• ঢাকা
  • রবিবার, ২৫ ফেব্রুয়ারি, ২০২৪, ১৩ ফাল্গুন ১৪৩০
প্রকাশিত: এপ্রিল ১, ২০২৩, ১২:১৭ এএম
সর্বশেষ আপডেট : এপ্রিল ১, ২০২৩, ১২:১৭ এএম

এখনও পূরণ হয়নি হজযাত্রীর কোটা

এখনও পূরণ হয়নি হজযাত্রীর কোটা
ছবি ● ফাইল ফটো

সাত দফা সময় বাড়িয়েও হজ নিবন্ধনের কোটা পূরণ করতে পারে নি ধর্ম মন্ত্রণালয়। সৌদি আরবে অস্বাভাবিক খরচ বৃদ্ধির পাশাপাশি বিমান ভাড়া বাড়ানোয় মিলছে না যাত্রী।

এজেন্সিগুলো বলছে, আগে নিবন্ধন করা অনেকেই টাকা তুলে নিয়েছেন। এতে আগামী বছর বাংলাদেশের কোটা কমার আশংকা করা হচ্ছে।

৯ হাজার খালি থাকলেও ধর্ম মন্ত্রণালয় বলছে, শেষ পর্যন্ত ১ লাখ ২৭ হাজার হজযাত্রীর কোটা পূরণ হবে।

বিশ্বের যেসব দেশ থেকে বেশি মানুষ হজে যায় তার অন্যতম বাংলাদেশ। কয়েক বছর ধরে হজ পালন করতে সৌদি আরব যান ১ লাখের বেশি মুসল্লি। এবারও ১ লাখ ২৭ হাজার ১৯৮ জনকে সুযোগ দিয়েছে সৌদি আরব।

২০১৯ থেকে ২০২১ সাল পর্যন্ত হজের টাকাও জমা দিয়েছিলেন অনেকে। কিন্তু চলতি বছর সাড়ে তিন লাখ টাকা খরচ বেড়ে যাওয়ায় হিমশিম খেতে হচ্ছে। অনেকে তুলে নিয়েছেন জমা টাকা। তাই ১ লাখ ৬৪ হাজার জনের প্রাক নিবন্ধন থাকার পরও এখনো ৯ হাজার হজযাত্রীর কোটা খালি।

হজ এজেন্সিগুলো বলছে, সৌদি আরব এবছর কোনও কোনও খাতে ১ লাখ টাকা পর্যন্ত বাড়িয়েছে। সেই সাথে বিমান ভাড়া বেড়েছে ৫৭ হাজার টাকা। তাই সাত দফা সময় বাড়ানোর পরও হজ যাত্রী পাওয়া যাচ্ছে না।

গত পাঁচ দিনে নিবন্ধন করেছেন মাত্র ২ হাজার জন।

হজ এজেন্সিদের সংগঠন হাবের জ্যেষ্ঠ সহসভাপতি মাওলানা ইয়াকুব শরাফতি বলেন, নিবন্ধনের সময় বাড়নো হলেও হজ কার্যক্রমে কোনও ব্যাঘাত ঘটবে না।

ধর্মপ্রতিমন্ত্রী ফরিদুল হক খান দুলাল বলেন, পাঁচ এপ্রিল পর্যন্ত নিবন্ধনের সময় বাড়ান হয়েছে। এখন পর্যন্ত সরকারিতে ৫ হাজার ৬৫ এবং বেসরকারিতে ৩ হাজার ৮৪৭ হজযাত্রী কম রয়েছে।

জাগরণ/জীবনযাপন/ধর্ম/পবিত্রহজনিবন্ধন/এসএসকে