• ঢাকা
  • রবিবার, ২২ মে, ২০২২, ৭ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯
প্রকাশিত: ফেব্রুয়ারি ২, ২০২১, ১২:২১ পিএম
সর্বশেষ আপডেট : ফেব্রুয়ারি ২, ২০২১, ০৬:৩২ এএম

পোশাকে ফাল্গুনের ভালোবাসা

পোশাকে ফাল্গুনের ভালোবাসা

ঋতুরাজ বসন্তের বার্তা নিয়ে উপস্থিত হয় ফাগুন। শীতের আমেজ শেষে প্রকৃতি সাজে এক নতুন রূপে। দখিনা হাওয়া উষ্ণতা ছড়ায়। রঙিন হয়ে উঠে মানুষের মনও।

ঋতুরাজকে বরণ করতে বিভিন্ন ফ্যাশন হাউসগুলোও সাজে নতুনভাবে। নানা রঙের বাহারে সাজানো হয় ফ্যাশনেবল পোশাকগুলো। ছোট-বড় সবার জন্যই থাকে এই আয়োজন। এবারও ভিন্ন নয়, দেশের ফ্যাশন হাউসগুলো ইতিমধ্যেই পয়লা ফাল্গুন বরণে প্রস্তুতি নিয়েছে। সে সঙ্গে ভালোবাসা দিবসের জন্যও আয়োজন থাকছে। পয়লা ফাল্গুনের পরদিনই ভালোবাসা দিবস। তাই পোশাক ও সাজে ফাগুন আর ভালোবাসার রঙের ছোঁয়া পাওয়া যায় একই সঙ্গে।

বিশ্ব রঙ

ফ্লোরাল মোটিফে মূলত ট্র্র্যাডিশানাল পোশাকই থাকছে বিশ্ব রঙের এবারের কালেকশনে। সঙ্গে রয়েছে ফিউশনের নান্দনিক সম্ভার। গোল্ডেল, গেরুয়া, পেস্ট, পিচ, লাইট গ্রিনের সঙ্গে মেশানো হয়েছে লেমন হলুদ রঙের পোশাক। কমলা, টিয়া, ফিরোজা, ম্যাজেন্টা ও লাল রঙের মিশ্রণেও পোশাকগুলো হয়ে উঠেছে আকর্ষণীয়।

সুতি এবং ভিসকল বা লিলেন কাপড় ব্যবহার করা হয়েছে। শাড়ির ক্ষেত্রে ব্যবহার করা হয়েছে সুতি এবং হাফ সিল্ক।

মেয়েদের পোশাকে থাকছে শাড়ি, থ্রি-পিস, সিঙ্গেল কামিজ, টপস, আনস্টিস ড্রেস, পালাজ্জো, সিঙ্গেল ওড়না ও ব্লাউজ। ছেলেদের পোশাকে থাকছে পাঞ্জাবি, শার্ট, টি-শার্ট ও ফতুয়া। বাচ্চাদের জন্যও রয়েছে শাড়ি, ফ্রক, কামিজ, টপস, পাঞ্জাবি ও শার্ট। যুগলদের জন্য থাকছে একই ডিজাইনের পোশাক।

 

লা রিভ

দেশীয় ফ্যাশন হাউস লা রিভের কালেকশন সাজিয়েছে ফাল্গুন ও ভ্যালেন্টাইনের আমেজে। বাস্তবধর্মী বা সফিস্টিকেটেড ফ্যাশনের কালেকশন নিয়ে এসেছে এই হাউসটি। সে সঙ্গে থাকছে একুশে ফেব্রুয়ারি আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে বিশেষ আয়োজন।

লা রিভের প্রধান নির্বাহী পরিচালক মন্নুজান নার্গিস বলেন, “উজ্জ্বল কিন্তু চোখে শান্তি দেবে এমন রঙের প্রতি আমাদের আগ্রহ বেড়েছে। তাই এবারের ফাল্গুন-ভ্যালেন্টাইন কালেকশনে থাকছে ভিন্ন আয়োজন। যা বছরজুড়ে পরা যাবে।”

হলুদ, শ্যাওলা সবুজ, গেরুয়া, ছাই, গোলাপি, কমলা, মেরুন, কালো এবং নীল রং ব্যবহার হয়েছে পোশাকে। বসন্তের উজ্জল ফুল যেমন সূর্যমুখী, টিউলিপ, চেরি, পপির পাশাপাশি ইস্টার্ন বোটানিক, ফ্লোরাল টাইডাই ফর্ম, ফোক ফ্লোরাল এবং সবুজ পাতা নিয়ে পোশাকগুলো বানানো হয়েছে। এ ছাড়া অন্যতম আকর্ষণ হচ্ছে ট্রেন্ডি ইক্কাত প্রিন্ট।

কাপড়ে ব্যবহার হয়েছে ভিসকোস, ফেইলি, মসলিন, কটন, হাফ সিল্ক, এবং নিট।

মেয়েদের পোশাকে থাকছে এম্ব্রয়ডারি, ফ্রিল, প্যটার্ন ও লেয়ারে সাজানো সালোয়ার কামিজ, সিঙ্গেল কামিজ, নিট ও উভেন টিউনিক, শার্ট ও টি-শার্ট, ম্যাক্সি ড্রেস, গাউন ও শ্রাগ। কটন, হাফসিল্ক ও মসলিন শাড়ি। ছেলেদের জন্য থাকছে শর্ট ও ফুলহাতা শার্ট, ক্যাজুয়াল ও কমফোর্ট শার্ট, পোলো, টিশার্ট এবং সেমি ও ফিটেড পাঞ্জাবি, কাবলি সেট। এ ছাড়া শিশুদের জন্যেও থাকছে বিশেষ আয়োজন।