• ঢাকা
  • রবিবার, ২৬ সেপ্টেম্বর, ২০২১, ১১ আশ্বিন ১৪২৮
প্রকাশিত: আগস্ট ৩, ২০২১, ১২:৫৮ এএম
সর্বশেষ আপডেট : আগস্ট ২, ২০২১, ০৬:৫৮ পিএম

গবেষণা

টিকা নেয়াদের মৃত্যুহার ০.৩ শতাংশ

টিকা নেয়াদের মৃত্যুহার ০.৩ শতাংশ
প্রতীকী ছবি

অন্যান্য দেশের মতো বাংলাদেশেও করোনাভাইরাস (কোভিড-১৯)—টিকা বিভিন্ন জটিলতা ও মৃত্যুর ঝুঁকি কমাচ্ছে।

টিকা নেয়ার পরো যে কেউ করোনাভাইরাসে সংক্রমিত হতে পারেন। কিন্তু সে ক্ষেত্রে তাদের ঝুঁকি টিকা না নেয়া ব্যক্তিদের তুলনায় কম। সরকারের রোগতত্ত্ব, রোগনিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা ইনস্টিটিউটের (আইইডিসিআর) এক গবেষণায় এ চিত্র পাওয়া গেছে।

রোববার (১ আগস্ট) রাতে ওই গবেষণা প্রকাশিত হয়েছে।

গবেষণায় দেখা গেছে, করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন কিন্তু টিকা নেননি, এমন ব্যক্তিদের ৩ শতাংশের নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে (আইসিইউ) ভর্তি হওয়ার প্রয়োজন হয়েছিল।

পূর্ণ ডোজ টিকা নেয়ার পর আক্রান্ত ব্যক্তিদের মধ্যে আইসিইউতে ভর্তি হতে হয়েছিল ১ শতাংশের কম রোগীকে। টিকা না নেয়া রোগীদের ৩ শতাংশ মৃত্যুবরণ করেছেন, আর টিকা নেয়া রোগীদের মধ্যে মৃত্যু হয়েছিল শূন্য দশমিক ৩ শতাংশের।

গবেষণায় দেখা গেছে, টিকা না নেয়া আক্রান্ত রোগীদের মধ্যে শ্বাসপ্রশ্বাসজনিত জটিলতার হার ছিল ১১ শতাংশ। দুই ডোজ টিকা নেয়া ব্যক্তিদের ক্ষেত্রে এই হার ছিল ৪ শতাংশ।

অসংক্রামক রোগে আক্রান্ত টিকা না নেয়া রোগীদের মধ্যে শ্বাসপ্রশ্বাসের জটিলতার হার দুই ডোজ টিকা নেয়ার পর আক্রান্ত ব্যক্তিদের তুলনায় ১০ শতাংশ বেশি।

করোনায় আক্রান্ত ব্যক্তিদের মধ্যে যাদের উপসর্গ জটিল, তাদেরই হাসপাতালে ভর্তি হতে হয়।

আইইডিসিআরের গবেষণায় দেখা গেছে, টিকা না নেয়া রোগীদের মধ্যে হাসপাতালে ভর্তির হার ২৩ শতাংশ। আর দুই ডোজ টিকা নিয়ে আক্রান্ত রোগীদের ক্ষেত্রে এই হার ছিল ৭ শতাংশ।

করোনায় আক্রান্ত রোগীদের মধ্যে যারা অন্যান্য অসংক্রামক রোগে আক্রান্ত এবং টিকা নেননি, তাদের ক্ষেত্রে হাসপাতালে ভর্তির হার ৩২ শতাংশ। আর দুই ডোজ টিকা নেওয়া ব্যক্তিদের ক্ষেত্রে এই হার ছিল ১০ শতাংশ।

জাগরণ/এমএ/এসএসকে