• ঢাকা
  • রবিবার, ০১ আগস্ট, ২০২১, ১৬ শ্রাবণ ১৪২৮
প্রকাশিত: জুলাই ২০, ২০২১, ০১:১২ এএম
সর্বশেষ আপডেট : জুলাই ১৯, ২০২১, ০৭:১২ পিএম

নতুন স্বর্ণখচিত গিলাফে পবিত্র কাবা

নতুন স্বর্ণখচিত গিলাফে পবিত্র কাবা
পবিত্র কাবা আচ্ছাদিত হয়েছে নতুন গিলাফে ● ইন্টারনেট

প্রতি বছর ৯ জিলহজ কাবা শরিফে পুরনো গিলাফ পরিবর্তন করে নতুন গিলাফ পরানো হয়। তাই প্রতিবছরের মতো এবারও আরাফাতের দিনে (৯ জিলহজ)  সোমবার পবিত্র কাবা আচ্ছাদিত হয়েছে নতুন গিলাফে।

হজের দিন পুরনো গিলাফ খুলে নতুন স্বর্ণখচিত গিলাফ স্থাপন করা হয়। পুরাতন গিলাফটি খুলে তা কেটে বিভিন্ন মুসলিম দেশের সরকারপ্রধানদের উপহার দেয়া হয়। গিলাফ পরিবর্তনের কাজে মসজিদুল হারামের দায়িত্বপ্রাপ্ত তত্ত্বাবধায়ক নেতৃত্ব দেন। 

তিন মিটার বিশিষ্ট কাপড় দিয়ে পবিত্র কাবা ঘরের নতুন গিলাফ তৈরি করা হয়। গিলাফের ওপর দিকে সাদা কাপড় রাখা হয়।  গিলাফের মোট পাঁচটি টুকরো বানানো হয়। চারটি টুকরো চারদিকে ও পঞ্চম টুকরোটি দরজায় লাগানো হয়। টুকরোগুলো পরস্পর সেলাইযুক্ত। কাবা শরিফের গিলাফের প্রতিটি কাপড়ের জন্য প্রয়োজন হয় ৬৭০ কেজি রেশম, ১৫০ কেজি স্বর্ণ ও রূপার চিকন তার। ৪৭ থান সিল্কের কাপড় দিয়ে তৈরি করা হয় এই গিলাফ। এর মোট আয়তন ৬৫৮ বর্গমিটার। প্রতিটি থান এক মিটার লম্বা, ৯৫ সেন্টিমিটার চওড়া, যা পরস্পরের সঙ্গে সেলাই করা।

প্রতিবছর একটি সতর্কতামূলকসহ মোট দুটি করে গিলাফ তৈরি করা হয়। হাতে তৈরি করতে সময় লাগে আট থেকে নয় মাস। অন্যটি মেশিনে মাত্র এক মাসে তৈরি করা হয়। মক্কার উম্মুদ জুদ নামক এলাকার বিশেষ কারখানায় এগুলো তৈরি করা হয়।

জাগরণ/এমএ