• ঢাকা
  • শনিবার, ২৩ অক্টোবর, ২০২১, ৮ কার্তিক ১৪২৮
প্রকাশিত: সেপ্টেম্বর ৩০, ২০২১, ০৬:০২ পিএম
সর্বশেষ আপডেট : সেপ্টেম্বর ৩০, ২০২১, ১২:০২ পিএম

বিমান ও পর্যটন প্রতিমন্ত্রীঃ

আগামী ১৫ বছরে বাংলাদেশের এভিয়েশন সেক্টরের প্রবৃদ্ধি হবে ৩ গুণ

আগামী ১৫ বছরে বাংলাদেশের এভিয়েশন সেক্টরের প্রবৃদ্ধি হবে ৩ গুণ
বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী মোঃ মাহবুব আলী এমপি। ছবি- জাগরণ।

বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী মোঃ মাহবুব আলী এমপি বলেছেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার গতিশীল নেতৃত্বে দেশের এভিয়েশন শিল্প দ্রুত প্রবৃদ্ধি অর্জন করছে।আগামী ১৫ বছরে বাংলাদেশের এভিয়েশন সেক্টরের প্রবৃদ্ধি হবে প্রায় তিনগুণ । ২০১৭ সাল পর্যন্ত বাংলাদেশের এভিয়েশন মার্কেট প্রায় দ্বিগুণ বৃদ্ধি পেয়েছে এবং বিগত ১০ বছরে যাত্রী এবং কার্গো পরিবহন প্রায় ১০ শতাংশ হারে বেড়েছে। এভিয়েশন সেক্টরের বিপুল প্রবৃদ্ধির এই সম্ভাবনাকে কাজে লাগানো সম্ভব হলে  বিপুল কর্মসংস্থানের সুযোগের পাশাপাশি দেশের আর্থ-সামজিক অবস্থার উন্নয়ন হবে।

আজ ইউএস বাংলা এয়ারলাইন্সের যশোর-চট্টগ্রাম এবং যশোর-কক্সবাজার রুটে সরাসরি ফ্লাইট উদ্বোধন উপলক্ষে যশোর বিমানবন্দরে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে এ কথা বলেন তিনি। এরপর প্রতিমন্ত্রী সৈয়দপুর বিমানবন্দরে পৃথক আরেকটি অনুষ্ঠানে ইউএস বাংলা এয়ারলাইন্সের সৈয়দপুর- চট্টগ্রাম রুটে সরাসরি ফ্লাইট উদ্বোধন করেন।

তিনি আরো বলেন, বাংলাদেশের এভিয়েশন খাতকে গুরুত্ব দিয়ে এর উন্নয়নে কাজ করছে বর্তমান সরকার। মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর সুদৃঢ় নেতৃত্ব ও নির্দেশনায় দেশের এভিয়েশন খাত ধারাবাহিক ভাবে বিকশিত হয়ে উন্নীত হচ্ছে আন্তর্জাতিক মানে। উন্নয়ন ও সমৃদ্ধির মধ্য দিয়ে বাড়ছে দেশের আকাশ পথে সংযোগের পরিধি। সারাদেশে বিমান পরিবহণ অবকাঠামোর যুগোপযোগী উন্নয়ন ও সম্প্রসারণ, যাত্রীসেবা বৃদ্ধি, কারিগরি ও জন দক্ষতা উন্নয়ন এবং নিরাপদ ও সুষ্ঠু বিমান চলাচল নিশ্চিত করার লক্ষ্যে কাজ চলছে। দেশের সকল অভ্যন্তরীণ ও আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে চলমান রয়েছে বিভিন্ন উন্নয়ন কাজ। এই ধারাবাহিকতায় ভবিষ্যতে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনা ক্রমে যশোর বিমানবন্দরকেও আন্তর্জাতিক মানে উন্নীত করা হবে। দেশের কৃষি পণ্য আন্তর্জাতিক বাজারে রপ্তানি করতে কার্গো উড়োজাহাজ কেনার পরিকল্পনা রয়েছে আমাদের। এর ফলে যশোরের ফুল ও কৃষি পণ্য রপ্তানি হবে বিভিন্ন দেশে।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, বর্তমানে সরকারের আন্তরিকতায় দেশে ব্যবসা ও বিনিয়োগের সবচেয়ে ভাল পরিবেশ বিরাজ করায় বেসরকারি উদ্যোগতাগণ বিনিয়োগে ভরসা পাচ্ছেন, স্বস্তি বোধ করছেন। অন্যান্য ব্যবসার পাশাপাশি এভিয়েশন খাতেও বিনিয়োগ বৃদ্ধি পেয়েছে। রাস্ট্রায়ত্ত্ব এয়ারলাইন্সের পাশাপাশি আমাদের দুটি বেসরকারি এয়ারলাইন্সও ব্যবসায় ভাল করছে। তাদের সেবার মাধ্যমে অর্জন করেছে গ্রাহকদের আস্থা। দিনে দিনে তারা আন্তর্জাতিক ও অভ্যন্তরীণ রুটে তাদের গন্তব্যের সংখ্যা বৃদ্ধি করছে। বাড়ছে তাদের ব্যবসার পরিধি।

