• ঢাকা
  • রবিবার, ০৪ ডিসেম্বর, ২০২২, ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৯
প্রকাশিত: নভেম্বর ১৯, ২০২২, ১১:৫৪ পিএম
সর্বশেষ আপডেট : নভেম্বর ১৯, ২০২২, ০৫:৫৪ পিএম

‘তিন ঘণ্টা বিয়ার না খেলেও বেঁচে থাকবেন’

‘তিন ঘণ্টা বিয়ার না খেলেও বেঁচে থাকবেন’
ছবি ● সংগৃহীত

ফুটবল বিশ্বকাপে কাতার সরকারের নির্দেশে শেষ মুহূর্তে স্টেডিয়ামে বিয়ার বিক্রি বন্ধের সিদ্ধান্ত নিয়েছে ফিফা। এ সিদ্ধান্তে ক্ষুব্ধ বিশ্বের ফুটবলপ্রেমীরা। তবে এতে বড় কোনো সমস্যা দেখছেন না খোদ ফিফা সভাপতি। 

শনিবার (১৯ নভেম্বর) দোহায় সাংবাদিক বৈঠক করেন ফিফা সভাপতি জিয়ান্নি ইনফান্তিনো। এ সময় তিনি বলেন, স্টেডিয়ামে বিয়ার বিক্রি করা সম্ভব কিনা, সে বিষয়ে শেষ মুহূর্ত পর্যন্ত আমরা চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছি।  

তিনি বলেন, দিনে তিন ঘন্টা বিয়ার পান করতে না পারলেও আপনি বেঁচে থাকবেন। এই কারণেই হয়তো ফ্রান্স, স্পেন, স্কটল্যান্ডে স্টেডিয়ামে মদ বিক্রি করা নিষিদ্ধ। হয়তো ওরা আমাদের থেকে বেশি বুদ্ধিমান। তাই জন্যেই এই কাজ করেছে। 

কাতারের স্থানীয় গণমাধ্যম বলছে, বিশ্বকাপের মাঠে একদমই বিয়ার পাওয়া যাবে না, বিষয়টি এমন নয়। পাওয়া যাবে কিন্তু তাতে অ্যালকোহল থাকবে না।

ফিফা ফ্যান ফেস্টিভেলেই অ্যালকোহল-যুক্ত বিয়ার পাওয়া যাবে। ফ্যান ফেস্টিভেল হলো বিশেষ একটি দর্শক কর্নার, যেখানে নানা পানীয়র পাশপাশি থাকবে মিউজিক কনসার্টও।    

স্টেডিয়ামে বিয়ার বিক্রির বিষয়ে কাতার সরকার প্রথমে রাজি থাকলেও শুক্রবার হঠাৎ করেই সিদ্ধান্ত বদলায় দেশটি। এই সিদ্ধান্তে সমর্থকদের পাশপাশি ক্ষুব্ধ হয় বিয়ার উৎপাদনকারী সংস্থাও। বিপুল পরিমাণ আর্থিক ক্ষতির শঙ্কাও রয়েছে তারা।

কাতারে মদ বা মদ জাতীয় পানীয় নিষিদ্ধ। রাজধানী দোহার কয়েকটি বিলাসবহুল হোটেলেই কেবলমাত্র মদ্যপান করার অনুমতি রয়েছে। রাস্তায় বা গাড়িতে বসে মদ্যপান করা যায় না। তবে বিদেশি নাগরিকরা বাড়িতে মদ্যপান করতে পারবেন। 

জাগরণ/খেলা/বিশ্বকাপফুটবল২০২২/এসএসকে/এমএ