ডিসেম্বর ৫, ২০২০, ০৩:৪৭ পিএম
সর্বশেষ আপডেট : ডিসেম্বর ৬, ২০২০, ১২:১৪ পিএম

ডায়েট চার্টে ৭ বাদাম

জাগরণ ডেস্ক
ডায়েট চার্টে ৭ বাদাম

বাদাম সুস্বাদু এবং প্রোটিন সমৃদ্ধ খাবার। এতে আরো রয়েছে ভিটামিন, মিনারেল, তেল ও ফাইবার। প্রতিদিন ডায়েট চার্টে বাদাম হতে পারে আপনার সকল ভিটামিনের উৎস।

বাদাম যেমন আপনাকে সুস্থ রাখবে, অন্যদিকে কর্মশক্তিও বাড়িয়ে দিবে। হাড়, পেশী এবং ত্বকের উজ্জ্বলতা বাড়াতেও বাদামের ভূমিকা গুরুত্বপূর্ণ। যারা মাছ কিংবা মাংস পছন্দ করেন না, তাদের জন্য প্রোটিনের একটি বড় উৎস হতে পারে বাদাম।

বিশ্বে বিভিন্ন ধরনের বাদামের উৎপাদন হয়। প্রোটিনের পাশাপাশি এসব বাদামে পাবেন আরো বেশ কিছু উপাদান। আসুন দেখে নেয়া যাক, কতটুকু বাদামের কতটা পুষ্টির পরিমান মিলবে।

কাজুবাদাম

প্রতি ৩৫ গ্রাম কাজুবাদামে রয়েছে ৭ গ্রাম প্রোটিন। অন্যান্য বাদামের তুলনায় এটি শরীরের জন্য খুবই উপকারি। এ বাদাম অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট যৌগ দ্বারা তৈরি। যা মানুষের কোষকে ক্ষতি থেকে রক্ষা করে। ডায়েট চার্টে এ বাদাম রাখার পরামর্শ দেন চিকিৎসকরা ।

পেস্তাবাদাম

একটি ডিম থেকে যতটা প্রোটিন পাওয়া যায়, ঠিক তার সমপরিমান প্রোটিন পাওয়া যায় ৩০ গ্রাম পেস্তাবাদামে। এই বাদামে প্রোটিনের পাশাপাশি রয়েছে উচ্চমাত্রায় অ্যামিনো অ্যাসিড। যা শরীরকে সুস্থ রাখতে সাহায্য করে।

আখরোট

প্রতি ২৯ গ্রাম আখরোটে রয়েছে ৭ গ্রাম প্রোটিন। বাদাম জাতীয় খাবারের মধ্যে আখরোট বেশ সুস্বাদু ও উপকারী। আখরোটে প্রোটিনের পাশাপাশি রয়েছে ভিটামিন বি ও প্রচুর পরিমানে অ্যান্টি অক্সিড্যান্ট। এটি ত্বকের বলিরেখা দূর করে এবং বয়সের ছাপ পড়তে দেয় না। এছাড়া ডায়াবেটিস ও কোলেস্টেরল নিয়ন্ত্রণেও এটি ভূমিকা রাখে।

হিজলি বাদাম

হিজলি বাদামে প্রোটিন পরিমানে বেশি না থাকলেও গুরুত্বপূর্ণ কিছু ভিটামিন ও খনিজে সমৃদ্ধ। প্রতি ৩২ গ্রাম হিজলি বাদামে  রয়েছে ৫ গ্রাম প্রোটিন। এটি লোহিত রক্ত কণিকা এবং সংযুক্ত টিস্যু তৈরিতে সহায়তা করে। প্রতিদিন হিজলি বাদাম খেলে রক্তচাপ নিয়ন্ত্রিত হয় এবং হৃদরোগের ঝুঁকি কমে। ওজনেও কোনো নেতিবাচক প্রভাব পড়ে না।

পাইন বাদাম বা চিলগোজা

পাইন বাদাম আমাদের দেশে বেশ পরিচিত না হলেও এটি বেশ উপকারি। মূলত ভারতে উৎপাদিত হয়। মিষ্টি স্বাদযুক্ত এ বাদামে প্রচুর পরিমানে চর্বি রয়েছে। প্রতি ৩৪ গ্রাম পাইন বাদামে রয়েছে ৪.৫ গ্রাম প্রোটিন। বিভিন্ন রোগ প্রতিরোধে এটি সাহায্য করে ।

চিনা বাদাম

চিনাবাদামে প্রচুর পরিমানে প্রোটিনের পাশাপাশি রয়েছে বায়োটিন ও পুষ্টি উপাদান। প্রতি ৩৭ গ্রাম চিনাবাদামে থাকে ৯.৫ গ্রাম প্রোটিন। এটি শরীরের চর্বি কমাতে সাহায্য করে। ডায়াবেটিস প্রতিরোধে, ওজন কমাতে, স্মৃতিশক্তি বাড়াতে ও দেহের কোষ রক্ষা করতে এ বাদাম গুরুত্বপূর্ণ। এছাড়া  এই বাদামে থাকা অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট ক্যান্সার রোগকে প্রতিরোধ করে ।

ব্রাজিল বাদাম

ব্রাজিল বাদামে প্রোটিনের পাশাপাশি রয়েছে প্রচুর সেলেনিয়াম। সেলেনিয়াম খনিজটি অ্যান্টি অক্সিড্যান্ট হিসেবে কাজ করে। ব্রাজিল বাদামের মূল উৎস হলো আমাজন। প্রতিদিন অল্প পরিমানে এ বাদাম খেলে প্রয়োজনীয় সেলেনিয়াম পূরণ হয়। প্রতি ৩৩ গ্রাম ব্রাজিল বাদামে রয়েছে ৪.৭৫ গ্রাম প্রোটিন।