ইউ এস বাংলা এয়ারলাইন্স  বিভিন্ন জেলার মধ্যে আকাশ পথে যোগাযোগ স্থাপন করার জন্য নতুন নতুন রুট চালু করার কার্যক্রম গ্রহণ করায় তাদের ধন্যবাদ জানিয়ে মাহবুব আলী বলেন, আকাশ পথে এই যোগাযোগ বৃদ্ধির ফলে মানুষের সহজ ও আরাদায়ক ভ্রমণের সুযোগ তৈরীর পাশাপাশি তা আঞ্চলিক ব্যবসা-বাণিজ্যের প্রসারেও ভূমিকা রাখবে, এই অঞ্চলের এবং সংশ্লিষ্ট গন্তব্যের পর্যটন শিল্পকেও উজ্জীবিত করতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে। আঞ্চলিক কানেক্টিভিটি বৃদ্ধির এই উদ্ভাবনী ধারণার জন্য আমি ইউ এস বাংলা এয়ারলাইন্স কর্তৃপক্ষকে আন্তরিক ধন্যবাদ জানাই।  আমি তাদের এই উদ্যোগের সার্বিক সাফল্য কামনা করি। আমি আশা করি ইউ এস বাংলা এয়ারলাইন্স তাদের ব্যবসায় সফলতা বৃদ্ধির মাধ্যমে দেশের জাতীয় অর্থনীতিতে এভিয়েশন ও পর্যটন শিল্পের ভূমিকা বৃদ্ধিতে গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখবে। 

ইউএস বাংলা এয়ারলাইন্সের ব্যবস্থাপনা পরিচালক আবদুল্লাহ আল মামুনের সভাপতিত্বে যশোরের অনুষ্ঠানে আরো বক্তব্য রাখেন সংসদ সদস্য শেখ আফিল উদ্দিন, আনোয়ারুল আজিম আনার, মো: নাসির উদ্দিন, বীর শ্রেষ্ঠ মতিউর রহমান বিমান ঘাঁটির এয়ার অধিনায়ক এয়ার ভাইস মার্শাল মোঃ শাফকাত আলী, পুলিশের খুলনা রেঞ্জের ডিআইজি ড. খন্দকার মহিদ উদ্দিন, জেলা প্রশাসক মোঃ তমিজুল ইসলাম খান, পুলিশ সুপার প্রলয় কুমার জোয়ার্দার প্রমূখ। সৈয়দপুরের  বক্তব্য রাখেন সৈয়দপুর উপজেলার চেয়ারম্যান মোকসেদুল মমিন, পৌরসভার চেয়ারম্যান রাফিকা আক্তার জাহান, নীলফামারী জেলার পুলিশ সুপার মোখলেসুর রহমান ও জেলা প্রশাসক হাফিজুর রহমান চৌধুরী প্রমূখ।

জাগরণ/এসকেএইচ