• ঢাকা
  • সোমবার, ১৫ আগস্ট, ২০২২, ৩১ শ্রাবণ ১৪২৯
প্রকাশিত: ফেব্রুয়ারি ২৬, ২০২১, ০৫:৩৬ পিএম
সর্বশেষ আপডেট : ফেব্রুয়ারি ২৬, ২০২১, ১১:৩৬ এএম

অভিযোগ প্রমাণের আগেই আত্মহত্যা কোচের! 

অভিযোগ প্রমাণের আগেই আত্মহত্যা কোচের! 

২৪টি অভিযোগ এলো সাবেক মার্কিন অলিম্পিক জিমন্যাস্টিকস কোচ জন গেদের্টের বিরুদ্ধে। সবগুলো ছিলো যৌন হয়রানি এবং মানবপাচারের সঙ্গে সম্পর্কিত অভিযোগ। অ্যাটর্নি জেনারেলের কাছে আজ হাজিরা দেয়ার সময় পার হয়ে যাবার পর খোঁজ নিয়ে দেখা গেলো, আত্মহত্যা করে সব অপরাধের শাস্তি এবং অপমান থেকে মুক্তি পেয়েছেন তিনি। 

গেদের্ট ২০১২ সাল থেকে জিমন্যাস্টদের সঙ্গে কাজ করছিলেন, সঙ্গে ছিলো আরেকজন চিকিৎসক- ল্যারি নাসার। আড়াইশ এর বেশি সংখ্যক নারী জিমন্যাস্টকে যৌন হয়রানির শাস্তিস্বরূপ তাকে ২০১৮ সালে ৩০০ বছরের কারাদণ্ড দেয় আদালত। 

এদিকে ৬৩ বছর বয়সী কোচ গেদেসস্টের বিরুদ্ধে অভিযোগ হলো, তিনি নাসারের শুনানিতে যারা সাক্ষ্য দিয়েছিলো তাদের নির্যাতন করেছেন। এছাড়াও অ্যাথলেটদের বিভিন্ন কাজের জন্য বাইরে যেতে বাধ্য করতেন তিনি, যা তাদের শরীরের পক্ষে হুমকিস্বরূপ। এই তালিকায় থাকা দুজন বালিকার বয়স যথাক্রমে ১৩ এবং ১৬ বছর। তবে এমন সব অভিযোগ অস্বীকার করেছিলেন তিনি- এমনটিই জানিয়েছেন অ্যাটর্নি জেনারেল। 

এই মৃত্যুর ব্যাপারে অ্যাটর্নি ডানা নেসেল বলেন, “মর্মান্তিক ঘটনাগুলোর সঙ্গে জড়িত সকলের জন্য সবকিছু খুবই বাজেভাবে শেষ হলো।” তবে এভাবে সব ঘটনা প্রকাশ হতে থাকলে ক্রীড়াঙ্গন নারী ও শিশুদের জন্য আরও নিরাপদ দয়ে উঠবে বলে খেলোয়াড়দের ধারণা।