• ঢাকা
  • মঙ্গলবার, ২৭ সেপ্টেম্বর, ২০২২, ১১ আশ্বিন ১৪২৯
প্রকাশিত: আগস্ট ২১, ২০২২, ১২:১৬ এএম
সর্বশেষ আপডেট : আগস্ট ২০, ২০২২, ০৬:১৬ পিএম

নিম্নচাপে উত্তাল সাগর

৫ মরদেহ উদ্ধার, নিখোঁজ দুই শতাধিক

৫ মরদেহ উদ্ধার, নিখোঁজ দুই শতাধিক
সংগৃহীত ছবি

নিম্নচাপের কারণে বৈরী আবহাওয়ায় উপকূলীয় জেলাগুলোতে অন্তত ২৪ টি ট্রলার ডুবির ঘটনা ঘটেছে। এতে জীবিত উদ্ধার করা হয়েছে ১৭৯ জনকে আর নিখোঁজ রয়েছেন কমপক্ষে ২২০ জন জেলে। নিখোঁজ জেলেদের উদ্ধারে অভিযান চালাচ্ছে কোস্টগার্ড।

নোয়াখালী ও কক্সবাজার থেকে ৩ জেলের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। এ নিয়ে দুই দিনে ৫ জনের মরদেহ উদ্ধার করা হল।

নিম্নচাপের কারণে উত্তাল সাগর। পটুয়াখালী, বরগুনা, নোয়াখালী, কক্সবাজারসহ উপকূলীয় জেলাগুলোতে প্রবল ঢেউয়ের তোড়ে একাধিক ট্রলারডুবির ঘটনা ঘটেছে।

পটুয়াখালীর কুয়াকাটায় অন্তত দেড়শ জেলেসহ ১০টি মাছ ধরার ট্রলার ডুবে যায় সাগরে। এর মধ্যে অনেককে উদ্ধার করা গেলেও, নিখোঁজ রয়েছেন ৩৮ জেলে। শুক্রবার দুপুর থেকে মধ্যরাত পর্যন্ত বঙ্গোপসাগরের বিভিন্ন পয়েন্টে এই ট্রলার ডুবির ঘটনা ঘটে।

বরগুনায় ৭টি ট্রলার ডুবিতে নিখোঁজ রয়েছেন শতাধিক (১০৫)। সদর এলাকার নলী গ্রামের শানুর মিয়ার ট্রলার ডুবে নিখোঁজ হন ১৭ জেলে। তাদের উদ্ধারে অভিযান চলছে কোস্টগার্ড সদস্যদের। এর আগে, শুক্রবার ডুবে যাওয়া দুটি ট্রলারের ১৯ জনকে উদ্ধার করেন স্থানীয় জেলেরা।

শুক্রবার (২০ আগস্ট) রাতে কক্সবাজারে ১৯ জেলে নিয়ে সাগরে ডুবে যায় এফবি মায়ের দোয়া নামে মাছ ধরার ট্রলার। পরে কোস্টগার্ড সদস্যরা ১৬ জনকে জীবিত উদ্ধার করলেও এখনো খোঁজ নেই ৩ জনের।

বৈরী আবহাওয়ায় শুক্রবার (২০ আগস্ট) নোয়াখালীর হাতিয়া উপজেলায় এমভি সিরাজ নামে মাছ ধরার একটি ট্রলার ডুবির ঘটনায় শনিবার উদ্ধার করা হয় নিখোঁজ একজনের মরদেহ। এ নিয়ে নোয়াখালীতে উদ্ধার হলো তিনজনের মরদেহ।

দুর্যোগপূর্ণ আবহাওয়ার কারণে হাতিয়ায় সব ধরনের নৌযান চলাচল বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। নিম্নচাপের কারণে সমুদ্র বন্দরগুলোতে ৩ নম্বর সতর্ক সংকেত বহাল রয়েছে।

উত্তরপশ্চিম বঙ্গোপসাগরে অবস্থানরত স্থল গভীর নিম্নচাপটি ভারতের পশ্চিমবঙ্গ-উত্তর ওড়িশা উপকূল অতিক্রম করেছে। তবে এটি এখনও শক্তিশালী অবস্থায় রয়েছে। সমুদ্র বন্দরসমূহে জারি রয়েছে ৩ নম্বর স্থানীয় সতর্ক সংকেত।

আবহাওয়া অফিসের তথ্য মতে, রোববার থেকে ঢাকাসহ সারা দেশে আবারো বাড়তে পারে গরমের তীব্রতা।

বঙ্গোপসাগরে অবস্থানরত নিম্নচাপটি স্থল গভীর নিম্নচাপে পরিণত হয়ে বর্তমানে ভারতের ঝাড়খণ্ডে অবস্থান করছে। তবে নিম্মচাপটি আরো উত্তরপশ্চিম দিকে অগ্রসর হয়ে দুর্বল হয়ে যাওয়ার পূর্বাভাস দিয়েছে আবহাওয়া অধিদফতর।

আবহাওয়া অফিস বলছে, দেশের উপকূলীয় এলাকায় ৪০ থেকে ৫০ কিলোমিটার বেগে বৃষ্টিসহ ঝড়ো হাওয়া বয়ে যেতে পারে। নিম্নাঞ্চলে হতে পারে স্বাভাবিকের চেয়ে ২ থেকে ৪ ফুট উচ্চতার জলোচ্ছ্বাস।দেশের সমুদ্রবন্দর সমূহে তিন নম্বর সতর্ক সংকেত জারি রয়েছে।

ঢাকা, রাজশাহী, বরিশাল, চট্টগ্রাম এলাকার নদী বন্দরসমূহে ২ নম্বর এবং দেশের দক্ষিণাঞ্চলের নদীবন্দরসমূহে ১ নম্বর সতর্ক সংকেত জারি রয়েছে।

 ২১ আগস্ট (রোববার) থেকে রাজধানীসহ সারা দেশে আবারও বাড়তে পারে গরমের তীব্রতা।

বর্তমানে সিলেট বিভাগের ওপর দিয়ে মৃদু তাপপ্রবাহ বয়ে যাচ্ছে। তা আর কয়েকদিন অব্যাহত থাকতে পারে।

জাগরণ/পরিবেশ/এসএসকে/কেএপি/এমএ