• ঢাকা
  • সোমবার, ০৪ মার্চ, ২০২৪, ২০ ফাল্গুন ১৪৩০
প্রকাশিত: জানুয়ারি ২১, ২০২১, ০৩:৫০ পিএম
সর্বশেষ আপডেট : জানুয়ারি ২১, ২০২১, ০৪:১৭ পিএম

জ্বরে কী করবেন, চিকিৎসকের পরামর্শ

জ্বরে কী করবেন, চিকিৎসকের পরামর্শ

শীতের তীব্রতা বাড়ছে। দেশজুড়ে শৈতপ্রবাহের আভাস দিয়েছে আবহাওয়াবিদরাও। এর সঙ্গে বাড়ছে শীতের রোগগুলোও। জ্বর হলো এর মধ্যে অন্যতম। জ্বর নিয়ে প্রয়োজনীয় কিছু কথা জানালেন বারডেম জেনারেল হাসপাতাল ও ইব্রাহিম মেডিকেল কলেজের অধ্যাপক ও রেসপেরেটরি মেডিসিন বিভাগের বিভাগীয় প্রধান ডা. মো. দেলোয়ার হোসেন।

ডা. মো. দেলোয়ার হোসেন বলেন, “প্রতি শীতেই জ্বর হয়। সাধারণ ঠান্ডা থেকেও এই জ্বর হতে পারে। একে আমরা ইনফ্লুয়েঞ্জা বলতে পারি। এর উপসর্গগুলো হচ্ছে একটু হাঁচি, কাশি কিংবা নাক দিয়ে পানি পড়া। অল্প মাত্রায় জ্বর আসে, কারো গলাব্যথাও হয়। দুই থেকে তিন দিন পর্যন্ত থাকে এই জ্বর।”

“সাধারণ কিছু ওষুধে ৪ থেকে ৫ দিনের মধ্যেই এটা এমনি সেরে যেতে পারে। এ সময় শুধু উপসর্গ অনুযায়ী কিছু ওষুধ নিতে হয়। যেমন সর্দি হলে নাক দিয়ে পানি পড়ে, সে ক্ষেত্রে অ্যান্টি-অ্যামেনিয়া জাতীয় ওষুধ নেওয়া যেতে পারে। জ্বর থাকলে প্যারাসিটামল খেলেই ভালো হয়ে যায়। যেহেতু এগুলো ভাইরাসজনিত কারণে হয় সেহেতু অ্যান্টি-বায়োটিকের কোনো প্রয়োজন নেই। শুধু গরম পানিতে গারগল করবেন, আদা দিয়ে গরম চা খাবেন।”

“তবে বর্তমান সময়ে যেহেতু করোনা রয়েছে, সে কারণে যেকোনো জ্বর-সর্দি-কাশিতে করোনা হতে পারে না তা বলা যাবে না। কেউ যদি করোনা রোগীর সংস্পর্শে এসে থাকেন এবং আপনি বাইরে গিয়েছেন, অপ্রস্তুত অবস্থায় এবং সেটি যদি আপনি নিশ্চিত না হন, এরপর যদি আপনার এমন উপসর্গ হয় সর্দি, কাশি, ঘ্রাণ পাচ্ছেন না, জ্বর আসছে, স্বাদ চলে গেছে, অবশ্যই করোনা পরীক্ষা করতে হবে। স্বাস্থ্যবিধি যা আছে অবশ্যই পালন করতে হবে।”