• ঢাকা
  • সোমবার, ২৬ ফেব্রুয়ারি, ২০২৪, ১৪ ফাল্গুন ১৪৩০
প্রকাশিত: এপ্রিল ২৭, ২০২৩, ১১:৩৫ পিএম
সর্বশেষ আপডেট : এপ্রিল ২৭, ২০২৩, ১১:৩৫ পিএম

অভিধানের পাতায় পেলে

অভিধানের পাতায় পেলে
ছবি ● প্রতীকী

গত ডিসেম্বরে প্রয়াত হয়েছেন ব্রাজিলিয়ান ফুটবল কিংবদন্তী পেলে। মারা যাওয়ার তিন মাস পরে অভিধানে জায়গা পেলো তার নাম। ইতিহাসের পাতায় অমর হয়ে থাকা পেলে এখন জায়গা করে নিলেন অভিধানের পাতায়। 

ব্রাজিলের একটি পর্তুগিজ অভিধানে ‘পেলে’ শব্দটি অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে। সেখানে পেলে শব্দের অর্থ হিসাবে লেখা হয়েছে, ‘এমন একজন যিনি ব্যতিক্রমী, অতুলনীয়, অনন্য’। এক শব্দে, যিনি ‘সেরা’।

বুধবার মিশেলিস অভিধানের পক্ষ থেকে এই ঘোষণা করা হয়। পেলে ফাউন্ডেশন পেলের নামটি অভিধানে যুক্ত করতে প্রচারণা চালায়। প্রায় এক লাখ ২৫ হাজার মানুষ সই করে পেলের নাম অভিধানে অন্তর্ভুক্ত করার দাবি জানিয়েছিলেন। 

মিশেলিস কর্তৃপক্ষ বলেছে, পেলে শব্দের অর্থ হল, ‘এমন একজন যিনি অসাধারণ, বা পেলের মতোই নিজের গুণমান, মূল্যবোধ এবং শ্রেষ্ঠত্বের বিচারে যার সঙ্গে কারও তুলনা করা চলে না। এডসন আরান্টেস দো নাসিমেন্তোর মতোই যিনি ব্যতিক্রমী, অতুলনীয় এবং অনন্য। উদাহরণ: অমুক বাস্কেটবলের পেলে, অমুক টেনিসের পেলে, অমুক ব্রাজিলীয় থিয়েটারের পেলে ইত্যাদি।’

দেশের অন্যতম সেরা অভিধানে পেলে ঠাঁই পাওয়ায় প্রবল খুশি পেলে ফাউন্ডেশন এবং স্যান্টোস এফসি। পেলে জীবনের বেশিরভাগ সময় খেলেছেন স্যান্টোসের হয়ে।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে পেলের অফিসিয়াল অ্যাকাউন্টে লেখা হয়েছে, ‘এতদিন সেরা বোঝাতে যার নাম বারবার ব্যবহার করা হতো তা এবার অভিধানে ঠাঁই পেল। অভিধানে পেলের নাম যুক্ত করে আমরা ইতিহাস তৈরি করেছি। পেলের অর্থ হল: ‘সবার সেরা’।’

গত বছরের ২৯ ডিসেম্বর ৮২ বছর বয়সে মারা যান পেলে। দেশের হয়ে তিনবার বিশ্বকাপ জেতার রেকর্ড রয়েছে এই তারকার। পুরো ক্যারিয়ারে এক হাজারের বেশি গোল আছে পেলের। যার মধ্যে জাতীয় দলের হয়ে ৯২ ম্যাচে ৭৭ গোল তার। ফুটবলের সর্বকালের অন্যতম সেরা হিসেবেই বিবেচিত হয় পেলের নাম। 

জাগরণ/খেলা/বিশ্বকাপফুটবল/এসএসকে