• ঢাকা
  • রবিবার, ২৬ সেপ্টেম্বর, ২০২১, ১১ আশ্বিন ১৪২৮
প্রকাশিত: মার্চ ২০, ২০২১, ০৩:৫৯ পিএম
সর্বশেষ আপডেট : মার্চ ২৩, ২০২১, ০৫:৪৮ এএম

কলার খোসা ঘষুন, চমৎকার সমাধান

কলার খোসা ঘষুন, চমৎকার সমাধান

কলা খাওয়ার উপকারিতা তো সবার জানা। কলার খোসার উপকারিতাও কি জানা আছে? যদি না জেনে থাকেন, তাহলে এই বিষয়েই জানাব আজকের আয়োজনে।

কলা বিশ্বের সর্বাধিক জনপ্রিয় ফল এবং সারা বিশ্বজুড়ে এটি খাওয়া হয়। একটি কলা কেবল আপনার ক্ষুধাই মেটায় না, আরও অনেক বেশি উপকার করে। এই মিষ্টি ফলটি আমরা সাধারণত এর খোসা ছাড়াই খেয়ে থাকি এবং তা ফেলে দিই। এখন থেকে এটি সংরক্ষণ করতে পারেন। কারণ, আপনার বিভিন্ন কাজে সমাধান দেবে কলার খোসা!

আঁচিল

শরীরে আঁচিল উঠেছে? ঘুমোতে যাওয়ার আগে আঁচিলের ওপরে একটি কলার খোসার টুকরো রাখুন এবং এটি ব্যান্ডেজ করে ঢেকে দিন। প্রতি রাতে এই কৌশলটি পুনরাবৃত্তি করুন। দেখবেন আঁচিলটি নিজ ইচ্ছায় শরীর থেকে সরে গেছে। এই কৌশলটি আপনাকে ডাক্তারের কাছে যাওয়া থেকে রেহাই দেবে এবং এটি ব্যথামুক্তও।

বলিরেখা

কলার খোসায় অ্যান্টি-অক্সিড্যান্ট থাকে, যা আপনার ত্বকে বিস্ময়কর কাজ করতে পারে। খোসাটির ভেতরের অংশ দিয়ে আপনার মুখে ঘষুন এবং মুখটি ভালো করে ধুয়ে ফেলার আগে আধ ঘণ্টা অপেক্ষা করুন। কিছুক্ষণ পর খেয়াল করুন, আপনার ত্বক ঝকঝকে দেখাচ্ছে।

সাদা দাঁত

হ্যাঁ, আপনি ঠিকই পড়ছেন। কলার খোসার ভেতরের অংশ আপনার দাঁত সাদা করতে পারে! কাঙ্ক্ষিত প্রভাব পেতে খোসা ছাড়ানোরও দরকার নেই। তবে সবচেয়ে সহজ কাজটি হলো,  খোসার ভেতরের অংশটি দাঁতে ঘষে নিন। এটি প্রতিদিন করুন। দুই সপ্তাহ পর ফলাফল দেখতে পাবেন।

শরীরের ক্ষত

শরীরের কোথাও ক্ষত দেখা দিলে কলার খোসা মেখে রাখুন। আবার কলার খোসা পানির মধ্যে সেদ্ধ করে সংক্রমিত জায়গা ধুয়ে ফেলুন। কয়েক দিন করলেই উপকার পাবেন।

গয়না পরিষ্কার

কলার খোসার ভেতনের অংশ দিয়ে চামড়ার জুতা, কাপড়, রুপার গয়না পরিষ্কার করুন। টেকসই ও মসৃণতা বাড়বে।

মশার কামড়

আপনি কি সেই লোকদের মধ্যে রয়েছেন, যাকে সব সময় মশার কামড়ে ধরে? তাহলে এই কৌশলটি আপনার জন্য। একটি কলার খোসা নিয়ে মশার কামড়ের ওপর ঘষুন। সঙ্গে সঙ্গেই কমে যাবে চুলকানি।

কোলেস্টেরল

আপনার কি উচ্চ কোলেস্টেরল আছে? আপনার ডায়েটে একটি কলার খোসা যুক্ত করার চেষ্টা করুন। খেতে অদ্ভুত লাগতে পারে তবে ফলের চেয়ে এতে বেশি তন্তু থাকে। খোসা খাওয়া কার্ডিওভাসকুলার রোগ প্রতিরোধেও সহায়তা করতে পারে।

ব্রণ

মুখের ব্রণ দূর করে কলার খোসা। এমনকি এই কৌশলে একবার ব্রণ সেরে গেলে তা আর ফিরেও  আসে না। খোসাটি মুখে ভালো করে ঘষে সারা রাত রেখে দিন। ব্রণের সমস্যা কাটবে।