• ঢাকা
  • রবিবার, ২২ মে, ২০২২, ৭ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯
প্রকাশিত: ফেব্রুয়ারি ১০, ২০২১, ০১:২২ পিএম
সর্বশেষ আপডেট : মার্চ ১২, ২০২১, ০৬:৫২ এএম

পাউরুটিতে স্বাস্থ্যঝুঁকি

পাউরুটিতে স্বাস্থ্যঝুঁকি

সকালের নাশতার টেবিলে প্রতিদিন থাকছে পাউরুটি। কারণ আপনার শিশু পাউরুটি খুব পছন্দ করে। এমনকি টিফিনেও পাউরুটির সঙ্গে জেলি মিশিয়ে নিয়ে যায় স্কুলে। শুধু ছোটরা নয়, বড়রাও পাউরুটির টোস্ট, স্যান্ডউইচ কিংবা জ্যাম বা মাখন লাগিয়ে খেতে অপছন্দ করেন না। এ খাবারটি সহজেই বানিয়ে নেওয়া যায় তাই সময় বাঁচাতেও পাউরুটি খান অনেকে।

বিশেষজ্ঞরা বলছেন, পাউরুটি নাশতার টেবিলে ভালো খাবার হলেও প্রতিদিন খেলে আমাদের স্বাস্থ্যের জন্য ক্ষতিকর। শরীরে বেশকিছু মরণব্যাধি রোগ বাসা বাঁধে।

প্রতিদিন পাউরুটি খেলে ওজন বাড়ে। গবেষণায় বলা হয়, পাউরুটি খাওয়ার পর শর্করার মাত্রা বৃদ্ধি পায়। কার্বোহাইড্রেটের পরিমাণও বাড়তে থাকে। এতে ওজনও বেড়ে যায়।

প্রয়োজনীয় পুষ্টি পাওয়া যায় না। পাউরুটি খেলে পেট ভরে যায় কিন্তু পুষ্টি মেলে না। ক্ষুধার্ত সন্তান প্রতিদিন পাউরুটি খেলে অপুষ্টির শিকার হয়। বয়স্কদের ক্ষেত্রেও একই সমস্যা হতে পারে।

প্রতিদিন পাউরুটি খেলে রক্তে শর্করার মাত্রা বেড়ে যায়। এর ফলে ডায়াবেটিসের ঝুঁকিও বাড়ে। ডায়াবেটিসের সঙ্গে শরীরে আরও অনেক রোগ বেধে যায়।

উচ্চ রক্তচাপের সমস্যাও বেড়ে যায়। মানসিক অবসাদ বা ডিপ্রেশন আমেরিকান জার্নাল অফ ক্লিনিকাল নিউট্রিশন-এ প্রকাশিত রিপোর্ট অনুযায়ী, পাউরুটি খেলে শরীরে অনেক পরিবর্তন হয়। ফলে বিশেষ কিছু হরমোনের ক্ষরণও বেড়ে যায়। মানসিক অবসাদের মতো সমস্যাও বেড়ে যায় অনেক গুণ।

শরীরে কোলেস্টেরলের মাত্রাও বাড়িয়ে দেয় পাউরুটি। গবেষণায় দেখা গেছে, পাউরুটি বা ময়দা দিয়ে প্রস্তুত যেকোনও খাবার নিয়মিত খেলে শরীরে কোলেস্টেরলের মাত্রা অনেকটাই বেড়ে যায়। কোলেস্টরল বাড়লে হার্টের নানা সমস্যার ঝুঁকি বাড়বে।

প্রতিদিন পাউরুটি খেলে হজমেরও সমস্যা হতে পারে। বিশেষ করে সন্ধ্যার পর পাউরুটি না খাওয়ার পরামর্শ দেন চিকিৎসকরা।

সূত্র: মেইল অনলাইন