• ঢাকা
  • সোমবার, ২১ জুন, ২০২১, ৮ আষাঢ় ১৪২৮
প্রকাশিত: মে ১১, ২০২১, ০৯:৩৬ এএম
সর্বশেষ আপডেট : মে ১১, ২০২১, ১০:১৮ এএম

ঈদের আগে ঘরকে প্রস্তুত করুন

ঈদের আগে ঘরকে প্রস্তুত করুন

রমজানের শেষ মুহূর্ত মানে ঈদের প্রস্তুতি। পরিবারের জন্য নতুন পোশাকের সঙ্গে ঘরকেও নতুন করে সাজাতে হয়। কিংবা পুরোনো ঘরকেই নতুন রূপে সাজিয়ে নিতে হয়। ঈদ আনন্দ উপভোগ করতে প্রস্তুতি এখন থেকেই শুরু হয়ে গেছে। কেনাকাটা প্রায় শেষ, এবার ঘরকে প্রস্তুত করা পালা। করোনার এই সময়ে ঘরকে আরও বাড়তি যত্ন করতে হয়। 

অনেক কাজের ভিড়ে গুলিয়ে যাচ্ছেন কীভাবে ঘরকে সাজিয়ে নিবেন? এর জন্য পরিকল্পনা করে নিন। সেই পরিকল্পনাগুলোই জানাব আজকের আয়োজনে।

  • ঘরকে পরিস্কার করতে নির্দিষ্ট একটি দিন ঠিক করে নিন। সকাল থেকেই শুরু করুন। সবার আগে পুরোনো ঝুল ঝেড়ে নিতে পারেন।
  • ঘরের ফ্যান, জানালা পরিস্কার করে নিন। এসব প্রতি সপ্তাহে অন্তত দুইবার ভালোভাবে পরিস্কার করা উচিত।
  • ঘরের আলমারিগুলো গুছিয়ে নিন। যেহেতু ঈদের নতুন কাপড় কেনা হয়েছে, তাই পুরোনো কম ব্যবহৃত কাপড়গুলো বাদ দিতে পারেন। এতে আলমারিতে বেশ জায়গা হবে।
  • কাঁচের পাত্র কিংবা শো পিস রাখার শোকেস গুছিয়ে নিন। যত্ন সহকারে এগুলো পরিস্কার করে নিন।
  • ঘরের পুরোনো পর্দাগুলো ধুয়ে দিন। চাদরও বদলে নিতে পারেন। ঈদের সকালে নতুন চাদর তো বিছানায়  থাকছেই তার আগে নিয়মিত ব্যবহারের চাদরগুলোও ধুয়ে রাখুন।
  • রান্না ঘরকেও গুছিয়ে নিতে হবে। যেসব রান্না করবেন সেগুলোর জন্য প্রয়োজনীয় মশলা কিনে রাখুন। হাতের নাগালেই রাখতে হবে। যেন রান্নার সময় সব সহজেই পাওয়া যায় এবং সময়ও কম লাগে।
  • যারা ঘরকে নতুন রং দিতে চাচ্ছেন তারা এই সুযোগে ঘরের রং বদলে নিন। হালকা রং ব্যবহার করাই ভালো। এতে ঘরকে আরও প্রাণবন্ত লাগে।
  • ঘরের ফার্নিচারগুলো রিএরেঞ্জ করতে পারেন। মানে একটু এদিকে ওদিক ঘুরিয়ে নিতে পারেন। এতে ঘরকে নতুন মনে হবে।
  • ঘরের আলো কম হলে, লাইটগুলো বদলে নিতে পারেন। নতুন লাইটও লাগিয়ে নিতে পারেন। রাতের সময়টা ঘর আরও  আলোকিত হয়ে উঠবে। অতিথিরাও উপভোগ করবে। তবে অপ্রয়োজনে লাইটগুলো জ্বালিয়ে রাখবেন না। এতে বিদ্যুতের অপচয় হবে।
  • ফ্রিজ পরিস্কার করে নিতে পারেন। ফ্রিজে রাখা অপ্রয়োজনীয় জিনিসগুলো ফেলে দিন। ঈদে নানা রকম ডেজার্ট, বিরিয়ানী ও মাংসের পদ রান্না হবে। এগুলো রাখার জন্য় পর্যাপ্ত জায়গা বের করে রাখুন।
  • বাড়ির ওয়াশরুমে কথা কিন্তু ভুলে যাবেন না। কেননা সবচেয়ে বেশি অপরিস্কার হয় এই স্থানটি। তাই ঈদের আগে বেসিন, টয়লেটগুলোও পরিস্কার করে নিন। প্রয়োজনে পুরোনো জিনিসগুলো বদলে নিয়ে নতুন করে কিনুন।