• ঢাকা
  • বুধবার, ২০ জানুয়ারি, ২০২১, ৭ মাঘ ১৪২৭
প্রকাশিত: আগস্ট ১৯, ২০১৯, ০৫:০২ পিএম
সর্বশেষ আপডেট : আগস্ট ১৯, ২০১৯, ০৫:০২ পিএম

‘বিয়ের জন্য আমি রাজি নই’ চিরকুট লিখে তরুণীর আত্মহত্যা

কুলাউড়া (মৌলভীবাজার) সংবাদদাতা 
‘বিয়ের জন্য আমি রাজি নই’ চিরকুট লিখে তরুণীর আত্মহত্যা

‘আমি খুব ভালো ছাত্রী ছিলাম। আমার আব্বা, আম্মা ও ভাই আমাকে খুব আদর করেন ভালোবাসেন। আমার মা-বাবা আমাকে তাদের পছন্দে বিয়ে দিতে চাইছিলেন। কিন্তু আমি বিয়ের জন্য রাজি নই। আবার আমি বিয়েতে অমত করলে মা-বাবা কষ্ট পাবেন। আমি মা-বাবাকে কষ্ট দিতে চাই না। আত্মহত্যা মহাপাপ। তবে বেঁচে থাকা আমার জন্য অসম্ভব তাই মৃত্যুর পথ বেছে নিয়েছি। ওপারে আমি জাহান্নামের জন্য জ্বলবো। তবুও আমাকে সবাই মাফ করে দিয়েন খুশি হবো।’ চিরকুট লিখে শারমিন আক্তার (১৭) নামে এক তরুণী আত্মহত্যা করে।

সে মৌলভীবাজারের কুলাউড়া উপজেলার হাজিপুর ইউনিয়নের কালিয়াটিলা গ্রামের লাল মিয়ার মেয়ে ও শমসেরনগর সুজা মেমোরিয়াল কলেজের দ্বাদশ শ্রেণীর ছাত্রী। চিরকুটে আরও লিখে, ‘আমার জীবনের ১৬টি বছর খুব সুন্দর ছিলো। কিন্তু ১৭তম বছরে অনেক কিছু ঘটে গেছে।’

সোমবার (১৯ আগস্ট) সকাল সাড়ে ৯টার দিকে পুলিশ তার নিজ বাড়ি থেকে মরদেহ উদ্ধার করে। 

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, পরিবারের অজান্তে সে ঘরের ফ্যানের সাথে ওড়না পেঁছিয়ে আত্মহত্যা করে শারমিন। গলায় ফাঁস দিয় ঝুলতে দেখে পুলিশকে খবর দিলে তার লাশ উদ্ধার করে। শারমিনের শেষ লেখা চিরকুটটি পুলিশ উদ্ধার করে।

উপরোক্ত চিরকুটটির বিষয়টি জানিয়ে স্থানীয় হাজিপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আব্দুল বাছিত বাচ্চু বলেন, ধারণা করছি, এটা আত্মহত্যা। 

লাশ উদ্ধারের সত্যতা নিশ্চিত করেন কুলাউড়া থানার ওসি ইয়ারদৌস হাসান।

কেএসটি
 

আরও পড়ুন