• ঢাকা
  • সোমবার, ২৬ ফেব্রুয়ারি, ২০২৪, ১৪ ফাল্গুন ১৪৩০
প্রকাশিত: মার্চ ১৭, ২০২৩, ১২:২৮ এএম
সর্বশেষ আপডেট : মার্চ ১৭, ২০২৩, ১২:২৮ এএম

হজ নিবন্ধনের সময় বাড়ল ২১ মার্চ পর্যন্ত

হজ নিবন্ধনের সময় বাড়ল ২১ মার্চ পর্যন্ত
ছবি ● ফাইল ফটো

চলতি বছরের জন্য হজের নিবন্ধনের সময় ২১ মার্চ (মঙ্গলবার) পর্যন্ত বাড়ানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে ধর্ম মন্ত্রণালয়। 

বৃহস্পতিবার (১৬ মার্চ) নিবন্ধন শেষ হওয়ার তারিখ নির্ধারিত ছিল, কিন্তু সন্ধ্যা পর্যন্ত কোটা পূরণ না হওয়ায় আবারও নিবন্ধনের সময় বাড়ানোর সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। ধর্ম মন্ত্রণালয় থেকে এ তথ্য জানান হয়েছে।

চাঁদ দেখা সাপেক্ষে ২৭ জুন (৯ জিলহজ) পবিত্র হজ অনুষ্ঠিত হতে পারে। এবার বাংলাদেশ থেকে এক লাখ ২৭ হাজার ১৯৮ জন হজ করতে পারবেন। এর মধ্যে সরকারি ব্যবস্থাপনায় ১৫ হাজার ও ১ লাখ ১২ হাজার ১৯৮ জন বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় হজ করার সুযোগ পাবেন।

এদিন সন্ধ্যা পর্যন্ত মোট এক লাখ ১০ হাজার ৪৫৫ জন নিবন্ধন করছেন। অর্থাৎ বাংলাদেশের কোটা পূরণ হতে আরও বাকি আছে ১৬ হাজার ৭৪৩ জন।

ঘোষিত হজ প্যাকেজের মূল্য কমানোর কোনও সুযোগ অন্তত মন্ত্রণালয় পর্যায় থেকে নেই বলে জানিয়েছেন ধর্ম মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব (হজ) মতিউল ইসলাম। 

বৃহস্পতিবার (১৬ মার্চ) সচিবালয়ে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এসব তথ্য জানান।

হজ প্যাকেজে অনড় থাকার যুক্তি দেখিয়ে তিনি বলেন, হজ ব্যবস্থাপনা সংক্রান্ত নির্বাহী কমিটিতে ৩১টি মন্ত্রণালয়ের সচিব পদমর্যাদার কর্মকর্তারা আছেন। আমাদের প্রতিমন্ত্রীও আছেন। আমরা যে তথ্য-উপাত্ত উপস্থাপন করেছি সেটি বিচার-বিশ্লেষণ করেই কমিটিতে হজ প্যাকেজ অনুমোদিত হয়েছে।

তিনি বলেন, ‘হজ প্যাকেজ সংশোধন হওয়ার বিষয়টি আমাদের পর্যায়ে নিষ্পত্তিযোগ্য না। এই বিষয়ে আমাদের কোনও আলোচনাও নেই।’

বাংলাদেশ থেকে ২০২৩ সালে হজের জন্য সরকারিভাবে প্রত্যেকের জন্য হজ প্যাকেজ ধরা হয়েছে ৬ লাখ ৮৩ হাজার ১৫ টাকা।

বেসরকারি খরচ ধরা হয়েছে ৬ লাখ ৭২ হাজার ৬১৮ টাকা। যা গত বছরের সর্বনিম্ন খরচের তুলনায় প্রায় দুই লাখ টাকা বেশি। 

এত বেশি টাকায় হজ প্যাকেজ ঘোষণার পরপরই বিষয়টি ব্যাপক সমালোচনার জন্ম দেয়। কেউ কেউ উকিল নোটিশ ও হাইকোর্টে রিট পর্যন্ত দায়ের করেছেন।

বুধবার (১৫ মার্চ) মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির বৈঠকে হজের খরচ অন্তত ৫০ হাজার টাকা কমানোর সুপারিশ করা হয়েছে।

জাগরণ/ধর্ম/পবিত্রহজ/এসএসকে