• ঢাকা
  • শনিবার, ২৩ অক্টোবর, ২০২১, ৮ কার্তিক ১৪২৮
প্রকাশিত: অক্টোবর ১৩, ২০২১, ০২:৩৩ পিএম
সর্বশেষ আপডেট : অক্টোবর ১৩, ২০২১, ০৮:৩৩ এএম

প্রদীপ্ত মোবারকে’র ৫টি কবিতা

প্রদীপ্ত মোবারকে’র ৫টি কবিতা
কবি: প্রদীপ্ত মোবারক

প্রদীপ্ত মোবারক একজন সুপরিচিত আধুনিক কবি, প্রাবন্ধিক ও গবেষক । প্রচলিত সময়ে আধুনিক কবিতা রচনার মাধ্যমে আমূল পাল্টে ফেলেন নিজের কবিতার ভাষা,প্রকরণ ও পরিচিতি। যে কারণে পরবর্তীকালে তাঁর কবিতা আর থাকেনি প্রচল-অনুসারী, ক্রমাগত নিরীক্ষায় তিনি বাংলা কবিতাকে নিয়ে যান এক নতুন গন্তব্যের দিকে, যে কবিতার ভাষায় খুজে পাওয়া যায় আধুনিকতা। শৈশব থেকেই সাহিত্য চর্চায় অনুপ্রাণিত হয়ে এই আগুনে হাত পোড়ানোর সুত্রপাত হয় তার । স্কুল জীবন থেকে লেখালেখির সূচনা । প্রদীপ্ত মোবারকে’র কবিতার প্রধান বিষয়বস্তু প্রেম / দ্রোহ/ সমাজচেতনা / দেশপ্রেম / অপ্রকৃতস্থ রাজনীতি / অস্থির বিশ্ব ও যান্ত্রিক জিবনে প্রতিদিন বিনষ্ট হওয়া হৃদয়ের কোমলতা। তার কবিতার অন্যতম বৈশিষ্ট্য আধুনিকতা। তাঁর কবিতা বরাবরই উন্মোচন করে মানুষের চেতন-অবচেতনের বহুবর্ণিল অথচ অনুচ্চারিত আনন্দ-বেদনার গভীর উপলব্ধিসমূহ। এমনকি মানুষের সঙ্গে মানুষ ও মানুষের সঙ্গে প্রকৃতির পারস্পরিক সম্পর্কের বিভিন্ন মনস্তাত্ত্বিক জটিলতাও অনুচ্চারিত থাকে না তাঁর কবিতায়। তাঁর বর্ণনাভঙ্গি এতোই সংক্রামক যে সেই আচ্ছন্নতা থেকে মুক্তি পাওয়া কঠিন হয়ে পড়ে পাঠকের পক্ষে, এমনকি পাঠের অনেক পরেও। যে কোনো ছন্দেই তিনি অনায়াস। এছারাও প্রদীপ্ত মোবারক তার প্রবন্ধে মননশীল ভাব, বিষয়, তথ্য ও তত্ত্ব উপযুক্ত ভাষার মাধ্যমে ধারাবাহিক বর্ণনায় উপস্থাপিত করে শিল্পরূপ প্রধান করে থাকেন। সম্পর্ক বিশ্লেষণ, দ্রোহের কারণ, সমাজচেতনা ও দেশপ্রেম এসব বিষয়বস্তু নিয়ে তার বিশ্লেষণাত্মক প্রবন্ধ রয়েছে। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে বাংলা ভাষা ও সাহিত্যে পড়াশোনা করেন। বর্তমানে বাংলা কবিতায় ছন্দ নিয়ে গবেষণার কাজ করছেন কলকাতার রবীন্দ্রভারতী বিশ্ববিদ্যালয়ে।

শিরোনামহীন-১

পথের শিকড়ে পিঁপড়ে 
জীবন খুঁজতে গিয়ে পাই চাঁদ-ভাঙা রাত।
অথচ একদিন সীমানা পেরিয়ে এসেছিল- 
খুব ভূমিকা করে...।
আজ দেহজলে নৌকা চলে। কিন্তু মাঝি কই...!
এসো তার কথা বলি...হা হা হা।

শিরোনামহীন-২

ইদানিং রাত গাঢ় হলেই-
ভিতরের উচ্চারণের চেয়ে অধিক আপন হয়ে ওঠে-
ঘড়ির টিকটিক শব্দটা। চারদিকে মানুষ শুধু ছেরে যাওয়ার প্রক্রিয়ায় ব্যস্ত। 
কখনো শরীর থেকে কখনো মন থেকে। এ থাকা-না-থাকার গল্পতেই আটকে যাচ্ছে সময়।

শিরোনামহীন-৩

পুরোনো এই ভোর, ফেলে আসা জলশব্দের মতো গাঢ় হয়ে আছে। 
দিনের সাথে সাথে উৎপন্ন হচ্ছে কতইনা কথাচিত্র, 
আর নির্ঘুম রাতের সঙ্গী কেবলই আমি...।

শিরোনামহীন-৪

ফের দুর্বিপাক, ফের মেঘজলে একাকার।
চলছে গৃহপালিত শোক। হাস্যকর তবুও চলছে...।


শিরোনামহীন-৫

ক্রমশই উপেক্ষার আঁচড়, 
ক্ষতস্থানে নৈঃশব্দ্য ভরে যাই। 
ব্যথার আগুনে আগুনে
নৈঃশব্দ্যটুকু পুড়ে ছাই।