• ঢাকা
  • শুক্রবার, ২৭ মে, ২০২২, ১৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯
প্রকাশিত: মে ৭, ২০২১, ০২:৩২ পিএম
সর্বশেষ আপডেট : মে ৭, ২০২১, ০৮:৪২ এএম

শপিং মল বনাম অনলাইন

শপিং মল বনাম অনলাইন

ঈদ কেনাকাটায় শপিং মলে যেমন ভিড় করছেন ক্রেতারা, তেমনি হিড়িক পড়েছে অনলাইন কেনাকাটায়ও। অনেকে বলেন কেনাকাটা মানেই মার্কেটে গিয়ে দেখেশুনে কিনতে হবে। অনেকেই আবার সেই কষ্ট পোহাতে নারাজ। তারা ঘরে বসেই বিভিন্ন সাইট ঘুরে পছন্দের জিনিসটি কিনে নিচ্ছেন। বলা বাহুল্য, কেনাকাটায় ক্রেতাদের এখন দুটি ভাগ হয়ে গেছে। কোন কেনাকাটা বেশি স্বাচ্ছন্দ্য তা একটু যাচাই করে নেওয়া যাক।


শপিং মলে বা মার্কেটে গিয়ে কেনাকাটায় সুবিধে অসুবিধে দুটোই রয়েছে। সুবিধে হলো পছন্দের পণ্যটি যাচাই-বাছাই করে কিনে নিতে পারছেন। ট্রায়াল দিয়ে কাপড়, জুতা কিংবা অন্য সামগ্রীগুলো কিনতে পারছেন। পছন্দের রং সামনে থেকে দেখে বেছে নিতে পারছেন। প্রডাক্টের কোয়ালিটিও দেখে নেওয়ার সুযোগ রয়েছে। সেই সঙ্গে দর-কষাকষি তো রয়েছেই। বিক্রেতাকে ইমপ্রেস করতে পারলে প্রায় অর্ধেক দামেই কিনতে পারছেন পছন্দের পণ্যটি। আবার অনেকগুলো পণ্য একই স্থানে পেয়ে যাচ্ছেন। ছোট-বড় সবার জন্য পোশাক, ঘরের জিনিসগুলো সবই মিলছে একই মার্কেটে। 


তবে শপিংমলে গিয়ে কেনাকাটার অসুবিধারও কিন্তু কম নয়। প্রথমত করোনা পরিস্থিতিতে নিরাপত্তা নিয়ে ঝুঁকি থাকে। সামাজিক দূরত্ব চাইলেও মানা সম্ভব হয় না। এরমধ্যে মার্কেট ঘুরে ক্লান্তিভাব তো রয়েছেই। এ ছাড়া অনেক পণ্য একসঙ্গে দেখলে পছন্দের সময় দ্বিধায় পড়তে হয়। সিদ্ধান্ত নেওয়ার সময় পাওয়া যায় না। পণ্যটি কিনে বাসায় এসে ভালো না লাগলে তা পাল্টে নিতে আবারও মার্কেট ছুটতে হয়। গাড়ি ভাড়ার কথাও এখানে বাদ দেওয়া যাবে না। বিভিন্ন শপিং মল ঘুরে বেড়াতে রিকশা কিংবা গাড়ির অতিরিক্ত ভাড়াও পকেট থেকেই গুনতে হয়।

 

অন্যদিকে যদি অনলাইনে কেনাকাটার দিকে তাকাই, এখানেও সুবিধে অসুবিধে দুটোই রয়েছে। সুবিধে হলো অনলাইনের কেনাকাটায় স্বাস্থ্য সুরক্ষা তুলনামূলক বেশি। ঘরে বসেই পছন্দের যে কোনও পণ্য কিনে নিতে পারছেন ক্রেতারা। বর্তমান সময়ে সবাই অনলাইনে প্রডাক্ট বিক্রি করে থাকে। তাই অনলাইনে কিনে সময়ও বাঁচাতে পারেন। বিভিন্ন সাইটে কিংবা বিভিন্ন ব্যান্ড ঘুরে পছন্দ করার সুযোগও রয়েছে। অতিরিক্ত ভাড়ার কথাও চিন্তা করতে হয় না। কেননা, নির্দিষ্ট পরিমাণ ডেলিভারি চার্জেই দেশের যেকোনও স্থানে পণ্য পৌঁছে দেওয়ার ব্যবস্থা রাখে প্রতিষ্ঠানগুলো।

 

অসুবিধাগুলোর দিকে নজর দিলে দেখা যায়, অনলাইন কেনাকাটায় দক্ষ না হলে ঠকে যাওয়ার ভয় থাকে। নির্ভরশীল প্রতিষ্ঠান থেকে প্রডাক্ট না কিনে অন্য যেকোনও পেইজ থেকে কিনতে গেলে ক্রেতাদের হিমশিম খেতে হয়। প্রডাক্টের দাম অনুযায়ী মান ভালো হয় না। কিংবা ডেলিভারি নিয়েও ভোগান্তি পোহাতে হয়। এছাড়া প্রডাক্ট ডেলিভারির সময় অর্ডার করা পণ্যটির ছবি সঙ্গে মিলিয়ে না নিলে কিংবা পছন্দ না হলে পরে তা পাল্টে নিতে ক্রেতাদের রীতিমত হেনস্তার শিকার হতে হয়। এক্ষেত্রে রিভিউ দেখে প্রডাক্ট অর্ডার করাই উত্তম। অনেক সময় অ্যাডভান্স টাকাও দিতে হয় বুকিংয়ের জন্য়। যা অধিকাংশ ক্রেতাদের কাছেই আপত্তিকর।


ছোট ছোট এমন অনেক সুবিধা-অসুবিধা পেরিয়েই কেনাকাটার সারতে হয় ক্রেতাদের। কোনটি উত্তম, এই বিশ্লেষণে না গিয়ে নিজের সুবিধা মতোই কেনাকাটার পার্টটা চুকিয়ে নিন অনলাইনে কিংবা শপিংমলে গিয়ে।