• ঢাকা
  • রবিবার, ১১ এপ্রিল, ২০২১, ২৭ চৈত্র ১৪২৭
প্রকাশিত: মার্চ ৩, ২০২১, ০৫:২৩ পিএম
সর্বশেষ আপডেট : মার্চ ৩, ২০২১, ০৫:৪২ পিএম

নারীবিদ্বেষ নিয়ে বিতর্ক

জাপান অলিম্পিকে বাড়ছে নারী পরিচালকের সংখ্যা

জাপান অলিম্পিকে বাড়ছে নারী পরিচালকের সংখ্যা

কিছুদিন আগেই টোকিও অলিম্পিকের দায়িত্বে থাকা জাপানের সাবেক প্রধানমন্ত্রী ইয়োশিরো মোরি কমিটির নারী সদস্যদের নিয়ে বিতর্কিত মন্তব্য করেছিলেন। এরপর চাপের মুখে পদত্যাগ করায় দায়িত্ব পান সেইকো হাশিমোতো। প্রতিশ্রুতি অনুযায়ী বোর্ডে নারী পরিচালকের সংখ্যা বাড়িয়েছেন তিনি। 

মোরির পর কমিটি প্রধান হিসেবে হাশিমোতোকে দায়িত্ব দেয়ার পরেই বেশ নড়েচড়ে বসেছে অলিম্পিক কমিটি। নিজের পাশাপাশি কমিটিতে নারী পরিচালকের সংখ্যা বাড়িয়ে মোট সদস্যসের ৪০ শতাংশ করতে চেয়েছিলেন। সেই সুবাদে কমিটির প্রধান নির্বাহী তোশিরো মুতো জানিয়েছেন, আরও ১২ জন নারী পরিচালককে কমিটিতে আনা হবে। সেই হিসেবে এখন সাতজন নারী পরিচালকের সংখ্যা বেড়ে ১৯ জনে দাঁড়াবে। মোট ৪৫ সদস্যের কমিটিতে ১৯ জন মানে শতকরা ৪২ জন নারী পরিচালকের অংশগ্রহণ থাকছে। এতে অলিম্পিকে নারীরা বেশ সুরক্ষিত অনুভব করবে। 

নারীরা বেশি কথা বলে- এমন মন্তব্য করেছিলেন ইয়োশিরো মোরি। নিজে প্রধানমন্ত্রী থাকাকালীনও এমন বিতর্কিত মন্তব্যের জন্য সমালোচিত হয়েছিলেন তিনি। এবার ছাড়তে হলো অলিম্পিক কমিটির দায়িত্ব, সেখানেও তার স্থলাভিষিক্ত হলেন একজন নারী। এবার বোর্ডে নারী পরিচালকদের কথা বলার পরিমাণও বাড়বে। ব্যাপারটি অলিম্পিকের নারী প্রতিযোগীদের জন্য আশার তো বটেই। তবে বিরূপ মন্তব্যের জল এতোদূর গড়াবে, এটি কি কখনও ভেবেছিলেন এই সাবেক প্রধানমন্ত্রী?