• ঢাকা
  • বৃহস্পতিবার, ২৪ জুন, ২০২১, ১০ আষাঢ় ১৪২৮
প্রকাশিত: জুন ৬, ২০২১, ০৯:২৩ পিএম
সর্বশেষ আপডেট : জুন ৬, ২০২১, ০৯:২৬ পিএম

স্মার্টফোন আসক্তদের জন্য ‘থার্ড আই’

স্মার্টফোন আসক্তদের জন্য ‘থার্ড আই’

মোবাইল ফোনের স্ক্রিন থেকে যারা চোখ সরাতে পারেন না, তাদের জন্য দক্ষিণ কোরিয়ার প্রযুক্তিবিদ পেং মিন-উইক তৈরি করেছেন কৃত্রিম চোখ ‘থার্ড আই’।

আমাদের চোখ জোড়া যখন স্মার্টফোনে ব্যস্ত থাকবে তখন, এই কৃত্রিম চোখ ফোনের বাইরের দৃশ্য দেখতে সাহায্য করবে। স্মার্টফোন জম্বি বা মোবাইল আসক্তরা যেন হাঁটার সময় মোবাইল চালাতে গিয়ে দেয়াল বা অন্য কোনকিছুতে বাধা না পান সেই নিশ্চয়তা দিবে থার্ড আই।

২৮ বছর বয়সী তরুণ প্রযুক্তিবিদ পেং স্রেফ কৌতূহলের বশেই এই নতুন প্রযুক্তির কৃত্রিম চোখ তৈরি করেছেন। মোবাইল ফোন ব্যবহারকারীরা এটি কপালে লাগিয়ে বিনা বাধায় সারাক্ষণ মোবাইল চালাতে পারবেন।

যেকোন বাধা থেকে মানুষের দূরত্ব নির্ণয় করতে গায়রো সেন্সর ও আল্ট্রাসনিক সেন্সর ব্যবহার করে পেং এর এই রোবোটিক চোখ। স্মার্টফোনের দিকে নজর দেওয়ার জন্য মাথা নীচু করলেই স্বয়ংক্রিয়ভাবে থার্ড আইয়ের চোখের পলক খুলে যাবে। আর ব্যবহারকারী যখন কোন দেয়াল বা প্রতিবন্ধকতার এক থেকে দুই মিটারের কাছাকাছি চলে আসবে, তখন ডিভাইসটি সশব্দে বিপদ সংকেত দিবে।

স্মার্টফোন মানুষের দৈনন্দিন জীবনের অংশ হয়ে ওঠায় ভবিষ্যতে অতিরিক্ত চোখের প্রয়োজন হবে বলে মনে করছেন ইম্পেরিয়াল কলেজ অব লন্ডনের ইনোভেশন ডিজাইন ইঞ্জিনিয়ারিংয়ের ছাত্র পেং। এক সাক্ষাৎকারে তিনি রয়টার্সকে বলেন, “থার্ড আই জনপ্রিয় হয়ে উঠলে ভবিষ্যতে হরহামেশাই তিন চোখওয়ালা মানুষ দেখা যাবে।”

সম্প্রতি সিওলে এক প্রদর্শনটিতে অনেক দর্শনার্থীরই মনোযোগ আকর্ষণ করে এই ডিভাইসটি।
দর্শনার্থী লি ওক- জো বলেন, “কপালে একটা অতিরিক্ত চোখ দেখতে একদম ভিনগ্রহের প্রাণীর মতো লাগে। তবে আজকাল অনেক ছেলেপেলে মোবাইল ব্যবহারের সময় দুর্ঘটনার শিকার হয়। এটা তাদেরই কাজে লাগবে।”

তবে থার্ড আইয়ের আবিস্কারক পেং বলছেন, থার্ড আই আসলে সবার জন্যে একটি সতর্কবার্তা। স্মার্টফোন আসক্তরা এটা দেখে মোবাইলের নেশার ভয়াবহতা বুঝতে পারবে এবং নিজের অসহায়ত্ব উপলব্ধি করবে।

আরও পড়ুন