• ঢাকা
  • বুধবার, ০৫ অক্টোবর, ২০২২, ২০ আশ্বিন ১৪২৯
প্রকাশিত: মার্চ ২৭, ২০২২, ০৮:১২ পিএম
সর্বশেষ আপডেট : মার্চ ২৭, ২০২২, ০২:১২ পিএম

আ. লীগ নেতা টিপুকে হত্যায় যে চুক্তি করেন মাসুম

আ. লীগ নেতা টিপুকে হত্যায় যে চুক্তি করেন মাসুম

রাজধানীর শাহজাহানপুরে আওয়ামী লীগ নেতা জাহিদুল ইসলাম টিপু এবং কলেজছাত্রী প্রীতি হত্যার ঘটনায় মো. মাসুম ওরফে আকাশ নামে এক শুটারকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। তিনি নিজের নামে থাকা আগের একাধিক মামলা থেকে অব্যাহতি ও বিশেষ সুবিধা পাওয়ার চুক্তিতে এ হত্যাকাণ্ড চালান।

রবিবার (২৭ মার্চ) দুপুরে ডিএমপি মিডিয়া সেন্টারে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানান ডিএমপির গোয়েন্দা (ডিবি) বিভাগের অতিরিক্ত কমিশনার এ কে এম হাফিজ আক্তার।

মাসুমকে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে পাওয়া তথ্যের বরাত দিয়ে পুলিশের এই কর্মকর্তা বলেন, ঘটনার তিন দিন আগে টিপুকে হত্যার নির্দেশ পান মাসুম। তিনি হত্যাকাণ্ড ঘটিয়েছেন বলে স্বীকার করেছেন। তবে এ ঘটনার নেপথ্যে থাকা ব্যক্তি ও কারণ সম্পর্কে জানতে আরও সময় লাগবে। ঘটনার আগের দিনও মাসুম তার সহযোগীকে নিয়ে টিপুকে হত্যার উদ্দেশে এজিবি কলোনিতে অবস্থান করছিলেন। সেদিন লোকজন বেশি থাকায় পরদিন হত্যাকাণ্ড সম্পন্ন করেন তারা। ওই দিন (২৪ মার্চ) টিপুর গাড়ি অনুসরণ করে শাহজানপুরে রাস্তায় যানজটে টিপুকে লক্ষ্য করে এলোপাতাড়ি গুলি চালান মাসুম।

হাফিজ আক্তার আরও বলেন, এরপর মাসুম জয়পুরহাট পালিয়ে যান। বিভিন্ন তথ্য-উপাত্তের ভিত্তিতে শনিবার (২৬ মার্চ) রাতে জয়পুহাট থেকে মাসুমকে গ্রেপ্তার করা হয়।

টিপু হত্যায় কত টাকার চুক্তি করা হয়-এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, টাকার অঙ্ক জানা যায়নি। তবে মাসুমের নামে থাকা আগের বেশ কিছু মামলা থেকে তাকে অব্যাহতিসহ বিশেষ সুবিধা পাওয়ার চুক্তিতে এ হত্যাকাণ্ড করা হয়।

উল্লেখ্য, গত বৃহস্পতিবার (২৪ মার্চ) রাত সোয়া ১০টার দিকে শাহজাহানপুর মানামা ভবনের সামনে পৌঁছালে দুর্বৃত্তরা টিপুর ওপর হামলা করে। তাকে পরিকল্পিতভাবে হত্যার উদ্দেশ্যে আগ্নেয়াস্ত্র দিয়ে এলোপাতাড়ি গুলি চালায়। এ ঘটনায় গুলিবিদ্ধ হয়ে টিপু ও রিকশায় থাকা (যাত্রী) সামিয়া আফনান প্রীতি (২২) নামে এক কলেজছাত্রী নিহত হন। আর গুলিতে আহত হন টিপুর গাড়িচালক মনির হোসেন মুন্না (৩২)।

পরে গত শুক্রবার (২৫ মার্চ) সকালে নিহতের স্ত্রী কাউন্সিলর ফারহানা ইসলাম ডলি বাদী হয়ে মামলা করেন।

স্থানীয় এলাকাবাসী, পুলিশ ও নিহতের পরিবারের সদস্যরা জানান, নিহত টিপু মতিঝিল থানা আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক ছিলেন। পাশাপাশি তিনি মতিঝিল আইডিয়াল স্কুল অ্যান্ড কলেজের পরিচালনা পর্ষদের সদস্যও ছিলেন।

টিপুর স্ত্রী ফারজানা ইসলাম ডলি আওয়ামী লীগ সমর্থিত ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের (ডিএসসিসি) সংরক্ষিত নারী কাউন্সিলর।

ইউএম